বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
147 জন দেখেছেন
"স্বপ্নের ব্যাখ্যা" বিভাগে করেছেন (2,523 পয়েন্ট)
আমি আল্লাহভীরু মানুষ।কোনো কাজ করতে গেলেই মনে হয়,ভাল হলে কেউ আমাকে কাজটা করতে বলছে,খারাপ হলে না করছে।মনে হয় সবর্দা আল্লাহ রহমত দিচ্ছে।আল্লাহর কাছে দুইহাত তুলে যা চেয়িছি তাই পেয়েছি।যদিও এতটা ধার্মিক নই,বাট আল্লাহকে খুব ভালবাসি। একদিন ঘুমের মধ্যে দেখলাম,একজন বলছে,আপনি খুব বড় চাকরি পেয়েছেন,আমি বললাম,আজকেই চাকরিতে জয়েন করব।আরেকজন কেউ এসে বলল,আপনাকে আগে হজে যেতে হবে।স্বপ্ন শেষ।বয়স ১৭।নাবালেক নই।এর ব্যাখ্যা কি।,
করেছেন (2,523 পয়েন্ট)
প্রশ্নটাতো নাম লুকিয়ে করেছি!
করেছেন (4,008 পয়েন্ট)
শুধু আপনার সাথেই এরকম কেন হচ্ছে? অনেক প্রশ্নে নাম গোপন রাখেন, পরে দেখা যায়?

আর কারো এরকম হচ্ছে বলে তো মনে হয় না।
করেছেন (88 পয়েন্ট)
আমারও  এমন হচ্ছে প্রশ্ন লুকিয়ে করছি কিন্তু উত্তর আসার সাথে সাথেই তা দৃষ্যমান হয়ে যাচ্ছে।
করেছেন (2,523 পয়েন্ট)
@Sheik Lemon এবং @আজম http://www.bissoy.com/892244/ এটা পড়ুন।সবারই এটা হচ্ছে,বাট কেউ খেয়াল করছে না!
করেছেন (88 পয়েন্ট)
আগে যখন প্রশ্ন করেছি তখন নাম লুকিয়ে দিলে। অনুমোদন পাবার পরে আর নাম দেখাইনি। কিন্তু এখন প্রশ্ন করার সময় নাম লুকিয়ে দিলে অনুমোদন পাবার সাথে সাথেই নাম প্রদর্শিত হয়ে যাচ্ছে। কেউ যদি তার গোপন কোন ব্যাপারে প্রশ্ন করে থাকে তা অনুমোদন পেলে যদি দৃশ্যমান হয়ে যায় তাহলে গোপনের মাজেজা থাকলো কই। প্রশ্নকারী তো জানেনা কখন তার প্রশ্ন অনুমোদন পাবে। জানলে তখন তারাতারি এসে নাম লুকাও করতে পারতো। নাম লুকাও করে প্রশ্ন করছে, অনুমোদন পেয়ে নাম দৃশ্যমান হচ্ছে। আর সবাই দেখছে অমুকের অমুক সমস্যা হয়েছে। গোপন ব্যাপারটা যদি পরিবারের কারো চোখে বা বন্ধু বান্ধবের কারো চোখে পরে যায় তাহলে ব্যাপার টা কেমন দাড়ায়। প্রশাসনের কাছে অনুরোধ দ্রুত যেন এই সমস্যার সমাধান করা হয়।

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (7,343 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর

রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ স্বপ্ন তিন প্রকারঃ

(১) সত্য স্বপ্ন।

(২) বান্দার মনের চিন্ত-ভাবনা। যা চিন্তা করে তাই স্বপ্নে দেখে।
(৩) শাইতানের পক্ষ হতে ভীতি প্রদর্শনমূলক কিছু। আপনি হয়তো সত্য স্বপ্ন-ই দেখেছিলেন। যা ভাল কাজের ইঙ্গিত বহন করছে।

আবূ রাযীন আল-উকাইলী (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ মুমিনের স্বপ্ন নাবুওয়াতের চল্লিশ ভাগের একভাগ। স্বপ্নের ব্যাপারে যে পর্যন্ত আলোচনা করা না হয় সে পর্যন্ত এটা পাখির পায়ে ঝুলে থাকা জিনিসের মতো। আলোচনা করার সাথে সাথে তা যেন পা হতে পড়ে গেল।

বর্ণনাকারী বলেন, আমার মনে হয়, তিনি এ কথাটুকুও বলেছেনঃ আর স্বপ্ন দ্রষ্ঠা ব্যক্তি যেন জ্ঞানী ব্যক্তি অথবা পছন্দনীয় ব্যক্তি ব্যতীত অন্য কারো নিকট স্বপ্নের ব্যাপারে আলোচনা না করে। (সূনান আত তিরমিজী, হাদিস নম্বরঃ ২২৭৮)

তাইতো রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ জ্ঞানী ব্যক্তি অথবা শুভাকাংখী ব্যক্তি ব্যতীত আর কোন ব্যক্তির কাছে স্বপ্নের কথা প্রকাশ করবে না।
করেছেন (3,792 পয়েন্ট)
এটা মন্তব্য হিসেবে দিতে পারতেন।
করেছেন (7,343 পয়েন্ট)
এর চেয়ে ভাল সঠিক রেফারেন্স যুক্ত উত্তর আসলে আমারটা লুকিয়ে নিতে বাধ্য।
করেছেন (2,523 পয়েন্ট)
@sabirul Islam ভাইয়া,তারমানে এই সপ্নটা প্রকাশ করে আমি কি ভুল করেছি?
করেছেন (7,343 পয়েন্ট)
রাসুল (সাঃ) বলতে নিষেধ করেছেন।
+3 টি পছন্দ
করেছেন (4,777 পয়েন্ট)
আপনি সত্যই এ স্বপ্ন দেখে থাকলে এর ব্যাখ্যা হলো- আপনি আল্লাহ তাআলাকে ভালবাসেন তবে নিজের মতো করে। কিন্তু নিজের মতো করে আল্লাহ তাআলাকে ভালবাসলে হবে না। বরং তাকে তাঁর মতোন করেই ভালবাসতে হবে।” এজন্য আপনি চেষ্টা করুন। এবং এর জন্য কোনো পথ ও পন্থা অবলম্বনের ফিকির করুন। মহান আল্লাহ আপনার সহয় হোন। আমীন।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
3 টি উত্তর

304,547 টি প্রশ্ন

393,228 টি উত্তর

119,640 টি মন্তব্য

168,827 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...