বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
127 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (4,425 পয়েন্ট)

3 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (7,631 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
কিয়ামতের দিন মহান আল্লাহ তায়ালা দুনিয়ার সকল বাদশাদের বাদশা! হবেন।

মানুষ যেদিন 'কবর থেকে' বের হয়ে আসবে, আল্লাহর কাছে তাদের কোন কিছুই গোপন থাকবে না। আজ কর্তৃত্ব কার? আল্লাহর-ই যিনি এক, প্ৰবল প্ৰতাপশালী। (মুমিনুনঃ ৪৪)

কিয়ামতের প্রারম্ভে।আহবানকারী আহবান করে বলবেনঃ হে লোক সকল! তোমাদের কিয়ামত এসেছে, তখন জীবিত মৃত সবাই শুনতে পাবে। আর আল্লাহ প্রথম আসমানে নেমে এসে বললেনঃ আজকের দিনে কার রাজত্ব? একমাত্র পরাক্রম আল্লাহর জন্যই। (মুস্তাদরাকে হাকিম: ২/৪৭৫, ৩৬৩৭)

তাছাড়া অন্য বর্ণনা থেকে জানা যায় যে, আল্লাহ তাআলা এ উক্তি তখন করবেন, যখন প্রথম ফুঁকের পর সমগ্র সৃষ্টি ধ্বংস হয়ে যাবে। এবং জিবরাইল, মীকাইল, ইসরাফীল, প্রমূখ নৈকট্যশীল ফেরেশতাগণও মারা যাবে এবং আল্লাহর সত্ত্বা ব্যতীত কোন কিছুই অবশিষ্ট থাকবে না। আল্লাহ বলবেন, আজকের দিন রাজত্ব কার? আল্লাহ নিজেই জওয়াব দেবেনঃ প্রবল পরাক্রান্ত এক আল্লাহর! হাদীস থেকে এর সমর্থন পাওয়া যায় কেয়ামতের দিন আল্লাহ তাআলা সমগ্ৰ পৃথিবী এবং সমগ্র আসমান সমূহকে হাতে গুটিয়ে বলবেনঃ আমিই বাদশাহ! আমিই পরাক্রমশালী, আমি অহংকারী, দুনিয়ার বাদশারা কোথায়? কোথায় পরাক্রমশালীরা? কোথায় অহংকারকারীরা? (বুখারীঃ ৭৪১২ মুসলিমঃ ২৭৮৮)

তাফসিরে ইবনে কাসিরে বর্ণিত- যখন ইসরাফীল (আঃ) সিঙ্গায় ফুৎকার দিবেন তখন সকলেই মরে যাবে। মালাকুল মউত মৃত্যুর ফেরেস্তা এসে আল্লাহ তায়ালাকে বলবে হে প্রভূ সকলে মরে গেছে। তিনি জিজ্ঞেস করবেন আর অবশিষ্ট কেউ আছে?

উত্তর দিবে হে আমার রব আপনি আর আপনি হলেন চিরজ্ঞীব। এ ছাড়াও বাকি রয়েছেন জিবরাইল মিকাইল ও আরশ বহনকারী ফেরেস্তারা।

আল্লাহ তায়ালা বলবেন জিবরাইল মিকাইলের মৃত্যু হওয়া উচিত। মৃত্যুর ফেরেস্তা বলবে হে প্রভূ জিবরাইল ও মিকাইল মরে গেছে।

আল্লাহ তায়ালা জিজ্ঞাস করবেন এখন আর কেউ বাকী আছে? সে উত্তর করবে আমি বাকি আছি আর আরশ বহনকারী ফেরেস্তারা।

তখন আল্লাহ তায়ালা বলবেন আরশ বহকারীগণকে মরতে হবে তারাও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়বে। আল্লাহ তায়ালা আবার জিজ্ঞাস করবেন এখন আর কেউ বাকি আছে?

