বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
428 জন দেখেছেন
"বিজ্ঞান ও প্রকৌশল" বিভাগে করেছেন (10,662 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (10,662 পয়েন্ট)
মানুষের মত আরো দুই প্রকার সৃষ্টি আছে যাদের ভালমন্দ বিচার করার জ্ঞান আছে। তারা হলঃ ১. ফিরিস্তা , ও ২. জ্বীন। এ বাদে আর কোথাও বা অন্য কোন গ্রহে মানুষ ও জ্বীনের মত প্রানী বা সৃষ্টির অস্তিত্ব অসম্ভব।

ফিরিস্তাগণ নূরের দ্বারা সৃষ্ট। 'নূর' কী- তা উপলব্ধির বিষয়, একে ভাষায় সংজ্ঞায়িত করা যায় নি। জ্বীন আগুনের শিখা থেকে তৈরী। পৃথিবীতে বা এর নিকটবর্তী সৌরমণ্ডলে ফিরিস্তাগণ আল্লাহর আদেশে বিভিন্ন কাজের জন্য বিচরণ করেছেন এবং করে থকেন। এমনকি এরকম ঘটনাও আছে যে ফিরিস্তাগণ পৃথিবীর নিকটতম আসমানে (আসমানের সঠিক অর্থ আমার জানা নেই) আল্লাহর বিভিন্ন আদেশ নিয়ে আলোচনা করলে জ্বীনরা সেই কথাবার্তা চুরি করে শুনত এবং তাদের তাড়ানোর জন্য ফিরিস্তাগণ আগুন নিক্ষিপ্ত করতেন যাকে বিজ্ঞানীরা উল্কা বলেন।

এগুলো ইসলাম থেকে জানা যায়। বিজ্ঞান এসব স্বীকার করে না। তবে বিজ্ঞান সবকিছুর চূড়ান্ত সমাধান দেয়ার বা ব্যাখ্যা করার মত পর্যায়ে এখনো পৌঁছায় নি। স্বপ্নের ব্যাখ্যার বিষয়েই বিজ্ঞান পরিস্কার ও যথার্থ কোন উত্তর দিতে পারে নি। হয়তো একসময় পারতেও পারে। হয়তো পৃথিবী সেসময় শেষ পর্যায়ে পৌঁছাবে। যেসব বিজ্ঞনী এখনো পরিস্কারভাবে স্বীকার করতে নারাজ যে আল্লাহ-ই সবকিছুর সৃষ্টিকর্তা সেসব বিজ্ঞানী দেখা গেল একদিন সব প্রমাণ পেয়ে গেলেন কিন্তু তখন বিচারদিন (Judgement Day) উপস্থিত হয়ে গেল।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
27 মার্চ 2013 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আরিফুল (6,230 পয়েন্ট)

294,101 টি প্রশ্ন

380,720 টি উত্তর

115,103 টি মন্তব্য

161,517 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...