বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
71 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (12 পয়েন্ট)
বিভাগ পূনঃনির্ধারিত করেছেন
কোরআন শরীফ ধরে মিথ্যা কথা বলেছে, এখন কি করনীয়?

2 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)

এখানে দুটি গোনাহ হয়েছে।এক. মিথ্যা কথা। দুই. কুরআন ধরে মিথ্যা বলা। সুতরাং এখন করণীয় হলো মহান আল্লাহর দরবারে কায়মনোবাক্যে ক্ষমা প্রার্থনা করা। মহান আল্লাহ তাআলা বলেন: আর যদি শয়তানের প্ররোচনা তোমাকে প্ররোচিত করে, তাহলে আল্লাহর শরণাপন্ন হও তিনিই শ্রবণকারী, মহাজ্ঞানী। [ সুরা আরাফ :২০০ ]

0 টি পছন্দ
করেছেন (8,184 পয়েন্ট)
মিথ্যা বলা এমনিতে-ই মহাপাপ। ইসলামী পরিভাষায় যাকে বলে কবীরা গুনাহ। সেই সাথে কুরআন ছুঁয়ে মিথ্যা বলা আরো জঘন্য অপরাধ।

আল্লাহ তাআলার নাম ব্যতীত অন্য কোনো জিনিসের কসম করা নাজায়েয। এমনকি কোরআন শরীফের কসম করাও জায়েজ নয়।

আপনি পাপের প্রায়শ্চিত্তের জন্য খাস দিলে আল্লাহর কাছে তওবা করুন। তওবা ইস্তিগফারের সর্বশ্রেষ্ঠ দোয়াঃ ইবনে উমার (রাঃ) বলেন, প্ৰভু! আমাকে ক্ষমা করো এবং আমার তওবা কবুল করো। নিশ্চয় তুমিই একমাত্র তওবা কবুলকারী, দয়াময়। (আবু দাউদ, তিরমিযী)

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
01 জুন "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

321,929 টি প্রশ্ন

412,271 টি উত্তর

127,655 টি মন্তব্য

177,406 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...