মালাকুল মউত বলবেন হে! আমার রব এখন আপনি এবং আমি বাকি আছি। তখন আল্লাহ তায়ালা বলবেন তুমি তো আমার মাখলুক তুমিও মরে যাও। তিনিও তৎক্ষনাৎ মরে যাবে। শুধুমাত্র আল্লাহ তায়ালা বাকী থাকবেন।

অতঃপর আল্লাহ তায়ালা জমিনকে ভাজ করে ফেলবেন। এবং তিন তিন বার উদীপ্ত কন্ঠে বলবেন- আমি প্রতাপশালী আমি প্রতাপশালী। আমি প্রতাপশালী। অতঃপর তিনি ত্যাজদিপ্ত কন্ঠে জিজ্ঞেস করবেন আজকের রাজত্ব কার? আজকের সার্বভৌমত্ব কার? আজকের এ অধিপত্য কার? জবার দেওয়ার মতো কেউই থাকবে না। নৈশব্দের মধ্যে তিনি পূণরায় উত্তর দেবেন আজকের রাজত্ব! আজকের সার্বভৌমত্ব!! আজকের অধিপত্য!!! পরাক্রমশালী একমাত্র আল্লাহর।

ইবনে আমরের অপর হাদিসে আছে তিনি কিয়ামতের দিন আসমান জমিনকে ভাজ করে গুটিয়ে নেবেন। অতঃপর আল্লাহ সুবহানাহু তায়ালা বলবেন আমি বাদশা! আমি প্রতাপশালী!! আমি অহংকারী!!! এরপর প্রতিপক্ষের জন্য প্রশ্ন ছুড়ে দেবে দুনিয়ার রাজা বাদশারা কোথায়? দুনিয়ার প্রতাপশালীরা কোথায়? দুনিয়ার অহংকারকারীরা কোথায়?

তখন আল্লাহ তায়ালা সুউচ্চ কন্ঠে তিন বার জিজ্ঞাসা করবেন আজকের রাজত্ব কার? আজকের সার্বভৌমত্ব কার? আজকের আধিপত্য কার? এতপর আবার নিজেই নিজের উত্তর দিবেন আজকের রাজত্ব আজকের সার্বভৌমত্ব আজকের অধিপত্য!! পতাপশালী একমাত্র আল্লাহর।
+1 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

মহান আল্রাহ তাআলা সকল বাদশাহের বাদশাহ। পবিত্র কুরআনে মহান আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন-

যেদিন তারা বের হয়ে পড়বে, আল্লাহর কাছে তাদের কিছুই গোপন থাকবে না। আজ রাজত্ব কার? এক প্রবল পরাক্রান্ত আল্লাহর। -সূরা মুমিন: আয়াত 16

অন্য আয়াতে মহান আল্লাহ ঘোষণা করেন, পূণ্যময় তিনি, যাঁর হাতে রাজত্ব। তিনি সবকিছুর উপর সর্বশক্তিমান।  -সূরা মুলক: আয়াত ১

0 টি পছন্দ
করেছেন (3,418 পয়েন্ট)
শরিয়তের দলিল চারটি*কুরান**হাদিস***ইজমা****কিয়াস। অহি দুপ্রকার *অহীয়ে মাতলু তথা কুরান **অহীয়ে গাইরে মাতলু তথা হাদিস। ! হযরত আবু হুরাইরা রাঃহতে বর্নিত,তিনি বলেন,রসুলুল্লাহ সাঃইরশাদ করেছেন, কিয়ামতের দিন সে ব্যাক্তির নাম আল্লাহর নিকট অধিক নিকৃষ্ট হবে, যার নাম রাখা হয়েছে রাজাধিরাজ।*বুখারী* মুসলিমের এক বর্ণনায় আছে,রসুল সাঃবলেছেন,কেয়ামতের দিন আল্লাহর দরবারে ঐ ব্যাক্তি সর্বাধিক নিকৃষ্ট ও অধিক ঘৃনিত সাব্যস্ত হবে,যার নাম রাজাধিরাজ ছিল।কারণ আল্লাহ তাআলা ব্যতিত কোনো বাদশাহ নেই। উপরোক্ত বিষয় থেকে বুঝা গেল কারো নাম রাজাধিরাজ রাখা যাবেনা।এবং এও বুঝা আল্লাহ তাআলাই একমাত্র রাজাধিরাজ।আশা করি আপনার প্রশ্নের উত্তর হাদিস থেকে পেয়েছেন। দুঃখিত এই কারণে যে আপনি কুরানের আলোকে শুনতে চেয়েছিলেন।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
21 অগাস্ট 2017 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন উজ্জল খাঁন (588 পয়েন্ট)
1 উত্তর
08 জুন 2015 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মো: ইলিয়াছ (829 পয়েন্ট)

312,744 টি প্রশ্ন

402,308 টি উত্তর

123,566 টি মন্তব্য

173,287 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...