বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
149 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (15,856 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (15,856 পয়েন্ট)
হজ্জ এর কাজগুলোর মাঝে সবচাইতে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো ৯ই জিলহজ্জ এর দিনে আরাফার মাঠে সমবেত হয়ে সারাদিন সেখানে অবস্থান করা। ইহরামের অত্যন্ত সাধাসিধে পোশাকে একেবারে হীন ও অসহায় হয়ে সারা বিশ্ব থেকে হাজীরা একসাথে সমবেত হয়ে আল্লাহর সন্তুষ্টি কামনা করা, আল্লাহর কাছে অত্যন্ত পছন্দনীয় একটা আমল। আর দুয়া কবুলের সবচাইতে উপযোগী সময় হলো আরাফার দুয়া। এইদিনে আল্লাহ যত মানুষকে জাহান্নাম থেকে মুক্ত করেন বছরের অন্য কোনো সময়ে করেন না।
যারা হজ্জ করতে আরাফার ময়দানে উপস্থিত হবেন তারা সারাদিন সেখানে অবস্থান করে নামায, তাসবীহ, তাহলীল, ও তালবিয়া পাঠ করবেন ও বেশি বেশি দুয়া করবেন। আর যারা এইদিনে সেখানে উপস্থিত থাকবেন না তারা ঐ দিনে রোযা রাখবেন। কারণ, রাসুলুল্লাহ (সাঃ) বলেছেন, "আরাফার দিনে রোযা রাখলে বিগত বছর ও সামনের বছরের গুনাহ মাফ হয়ে যায়।"
মুসলিমঃ ১১৬২।
বিঃদ্রঃ আমাদের দেশে আর সউদী আরবে যেখানে আরাফার মাঠ সেখানকার আরাফার দিন একই দিনে হয়না, তাহলে আমরা কোন দিন রোযা রাখবো?
এই জটিলতা এড়ানোর সর্বোত্তম উপায় হচ্ছে - দুই দিনই রোযা রাখুন। কারণ, রাসুলুল্লাহ (সাঃ) জিলহজ্জ মাসের ১-৯ পর্যন্ত রোযা রাখতেন। আর এইদিনগুলোর ইবাদত জিহাদের চাইতেও আল্লাহর কাছে বেশি প্রিয়। তাই এই দিনগুলোতে আমরা যত বেশি ইবাদর করতে পারি তত বেশি উত্তম।
মোঃ আরিফুল ইসলাম বিস্ময় ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। খানিকটা অস্তিত্বের তাগিদে আর দেশের জন্য বাংলা ভাষায় কিছু করার উদ্যোগেই ২০১৩ সালে তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে বিস্ময় ডট কম। পেশাগত ভাবে প্রোগ্রামার।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
30 নভেম্বর 2015 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Dj rj badhon (92 পয়েন্ট)

313,548 টি প্রশ্ন

403,086 টি উত্তর

123,885 টি মন্তব্য

173,636 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...