বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
48 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (276 পয়েন্ট)
মনে করুন আসরের নামাজ পড়ার জন্য মসজিদে গেলাম কিন্তু আমি দেরীতে যাওয়ার কারনে এক রাকাত নামাজ পেলাম না প্রথম দু রাকাতে তো সুরা ফাতেহার সাথে অন্য সুরা পড়া লাগে কিন্তু আমি যে এক রাকাত পেলাম না শেষে সে রাকাতে কি শুধু ফাতেহা পাঠ করবো নাকি অন্য সুরা ও পড়তে হবে

3 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
আপনি আসরের নামায  এক রাকাত না পেলে উক্ত ছুটে যাওয়া রাকাত আদায়ে আপনাকে  সূরা ফাতেহার সাথে অন্য একটি সূরা মিলাতে হবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,792 পয়েন্ট)
এক্ষেত্রে হানাফী মাযহাবের বিধান হলো, ইমাম সাহেব সালাম ফিরানোর পর দাঁড়িয়ে গিয়ে সূরা ফাতিহা পড়ার পর যেকোন একটি সূরা মিলাতে হবে। এবং অবশিষ্ট এক রাকাআত শেষ করে সালাম ফিরিয়ে নামায শেষ করতে হবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (7,391 পয়েন্ট)
মাসবুক ব্যক্তির সালাত আদায়ের সঠিক নিয়ম হল, সে ইমামকে যে অবস্থায় পাবে সে অবস্থাতেই সালাতে শরীক হবে। সালাম ফিরানো পর্যন্ত ইমামের অনুসরণ করবে।

আবু কাতাদাহ (রাঃ) নাবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হতে এ কথা বর্ণনা করেছেন। তিনি বলেন, তোমরা ইমামের সাথে যতটুকু সালাত পাও তা আদায় করবে, আর তোমাদের যা ছুটে যায় তা ইমামের সালাম ফিরানোর পর পুরা করে নিবে।

বিশুদ্ধ কথা হচ্ছে, ইমামের সালামের পর মুক্তাদী যে সালাতটুকু পূরা করে থাকে, তা হচ্ছে তার নিজস্ব নামাযের শেষ অংশ। তাই সালাতে দাঁড়িয়ে প্রথমে সানা, আউযুবিল্লাহ, বিসমিল্লাহ পড়বে। এক রাকআত ছুটে থাকলে সূরা ফাতেহা ও অন্য সূরা পড়বে। রুকু সেজদা করে বসে যাবেন ও যথা নিয়মে তাশাহুদ, দূরুদ শরীফ ও দুয়ায়ে মাসুরা পড়ে সালাম ফিরিয়ে নামাজ শেষ করবেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
1 উত্তর

306,586 টি প্রশ্ন

395,444 টি উত্তর

120,682 টি মন্তব্য

169,877 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...