বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
152 জন দেখেছেন
"তথ্য-প্রযুক্তি" বিভাগে করেছেন (1,238 পয়েন্ট)

4 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (113 পয়েন্ট)
বর্তমানে সবচেয়ে দ্রুততম যোগাযোগ মাধ্যম হলো "তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি"। অর্থাৎ,মোবাইল,ফ্যাক্স,মেইল, ইত্যাদি।
+1 টি পছন্দ
করেছেন (3,792 পয়েন্ট)

বর্তমানে সবচেয়ে দ্রুত যোগাযোগ মাধ্যম

ফেসবুকঃ

এক নম্বরে রয়েছে ফেসবুক। মার্ক জুকারবার্গ (চেয়ারম্যান, সি ই ও), এডুয়ার্ডো সাডেরিন, এনড্রিউ ম্যাককালাম, ডাসটিন মস্কোভিটজ্‌ এবং ক্রিস হাঘ্‌স ২০০৪ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করেন। এটি বর্তমানের সবচেয়ে জনপ্রিয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম।

হোয়াটস অ্যাপঃ

এই তালিকায় দুই নম্বরে রয়েছে হোয়াটস অ্যাপ। যার রয়েছে ১ বিলিয়ন একটিভ ইউজার। এটি ব্যাবহারকারীদের টেক্সট ম্যাসেজ, ভয়েস কল, ভিডিও কল, ছবি, গিফ প্রেরণসহ ইত্যাদি সুবিধা দিয়ে থাকে। ব্রিয়ান অ্যাক্টন এবং জান কল ২০০৯ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করেন।

ইউটিউবঃ

স্টিভ চেন, চাদ হায়লে এবং জাওয়েদ করিম ২০০৫ সালে এটি প্রতিষ্ঠা করেন। বর্তমানে এটি গুগলের একটি অংশ। এতে মানুষ ভিডিও আপলোড, শেয়ার, রেট ইত্যাদি করতে পারেন। এছারাও তারা একে অন্যকে সাবস্ক্রাইবও করতে পারেন।

ফেসবুক ম্যাসেঞ্জারঃ

ফেসবুক ম্যাসেঞ্জার, যার একটিভ ইউজার সংখ্যা ১ বিলিয়ন। এটি ওয়েব বেজ ফেসবুকের সাথে সম্পৃক্ত। এটি ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। এটি দিয়ে মূলত ফেসবুক ইউজাররা ম্যাসেজিং করতের পারেন। এছারাও অডিও এবং ভিডিও কল করা যায়।

উইচ্যাটঃ

উইচ্যাট এর একটিভ ইউজার সংখ্যা ৮৮৯ মিলিয়ন। এটি টেন্সেন্ট ২০১১ সালে প্রতিষ্ঠা করে। এর পূর্বনাম মা হুয়াটেং। এর দ্বারা ইউজাররা টেক্সট ম্যাসেজ, ভিডিও ম্যাসেজ ইত্যাদি সুবিধা ভোগ করতে পারেন।

কিউ কিউঃ

৮৬৮ মিলিয়ন একটিভ ইউজার নিয়ে কিউ কিউ চলছে দুর্বার গতিতে। এটি ২০১৬ সালে টেন্সেন্ট প্রতিষ্ঠা করে। যদিও এটির বেশিদিন হয় নি তবুও এই অল্প সময়ের মধ্যে এটি খুব জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ইউজাররা এতে অনলাইন গেমস্‌, শপিং, গান, মাইক্রব্লগিং, মুভি, গ্রুপ চ্যাট, ভিডিও চ্যাট করতে পারেন।

ইন্সটাগ্রামঃ

ইন্টারনেট ভিত্তিক ছবি শেয়ারিং অ্যাপস্‌ ইন্সটাগ্রাম। এর রয়েছে ৫৫০ মিলিয়ন একটিভ ইউজার। ২০১০ সালে চালু হওয়া এটি দ্বারা ইউজাররা তাদের ছবি শেয়ার করতে পারে। কেভিন সিস্টোম এবং মাইক ক্রিগার এটি প্রতিষ্ঠা করেন।

কিউ জোনঃ

কিউ জোন এর রয়েছে ৫৫০ মিলিয়ন একটিভ ইউজার। টেন্সেন্ট ২০০৫ সালে কিউ জোন তৈরি করে। ইউজাররা এতে ডায়েরি রাখা, গান শুনা, ব্লগ লেখা, ভিডিও দেখা, ছবি পাঠানো ইত্যাদি করতে পারেন। কিউজোন সব মেম্বারদের জন্য আলাদাভাবে সাজানো যায়। ইউজাররা তাদের পছন্দ  অনুযায়ী এটির ব্যাকগ্রাউন্ড সাজাতে পারেন।

টাম্বলারঃ

৫৫০ মিলিয়ন একটিভ ইউজার নিয়ে অগ্রসর হচ্ছে টাম্বলার। এটিও একটি মাইক্রো ব্লগিং এবং  সামাজিক যোগাযোগ ওয়েবসাইট। ২০০৭ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। ডেভিড কার্প, কোম্পানির সি. ই. ও. এটি প্রতিষ্ঠা করেন। টাম্বলারে ব্যাবহারকারীগণ বিভিন্ন ধরণের মাল্টিমিডিয়া পোষ্ট এবং অন্যান্য ছোট ব্লগ পোষ্ট করতে পারেন।

টুইটারঃ

মাইক্রোব্লগিং ওয়েবসাইট টুইটার। এর রয়েছে ৩১৯ মিলিয়ন একটিভ ইউজার। এটি মূলত একটি অনলাইন  সংবাদপত্র এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম যেখানে মানুষ বার্তা পোষ্ট করে। যা টুইটস্‌ নামে পরিচিত। এটি ২০০৬ সালে যাত্রা শুরু করে। জেক ডোরসে (সি ই ও), নোয়াহ গ্লাস , বিজ স্টোন এবং ইভান উইলিয়ামস্‌ এটি প্রতিষ্ঠা করেন

0 টি পছন্দ
করেছেন (1,286 পয়েন্ট)
বর্তমান সময়ে দ্রুত যোগাযোগ মাধ্যম হচ্ছে মোবাইল।
0 টি পছন্দ
করেছেন (105 পয়েন্ট)
সবচেয়ে দ৾ুত হলো ইন্টারনেট নেটওয়ার্ক এবং সর্বসাধারনের জন৽ হলো ল৽ান থেকে ওয়৽ান অর্থাৎ মোবাইল ফোন
করেছেন (5,844 পয়েন্ট)
পুরাতন সঠিক উত্তরিত প্রশ্নে উত্তর করবেন না৷ এবং বানানের প্রতি যত্নশীল হওয়ার চেষ্টা করুন।
করেছেন (600 পয়েন্ট)
point বাড়ানোর জন্য এটা করে.......      

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর

343,540 টি প্রশ্ন

436,636 টি উত্তর

136,684 টি মন্তব্য

185,008 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...