54 জন দেখেছেন
"ক্যারিয়ার" বিভাগে করেছেন (343 পয়েন্ট)
 তারা বেশি আড্ডা দেয় খুব ফেসবুক চালায় ঘোরাঘুরি করে এখন প্রশ্ন হলো তাদের থেকে আমি কি ভবিষ্যতে বেশি সুবিধা লাভ করতে পারব আরেকটা প্রশ্ন তা হলো আমি যে এসব কাজ করি এতে কোন সমস্যা হতে পারে দয়া করে উত্তর দেন

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (40 পয়েন্ট)
আপনার কাজই ভাল।কথা কম বললে মাথা ঠান্ডা থাকে।এছাড়াও নামাজ হলো জান্নাতের চবি। নামাজের মাধ্যমেই আল্লাহর রহমত পাওয়া যায়।আর আল্লাহ্‌র রহমত যার উপর থাকবে সে সকল সময় শান্তি পাবে শুধু দুনিয়াতে নয় আখিরাতেও।তাই আপনি যেসকল কাজ করনে কোন সমস্যা হতে পারে না বরং শান্তিই হবে।।"ইনশাল্লাহ্"
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (3,297 পয়েন্ট)
কথা কম বলা খারাপ কিছু নয়।হাদিসে আছে, চুপ থাকে যে মুক্তি পেল সে।*আল হাদিস* আর বেশি কথা বলার ফলে অনেক সময় দুই একটা মিথ্যা কিংবা কারো গিবত চলে আসে।আর মিথ্যা বলা এবং গিবত করা দুটিই হারাম কাজ তথা কবিরা গুনাহ।আর আড্ডা দেওয়া সঠিক নয়।কেনোনা আড্ডার পরিবেশে থাকলে ভালো কাজ খুব কম সংঘটিত হয়।আর ফেসবুকে আড্ডা তো আরো ভয়ংকর,বেপর্দা মেয়ের ছবি ইত্যাদি।আর নামায পড়াটাও খুব ভালো কাজ।কেনোনা কিয়ামতে প্রথম নামাযের হিসাব নেয়া হবে**আল হাদিস**এবং নামায অশ্লিল ও মন্দ কাজ থেকে বিরত রাখে **আল কুরান**তাহলেই বুঝতেই পারছেন তাদের থেকে আপনার ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল তথা গুনাহমুক্ত।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর

282,842 টি প্রশ্ন

367,120 টি উত্তর

110,531 টি মন্তব্য

152,533 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...