বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
80 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

আসসালামু আলাইকুম।

আমি চেষ্টা করি ইসলামিক

নিয়ম অনুযায়ী চলতে কিন্ত। 

মাঝে মাঝে শয়তান এর ধোঁকা তে

পড়ে যায়।


  1. আমি এই পর্যন্ত আল্লাহতালারর কাছে যা চেয়েছি আলহামদুলিল্লাহ্ আল্লাহ্‌ আমাকে দিয়েছে।
  2. কিছু দিন আগে অনেক কষ্টের মধ্যে ছিলাম আলহামদুলিল্লাহ্ আল্লাহ্‌ সেখান থেকে আমাকে বার করে দিয়েছেন।
  3. আমার h.s.c তে পাশ করার কোন কথায় ছিল না কারণ আমার প্রিপারেশন এক দম ছিল না আমি পরীক্ষা দিয়েছি না পড়ে। আর আল্লাহতালারর উপর ভরসা করে পরীক্ষার হলে গেছিলাম আলহামদুলিল্লাহ্ পয়েন্ট খারাপ হলেও পাশ হয়ে গেছে।
  4. আমি যা চাইছি আল্লাহ্‌ একটু দেরি করে হলেও আমাকে দিয়েছেন।
  5. কিন্ত আমি আল্লাহ্‌ কে তাঁর প্রাপ্য ইবাদত দিতে পারছি না।  বার বার শয়তান এর ধোঁকার শিকার হয়ে যায়। আমি শয়তান এর ধোঁকা থেকে বেঁচে থাকতে চাই। শয়তান সব সময় আমাকেমাকে কুমন্ত্রণা দিতে থাকে আমার মন সব সময় অন্য দিকে ঘুরিয়ে রাখে। কি করে আমি সব সময় আল্লাহতালারর প্রতিমনোযগী হব......!????? আমি শুনেছিলাম যারা জান্নাতি হয় তারা পৃথিবী তে অনেক কষ্ট করেছেন। আল্লাহতালা তাদের চাওয়া পাওয়া গুলা পৃথিবীতে অপূর্ণ রেখে জান্নাত এর মাধ্যেমে তা দিয়ে দেন। আল্লাহ্‌ তো আমাকে প্রায় সব চাওয়া গুলা পূরণ করে দিয়েছেন। আমি তো জান্নাত চাই অন্য কিছু কিন্ত ভয় যে হচ্ছে। আল্লাহ্‌ পৃথিবী তে সব দিয়ে দিয়েছেন আমি জান্নত যেতে পারবো।

4 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (7,394 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
আপনিও জান্নাতে যেতে পারবেন এজন্য আপনাকে শয়তানের পদাঙ্ক ছেড়ে সরল সোজা পথে আসতে হবে।

আল্লাহ বলেন, হে মুমিনগণ! তোমরা পুর্ণাঙ্গভাবে ইসলামে প্রবেশ কর এবং শয়তানের পদাঙ্ক সমূহ অনুসরণ করো না। নিশ্চয়ই সে তোমাদের প্রকাশ্য শক্ৰ। (বাকারা-আয়াতঃ ২০৮)

সিরাতে মুস্তাকীম কি? সিরাত শব্দের অর্থঃ হচ্ছে, রাস্তা বা পথ। আর মুস্তাকীম হচ্ছে, সরল সোজা। একত্রে সিরাতে মুসতাকীম হচ্ছে, এমন পথ, যা একেবারে সোজা ও ঋজু, প্রশস্ত ও সুগম যা পথিককে নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌছিয়ে দেয়, যে পথ দিয়ে লক্ষ্যস্থল অতি নিকটবতী এবং মনযিলে মাকছুদে পৌঁছার জন্য যা একমাত্র পথ, যে পথ ছাড়া লক্ষ্যে পৌছার অন্য কোন পথই হতে পারে না।

আল্লাহ বলেন, হে নবী বলুনঃ নিশ্চয়ই আল্লাহ আমার রব ও তোমাদের রব, কাজেই তোমরা তাঁর ইবাদাত কর, এটাই সরল পথ। [সূরা মারইয়ামঃ ৩৬]

অর্থাৎ আল্লাহকে রব স্বীকার করে ও কেবল তাঁরই বান্দাহ হয়ে জীবন যাপন করলেই সিরাতে মুস্তাকীম অনুসরণ করা হবে। অন্যত্র ইসলামের জরুরী বিধি-বিধান বর্ণনা করার পর আল্লাহ তাআলা বলেন, আর এটাই আমার সঠিক দৃঢ় পথ, অতএব তোমরা এই পথ অনুসরণ করে চল। এছাড়া আরও যত পথ আছে, তাহার একটিতেও পা দিও না। কেননা তা করলে সে পথগুলো তোমাদেরকে আল্লাহর পথ হতে বিচ্ছিন্ন করে দিবে-ভিন্ন দিকে নিয়ে যাবে। আল্লাহ তোমাদেরকে উপদেশ দিচ্ছেন এ উদ্দেশ্যে, যেন তোমরা  ধ্বংসের পথ হতে আত্মরক্ষা করতে পার। [সূরা আল-আন আমঃ ১৫৩]
0 টি পছন্দ
করেছেন (3,418 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
ওয়া আলাইকুমুচ্ছালাম,ওয়া রহমাতুল্লাহ।শয়তান মানব জাতিকে ধোকায় ফেলবে।এতে কোনো সন্দেহ নেই।তবে আপনি অনিচ্ছাকৃত ভাবে শয়তানের ধোকায় পড়ে কোনো ভূল করলে মহান আল্লাহর কাছে ক্ষমা চেয়ে নিবেন।তাতে আল্লাহ তাআলা খুশি হয়ে আপনার পাপ কে মাফ করে দিবেন। মহান আল্লাহ বলেছেন, আল্লাহ তওবাকারী কে ভালোবাসেন। এবং তিনি আরো বলেছেন, যারা তওবা করে না তারা জালেম।এবং তিনি আরো বলেছেন,শয়তান তোমাদের প্রকাশ্য শত্রু। এখন আপনি যখন কোনো খারাপ কাজ করতে যাবেন বা ভালো কাজ থেকে দুরে থাকবেন তখন বুঝবেন আপনি শয়তানের ধোকায় পড়ছেন। তখন আপনি চিন্তা করবেন যে ,আপনার যদি কেউ প্রকাশ্য শত্রু হয়,তার পথ অনুসরন করলে বিপদের শামিল হতে হবে।সর্বদা একটি কথা খেয়াল করবেন,যে শয়তান আপনার প্রকাশ্য শত্রু।
0 টি পছন্দ
করেছেন (12,709 পয়েন্ট)
ভাই আল্লাহ চাইলে সবই করতে পারে ,আপনাকে সাহায্য বা বিপদ থেকে উদ্ধার করা, আপনাকে জান্নাত দেয়া, ,সবই  আল্লাহ্‌ ইচ্চা তবে আল্লাহকে খুশি করার জন্য আপনাকে ৫ ওয়াক্তি নামায আদায় করা উচিৎ। প্লিজ নামায আদায় করুন ।এতে সয়তানের হাত থেকে মুক্তি পাবেন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (21 পয়েন্ট)
আপনি দৈনিক ১০০বার ইস্তেগফার এবং ১০০বার "লা হাওলা ওয়ালা কুওয়াতা ইল্লা বিল্লাহ" পড়বেন;

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
28 ডিসেম্বর 2018 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মোঃলালু (74 পয়েন্ট)

307,020 টি প্রশ্ন

395,927 টি উত্তর

120,964 টি মন্তব্য

170,122 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...