বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
450 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (20 পয়েন্ট)
করেছেন (2,031 পয়েন্ট)
গে সেক্স এটা ককোন ধরনের সেক্স আমার ধারনার বাইরে কেউ জানলে বলুন?
করেছেন (2,846 পয়েন্ট)
রুপো ইসলাম@ কোন পুরুষ যদি নারী ব্যতীত পুরুষের সাথেই মিলন করে তাহলে সেটা গে সেক্স বা সমকামিতা বলে । যেমনঃ পায়ূপথে । এটা মারাত্মক পাপ । লূত (আঃ) এর সময়ের লোকেরা এটা করার কারণে ধ্বংস হয়েছিল ।

5 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (3,789 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
তওবা করলে আল্লাহ তাআলা সব গুনাহই ক্ষমা করে দেন৷ আর তওবার শর্ত হলো, কৃতকর্মের জন্য লজ্জিত হওয়া, আগামীতে উক্ত গুনাহ না করার অঙ্গিকার করা, কৃত গুনাহের জন্য আল্লাহর নিকট ক্ষমা প্রার্থনা করা৷ (যদি বান্দার হক হয় তাহলে তার হক আদায় করা বা ক্ষমা নিয়ে নেয়া)৷

এ শর্তগুলোর উপস্থিতিতে তওবা করলে আল্লাহ তাআলা কৃত গুনাহকে পরিপূর্ণরূপে ক্ষমা করে দেন৷
+2 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
মহান আল্লাহ তাআলা পবিত্র কালামে পাকে ইরশাদ করেন, তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। - সূরা ঝুমার : ৫৩। আপনি খাঁটি দিলে তাওবা করলে অবশ্যয়ই আল্লাহ পাপ মোচন করবেনই। নিরাশ হবেন না। বরং ক্ষমার আশারেখে নেক আমলে মনোযোগী হন। আপনার প্রতি শুভ কামনা রইল।
0 টি পছন্দ
করেছেন (8,184 পয়েন্ট)
পাপে কাজে লিপ্ত হওয়ার জন্য অনুতপ্ত ও লজ্জিত হয়ে ঐ পাপ আগামীতে দ্বিতীয়বার না করার দৃঢ় সঙ্কল্প করে তওবা করলেই আল্লাহ আপনাকে অবশ্যই ক্ষমা করবেন।

আল্লাহ তাআলা বলেছেন, অর্থাৎ “তোমরা নিজেদের প্রতিপালকের নিকট পাপের জন্য ক্ষমা প্রার্থনা কর, অতঃপর তাঁর কাছে তওবা প্রত্যাবর্তন কর।” (সূরা হূদ আয়াতঃ ৩)
0 টি পছন্দ
করেছেন (448 পয়েন্ট)
শিরিকের গুনাহ বাদে আল্লাহ চাইলেই বান্দার যে কোন গুনাহ ক্ষমা করতে দিতে পারে। তবে আপনি আপনার গুনাহটি ক্ষমার জন্য আল্লাহ কাছে নামাজ পড়ে প্রার্থন করুন। এবং মনে মনে এই প্রতিজ্ঞা করুন যে, ভবিষ্যতে উপরোক্ত গুনাহের কাজ করবেন না।
0 টি পছন্দ
করেছেন (2,846 পয়েন্ট)
"নিশ্চয় আল্লাহ তাকে ক্ষমা করেন না, যে তাঁর সাথে কাউকে শরীক করে । এছাড়া যাকে ইচ্ছা ক্ষমা করেন....।" সূরাতুন নিসা-১১৬ । এছাড়াও একই সূরার ৪৮ নাম্বার আয়াতেও এই কথা আছে ।

যেহেতু আপনার পাপ টি শিরক নয়, তাই ক্ষমা অবশ্যই পেতে পারেন । এটা ক্ষমার অযোগ্য পাপ নয় । তবে কেঁদে আল্লাহর কাছে ক্ষমা চান । ২ রাকাত নফল সালাত আদায় করার পর কান্নাকাটি করুন । মন থেকে ক্ষমা চান । ভবিষ্যতে আর এই পাপ না করার প্রতিশ্রুতি দিন ।

ইনশাআল্লাহ ক্ষমা পাবেন ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

4 টি উত্তর
আমি জিনা করেছিলাম।আমি আল্লাহর কাছে মনে মনে অনুতপ্ত হয়েছি,ক্ষমা চেয়েছি কিন্তু নামাজ পরে তওবা করিনি।আমি তখন জানতাম না যে এরকম ব্যভিচার করলে পবিত্র কাউকে বিয়ে করা যায়না।আমি আমার স্বামীকে বিয়ের আগে জানিয়েছিলাম যে আমার আগে একজনের সাথে সম্পর্ক ছিল কিন্তু জিনার কথা লজ্জায় বলিনি।বিয়ের কিছুিদন পর সে সব জেনে যায়।এখন সে আমাকে খুব সন্দেহ করে।আমি জানি সেটা তার দোষ না।কিন্তু আমাদের সংসার প্রায় ভেঙ্গে যাওয়ার পথে।আমি ইস্তেগফারের নামাজ পরে আল্লাহর কাছে মাফ চেয়েছি।আমি আমার স্বামীকে অনেক ভালোবাসি।কিন্তু কিভাবে সব ঠিক হবে বুঝি না।আমার জন্য দোয়া করবেন যেন আল্লাহ আমাকে মাফ করেন।?
06 জানুয়ারি 2016 "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন সিমিন (11 পয়েন্ট)

321,927 টি প্রশ্ন

412,271 টি উত্তর

127,655 টি মন্তব্য

177,406 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...