বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
84 জন দেখেছেন
22 সেপ্টেম্বর 2018 "নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

আমার অতিরিক্ত ঘুম।

রাতে ১১ টার আগে

ঘুমাতে যায় ভোর উঠে

যদি ভাবি পড়তে বসবো

তো হচ্ছে না। উঠে ফ্রেস

হয় বিছানা গুছিয়ে ফেলি

ঠিক তার কিছু ক্ষণ পর

আবার ঘুমিয়ে যায়। যা

আমার জন্য অনেক ক্ষতির

কারণ হয়ে দাড়াচ্ছে বর্তমানে।

কিভাবে কি করলে

রাত ১১.৩০ পর্যন্ত

পড়তে পারবো।

আর ভোর বেলা ঘুম থেকে

উঠে ধর্মিও কাজ

শেষ করে পড়তে পারবো......!????


2 উত্তর

0 টি পছন্দ
22 সেপ্টেম্বর 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (3,201 পয়েন্ট)
সকাল : ফজরের নামাজ যদি মসজিদে গিয়ে পড়তে পারেন সবচেয়ে ভাল হয় । কেননা বাহিরের আবাহাওয়া শরীরকে ঘুমের রেশ দূর করে দেহকে সতেজ করে দিবে। নামাজ সেরে এক কাপ চা আর সাথে মুড়ি খাবেন দেখবেন ঘুম আপনার কাছ থেকে পালাবে নিশ্চিত ।  

সন্ধা : সন্ধার পর কোনভাবেই বিছানায় বসে অথবা হেলান দিয়ে পড়তে বসবেন না । শক্ত কাঠের চেয়ারে বসুন । তাতে যেমন শরীর ভাল থাকবে তেমনি ঘুমের অলসতা দুর হবে । এখন বেলা ছোট সন্ধা থেকে পড়ুন অনেক সময় পাবেন তাই রাত 11 টার মধ্যো পড়া এবং খাওয়ার কাজ শেরে বিছানায় শুতে যান । 
22 সেপ্টেম্বর 2018 মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (9,163 পয়েন্ট)
মেয়েদের ক্ষত্রে মসজিদে যেয়ে তো নামায পড়া সম্ভব নয়।

সে ক্ষেত্রে কী করবে
22 সেপ্টেম্বর 2018 মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন (3,201 পয়েন্ট)
আল্লাহর দুনিয়ায় সকালের সতেজ হাওয়া সবখানেই মিলে/পাওয়া যায় । মেয়েরা তাদের বাড়ীর উঠানে অথবা সামনের ছোট্ট রাস্তাটিতে কিছুক্ষন হাটাহাটি করলেই দেহ-মন ফুরফুরে হতেই হবে । আমি যখন ফজরে মসজিদে যাই  ব্যস্ততম রাস্তা থাকে প্রায় জনমানব শুন্য , বড় বড় দালান-কোটা থাকে নিরবিচ্ছিন্ন আর ঠান্ডা বাতাস দেহে এসে দোলা দেয় ! সত্যিই এঅনুভুতি আমার একার নয় , যারা যারা সকালে মসজিদে যায় তাদের সবার একই। কিন্তু আমাকে বাধ্য হয়ে এক ঘন্টা ঘুমাতে হয় । 
0 টি পছন্দ
23 সেপ্টেম্বর 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (2,451 পয়েন্ট)
আপনি যা কিছুই করেন না কেন পড়ায় যদি মনযোগ না থাকে তাহলে ঘুম ধরবেই । তাই পড়তে বসলে মাথা থেকে সবচিন্তা ঝেরে ফেলে পড়ায় মনযোগ দিন । আর পড়ার সময় ঘুম ধরলে চোখে মুখে পানি দিয়ে একটু হাটা-হাটি করবেন । ঘুম কেটেগেলে আবার পড়তে বসবেন । আর পড়ার মাঝে মাঝে এটকু করে পানি পান করবেন । তাহলে সহজেই ঘুম ধরবে না । আর খেয়াল রাখবেন পড়ার সময় যেন পর্যাপ্ত আলোর ব্যবস্থা থাকে ।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
24 ডিসেম্বর 2017 "বিনোদন ও মিডিয়া" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মাহাবুব চৌধুরী (88 পয়েন্ট)
1 উত্তর
26 অক্টোবর 2016 "নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন nusrat jahan bristy (35 পয়েন্ট)
1 উত্তর
1 উত্তর

305,494 টি প্রশ্ন

394,308 টি উত্তর

120,118 টি মন্তব্য

169,334 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...