59 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
বেশিরভাগ মানুষই দশ রাকাত নামাজ পড়ে যেমন মসজিদে যাওয়ার পর সুন্নত চার রাকাত তার পর ফরয ২ রাকাত তারপর আবার সুন্নত চার রাকাত প্রথমে যে চার রাকাত পড়া হয় এবং শেষে যে চার রাকাত পড়া হয় সেগুলোর নিয়ত কিভাবে করবো আলাদা আলাদা করে বলুন এবং এই দশ রাকাত নামাজ আদায় করলেই কি চলবে প্লিজ বিস্তারিত পড়ে একটু বুঝিয়ে বলবেন

3 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (481 পয়েন্ট)
হ্যাঁ। এই দশ রাকাত নামাজ আদায় করলেই চলবে। প্রথমে চার রাকাত সুন্নাতের নিয়্যত হলোঃ ★"নাওয়াইতু আন উছল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা আরবায়া রাকয়াতি ছলাতিল কবলাল জুময়াতু সুন্নাতু রাছূলিল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কা'বাতিস শারিফাতি আল্লাহু আকবার"। আর শেষের চার রাকাত সুন্নাত নামাজের নিয়্যত হলোঃ ★"নাওয়াইতু আন উছল্লিয়া লিল্লাহি তায়ালা আরবায়া রাকয়াতি ছলাতিল বা'দাল জুময়াতু সুন্নাতু রাছূলিল্লাহি তায়ালা মুতাওয়াজ্জিহান ইলা জিহাতিল কা'বাতিস শারিফাতি আল্লাহু আকবার"।
মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (2,805 পয়েন্ট)
তথ্যসূত্র দিন।                                      
1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (2,805 পয়েন্ট)
জুমু‘আর নামায ফরয ২ রাকাআত। এর পূর্বে ৪ রাকাআত সুন্নাত এবং পরে ৪ রাকাআত সুন্নাত। সর্বশেষে আরো ২ রাকাআত সুন্নাত পড়তে পারলে ভালো; বরং পড়া উচিত। সে হিসেবে মোট ১২ রাকাআত হলো।

এখন আসি নিয়ত সম্পর্কে। প্রথমে বলবো, আরবীতে আমরা যে নিয়তটা সাধারণত করে থাকি তা হাদীসের কোথাও উল্লেখ নেই। আর আমরা আরবী ভাষাভাষীও নই। সেক্ষেত্রে আরবীতে নিয়ত করতে গেলে ভুল হয়ে যাওয়াটা সাভাবিক। আর যদি ভুলটা সেই রকম হয়, তাহলে নামাযটা আদায় নাও হতে পারে। এজন্য আমরা বাংলা ভাষাভাষীদের জন্য বাংলায় নিয়ত করা ভালো।

এখন নিয়ত কিভাবে করবো, ফরয দুই রাকাআতের নিয়ত : আমি কিবলামুখী হয়ে এই ইমামের পিছনে জুমুআর দুই রাকাআত ওয়াজিব নামায আদায় করছি। এভাবে সুন্নাতের ক্ষেত্রে : আমি কিবলামুখী হয়ে জুমুআর পূর্বের চার রাকাআত সুন্নাত নামায আদায় করছি। এভাবে জুমুআর পরের চার রাকাআত এবং শেষের দুই রাকাআতের ক্ষেত্রে : আমি দুই রাকাআত সুন্নাত আদায় করছি।

আশা করি উত্তরটি পেয়েছেন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (4,632 পয়েন্ট)
জুমআর নামাজের রাকাত সংখ্যাঃ

❖ প্রথমে চার রাকাত কাবলাল জুমআ।
❖ তারপর খুতবা পাঠের পর দুই রাকাত ফরজ নামাজ।
❖ তারপর চার রাকাত বাদাল জুমআ আদায় করতে-ই হবে।

তবে জুম্মার দিন তাহিয়্যাতুল অজু দুই রাকাত সুন্নত। দুখলুল মসজিদ দুই রাকাত সুন্নত। দুই রাকাত নফল নামাজ আদায় করা উত্তম। তবে এই নামাজ গুলো জুমাআর নামাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত নয়।

বাংলায় নিয়াতঃ আমি আল্লাহর সন্তুষ্টির জন্য কেবলামুখী হইয়া...+...রাকআত...+... নামাজ আদায় করিতেছি, আল্লাহু আকবার।
closeWe

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

4 টি উত্তর
2 টি উত্তর
24 অগাস্ট 2017 "ইবাদত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন noor mohammad22 (0 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর

264,054 টি প্রশ্ন

345,037 টি উত্তর

101,474 টি মন্তব্য

138,867 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
closeWe
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...