বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
248 জন দেখেছেন
"পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে করেছেন (640 পয়েন্ট)
এই চিরকূট সহকারে বন্ধ করা হয়েছে : যথেষ্ট উত্তর ।

6 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (6,724 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর
হস্তমৈথুন করে বীর্যপাত ঘটালে গোসল না করা পর্যন্ত সেই শরীরে নামায আদায় করা যাবেনা।

আলী (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, বীর্যরস বের হলে ওযু করতে হবে এবং বীর্যপাত হলেই গোসল করতে হবে। (ইবনু মাজাহঃ ৫০৪)

বীর্যপাতের সাথেই গোসল ফরয হয়ে যায়। তখন গোসল করেই নামায আদায় করতে হবে। হাদিসে এসেছে পবিত্রতা ছাড়া নামায কবুল হয় না।

ইবনু উমর (রাঃ) হতে বর্ণিত, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ আল্লাহ পবিত্রতা ছাড়া নামায কবুল করেন না। (ইবনু মাজাহঃ ২৭২)
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,992 পয়েন্ট)
না, গোসল না করা পর্যন্ত আপনার নামায হবে না। কারন, এমতাবস্থায় আপনার উপর গোসল ফরয। 
0 টি পছন্দ
করেছেন (-2 পয়েন্ট)
জী না ! আদায় হবে না । ঐ অবস্থায় নামাজ, কোরআন তেলাওয়াত,মসজিদে প্রবেশ  ইত্যাদি করা যাবে না।

বীর্যপাত ঘটলে গোসল ফরজ হয়ে যায়। আর ফরজ গোসল সাথে সাথে করে নেওয়া উত্তম।
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,280 পয়েন্ট)
হস্তমৌথুন করা হারাম কবিরা গুনাহ। হস্তমৌথুন করার পর গোসল না করেও নামায পড়া যাবে, যদি পানি না পাওয়া যায়।তাছাড়া যদি পানি ব্যবহারের ফলে রোগ বৃদ্ধি কিংবা মৃত্যুর সম্ভবনা থাকে তাহলে আপনি গোসল না করে তায়াম্মুম করে নামায পড়তে পারবেন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (2,425 পয়েন্ট)
হস্তমৈথুন করার ফলে অপসারিত বীর্য হলো নাপাক জিনিস । এক্ষেত্রে আপনি নামাজ পড়ার জন্য গোসল করতে হবে । গোসল না করলে শরীর নাপাক থাকবে আর নামাজ আদায় করলে তা মাকরুহ হবে ।
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,779 পয়েন্ট)
উত্তেজিত অবস্থায় যদি বীর্য বের হয় তাহলে গোসল ফরয হয়ে যায়৷ চাই তা হস্তমৈথুন করে হোক আর অন্য কোন উপায়ে হোক গোসল করা ছাড়া নামায পড়া যাবে না৷
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
13 অগাস্ট 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
1 উত্তর
29 জুলাই 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অভিমানী সাইফ (0 পয়েন্ট)

299,310 টি প্রশ্ন

386,968 টি উত্তর

116,925 টি মন্তব্য

165,025 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...