89 জন দেখেছেন
"ফাতাওয়া-আরকানুল-ইসলাম" বিভাগে করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
সম্পাদিত
সব দাড়ি রেখে দেওয়ার নিয়ত আছে। কাটার কোনো চিন্তা নেই। তবে আমার ফ্রেন্ডরা বলে গালের উপরের দাড়িটা কেটে দিলেও প্রব্লেম হবে না। আর এতে নাকি খুব সুন্দর দেখাবে। এরকম কি করা যাবে....???

4 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (715 পয়েন্ট)
না ভাই।মুসলমানের দাড়ি কাটা তো দূরে থাক ব্লেড,কাচি,ক্ষুর লাগানোই নিষেধ।আর ঠোটের উপরের গোফঁ রাখা যাবে না।শুধু গোফঁ সেভ করা যাবে।তাছাড়া আপনি সুন্নতি বেশে দাড়ি রেখেছেন।এটা নবীর আদর্শ।কেন তাহলে দাড়ি কাটবেন।মাফ করবেন ভাই,এতকথা বললাম অথচ আমিই দাড়ি রাখি না।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (3,297 পয়েন্ট)
নবীজি সাঃগফ ছাড়া মুখের অন্য কোনো কিছু কাটতেন না।আর তাই আপনার কাটা সঠিক কাজ হবেনা।কেনোনা একজন মুসলমানের কাছে তার বন্ধু বান্ধব,মা বাবা,সন্তান এবং নিজের জীবনের চেয়ে রসুল কে ভালোবাসা ঈমানের দাবি।তাই আপনি আপনার বন্ধুদের কথামত, দাড়ি কাটবেন না।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,815 পয়েন্ট)
গালের উপর যে লোম গজায় তা মূলত দাড়ির অংশ নয়। তাই সে লোম কাটা যেতে পারে। তবে উত্তম হলো না কেটে স্বাভাবিক অবস্থায় রেখে দেয়া।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (5,711 পয়েন্ট)

উমার (রাঃ) হতে বর্ণিত। তিনি বলেন, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেনঃ তোমরা গোঁফ অধিক ছোট করবে এবং দাড়ি ছেড়ে দিবে বড় রাখবে।


উমার সূত্রে রাসুল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হতে বর্ণিত। তিনি বলেছেন, তোমরা মুশরিকদের উল্টো করবেঃ দাড়ি লম্বা রাখবে, গোঁফ ছোট করবে। উমার (রাঃ) যখন হাজ্জ বা উমরাহ করতেন, তখন তিনি তাঁর দাড়ি মুষ্টি করে ধরতেন এবং মুষ্টির বাইরে যতটুকু বেশি থাকত, তা কেটে ফেলতেন। [সহীহ বুখারী, হাদিস নম্বরঃ ৫৮৯২]
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
28 জানুয়ারি 2016 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন বন্ধন (-33 পয়েন্ট)
1 উত্তর
09 এপ্রিল 2014 "বাংলা সাহিত্য ও সংস্কৃতি" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আমি শামিম (949 পয়েন্ট)
1 উত্তর

283,844 টি প্রশ্ন

368,428 টি উত্তর

111,107 টি মন্তব্য

153,244 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...