94 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (1,174 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (3,320 পয়েন্ট)

পবিত্র কুরআনে মোট ৩ জন ফেরেশতার নাম আছে। তারা হলেন,

  • হযরত জিবরাঈল (আঃ)
  • হযরত মিকাইল (আঃ) ও
  • হযরত মালেক (আঃ)। 

→পবিত্র কুরআনে জিবরাঈল (আঃ) ও মিকাইল (আঃ) এর কথা 

সুরা বাকারা এর ৯৭ ও ৯৮ নং আয়াতে উল্লেখ আছে।   

এছাড়াও, হযরত মালেক (আঃ) এর কথা পবিত্র কুরআনের সুরা যুকরুফ এর ৭৭ নং আয়াতে উল্লেখ আছে।

করেছেন (4,742 পয়েন্ট)
হযরত আজরাইল (আঃ) ও হযরত ইসরাফিল (আঃ) এর কথা আমরা তাহলে কোথা থেকে জেনেছি?
করেছেন (3,320 পয়েন্ট)
ইসরাফিল (আঃ)- এই ফেরেস্তা কিয়ামত বা মহাপ্রলয় ঘোষণা করবেন। তার নাম কুরআন শরীফে নেই কিন্তু হাদিসে উল্লেখ করা হয়েছে। আর আজরাইল (আঃ) এর নামও কুরআনে নেই। তবে, তাকে পবিত্র কুরআনে মালাকুল-মাউত নামে অভিহিত করা হয়েছে।
করেছেন (4,742 পয়েন্ট)
তাহলে আজরাঈল(আঃ) এর নাম আমরা কীভাবে জেনেছি?
করেছেন (3,320 পয়েন্ট)
দুঃখিত! আপনার উত্তর দিতে অনেক দেরি হয়ে গেল। একটু অফলাইনে চলে গিয়েছিলাম। তো যাই হোক, আসল প্রসঙ্গে আসি। আপনার প্রশ্নের উত্তরঃ হযরত আদম (আঃ) কে মাটি প্রক্রিয়াজাত করে তাঁর ‘খামিরা’ বা দেহ প্রস্তুত হওয়ার পূর্বেই আল্লাহ ফেরেশতাদের জানালেন, অচিরেই তিনি মাটি দিয়ে একটি নতুন সৃষ্টি তথা মাখলুক নির্মাণ করতে যাচ্ছেন। সেই মাখলুককে ‘বাশার’ (মানুষ) বলা হবে এবং জমিনে সে আল্লাহ তায়ালার প্রতিনিধিত্বের সম্মান লাভ করবে। হযরত আদম (আঃ) কে তৈরির উদ্দেশ্যে বানানো খামিরা প্রক্রিয়াজাতকৃত মাটি থেকে প্রস্তুত করা হয়েছিলো এবং এমন মাটি থেকে প্রস্তুত করা হয়েছিলো, যা ছিলো প্রতিনিয়ত পরিবর্তনশীল। সেই মাটি সংরক্ষণের জন্য আল্লাহ তায়ালা কয়েক জন ফেরেশতাকে পাঠিয়েছিলেন। কিন্তু তারা এতে ব্যর্থ হয়। অবশেষে হযরত আজরাইল (আঃ) উক্ত কাজে সফল হয়েছিলেন৷ উক্ত ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতেই আমরা হযরত আজরাইল (আঃ) এর পরিচয় লাভ করি।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
1 উত্তর
03 জানুয়ারি 2016 "পবিত্র কুরআন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Eashir Arafat (-17 পয়েন্ট)

283,688 টি প্রশ্ন

368,219 টি উত্তর

111,047 টি মন্তব্য

153,123 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...