194 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (1,048 পয়েন্ট)
যদি তাই হয় তবে তো জামাতে নামাজ পরতে শুধু ইমাম এর নামাজ শুদ্ধ হয়।কারণ ইমাম ওঠার পর এটা বলে এবং সেই শব্দ শুনে মুক্তাদিরা রুকু থেকে মাথা উঠায়।অর্থ্যাৎ মুক্তাদিরা রুকু থেকে মাথা তুলতে তুলতে ইমামের এটা বলা শেষ হয়ে যায়।
করেছেন (3,028 পয়েন্ট)
আমি কোথাও কোথাও পেয়েছি যে, জামাতের সময় মুক্তাদিরা এটা বলবেনা। শুধু ইমামই বলবে।

জানি না কতটুকু সত্যি.....!
করেছেন (5,993 পয়েন্ট)
সত্য প্রমানের জন্য সূনান নাসাঈ, হাদিস নম্বরঃ ৭৯৪ দেখতে পারেন।
করেছেন (1,048 পয়েন্ট)
আশানুরূপ উত্তর পাচ্ছি না।

2 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (4,815 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
ইমাম এবং একাকী নামাজ আদায়কারীর জন্য রুকু থেকে দাঁড়িয়ে সামিআল্লাহু লিমান হামিদাহ বলা সুন্নাত। ফরজ ওয়াজিব নয়। আর মুক্তাদীদের জন্য এটা বলা সুন্নাতও নয়। বরং তাদের জন্য এক্ষেত্রে রাব্বানা ওয়ালাকাল হামদ বলা সুন্নাত। সুতরাং সামিআল্লাহ না  বললেও নামাজ আদায় হয়ে যাবে। তবে সুন্নাপরিপন্থী হবে। আর মুক্তাদীদের জন্য এটা বললে বরং সুন্নাহ পরিপন্থী হবে। সারকথা এটা না বললে মুক্তাদীর নামাজে কোনো রকম সমস্যা হবে না।
+3 টি পছন্দ
করেছেন (5,993 পয়েন্ট)
আবু হুরাইরা (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেনঃ ইমাম যখন সামিআল্লাহু লিমান হামিদাহ বলে, তোমরা তখন রাব্বানা ওয়া লাকাল হামদ বল । কেননা যার কথা ফিরিশতাদের কথার সাথে মিলে যাবে তার অতীতের গুনাহ মাফ করে দেওয়া হবে। সূনান আত তিরমিজী হাদিস নম্বরঃ ২৬৭
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

288,959 টি প্রশ্ন

374,447 টি উত্তর

113,287 টি মন্তব্য

157,523 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...