323 জন দেখেছেন
"সাধারণ" বিভাগে করেছেন (4,717 পয়েন্ট)
বন্ধ করেছেন
কর্ম ও জীবনমুখী শিক্ষা ক্লাসের থিসিস বলতে পারেন। সবাই সাহায্য করুন।
এই চিরকূট সহকারে বন্ধ করা হয়েছে : Enough

9 উত্তর

2 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (30 পয়েন্ট)
আমার কাছে মা এবং বাবা উভায়
2 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (18 পয়েন্ট)
উত্তর:মা

আমার জন্মের  আগে কেদেছিল সে।আর জন্মের পর কেদেছি আমি আর হেসেছিল সে।আর এখনো আমার সব কষ্টে যে কষ্ট পায়।আমার কোন বিপদ হলে।পৃথিবীর সবার আগে যে জেনে যায়।সে ছাড়া শ্রেষ্ঠ মানুষ আর কেউ হতে পারেনা
1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (5,663 পয়েন্ট)
তিনি আমার আপনার যনম দুঃখী মা।
করেছেন (4,717 পয়েন্ট)
জনম দুঃখী কেন? কোনো মা ই দুঃখী নন। সবার তো একটা রত্ন আছেই তাই না!
করেছেন (5,663 পয়েন্ট)
একজন মা কত দুঃখ কষ্টে তার সন্তানকে লালন পালন করেন তা মা-ই ভাল যানেন। আমরা শুধু অনুভব করি। সেই কষ্টের মুল্য কি এখন দিতে জানি।
1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,468 পয়েন্ট)
আমার দেখা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানুষ তিনি যার অতল স্নেহ, মমতা আর ভালবাসায় আজ বড় হয়েছি। যিনি আমাকে লালন পালন করেছেন। পৃথিবীতে তার সাথে অন্য কোনো ব্যাক্তির তুলনা হয় না। আর সেই শ্রেষ্ঠ মানুষটি হচ্ছে আমার মমতাময়ী মা। তিনি কোনো মহামানব বা কোনো মনীষী নন। কিন্তু তিনি আমার কাছে এই পৃথিবীর মধ্যে একজন শ্রেষ্ঠ মাহামানব। যার জন্য আজ এই পৃথিবীতে আসা, যার জন্য এত বড় হওয়া। যিনি তার নরম কোমল কোলে ঘুম পড়িয়ে কত আদর স্নেহে আমাকে বড় করেছেন। হাজারো কষ্টের মাঝেও আমাকে কত আদর যত্নে লালন পালন করেছেন। তার নরম কোমল হাতের স্পর্শে আজ আমি বড় হয়েছি। তাকে আমি এই পৃথিবীর মধ্যে আমার দেখা একজন শ্রেষ্ঠ মহামানব ছাড়া আর কি বলবো? তিনি আমার কাছে শুধু একজন মহামানব নয়, তিনি আমার মণের রাজ্যে এই পৃথিবীর মাঝে একজন শ্রেষ্ঠ স্নেহময়ী, মমতাময়ী মা। তার সাথে আমি অন্য কোনো ব্যাক্তির তুলনা করতে পারিনা। তিনি অতুলনীয়।
1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (156 পয়েন্ট)
ইনি হলেন মা.... কিছুই বুঝেনা, ব্যক্ত করতে পারেনা, কোনো শক্তি নেই কিছু বলার ও বুঝার, ক্ষুধা পেলে শুধু কান্নাই যার ভাষা, এমন একটি শিশুকে হাজারো বাঁধা বিপত্তির পর্বতমালা পেরিয়ে, বহু ত্যাগ তিতিক্ষার সাগর পাড়ি দিয়ে আঁচলে বাঁধা সুখের পরশে স্বযত্নে লালন-পালন করে মানুষ হিসেবে গড়ে তুলা সেই মমতাময়ী নারীই হলেন মা। মা অতি ছোট্ট একটি শব্দ হলেও এর ভালবাসার বিশালতা সীমাহীন। পৃথিবীতে সবচেয়ে মধুর শব্দটি হচ্ছে মা। জগৎ সংসারের শত দুঃখ-কষ্টের মাঝে যে মানুষটির একটু সান্ত্বনা আর স্নেহ- ভালোবাসা আমাদের সমস্ত বেদনা দূর করে দেয় তিনিই হলেন মা। মায়ের চেয়ে আপনজন পৃথিবীতে আর কেউ নেই। দুঃখে-কষ্টে, সংকটে-উত্থানে যে মানুষটি স্নেহের পরশ বিছিয়ে দেয় তিনি হচ্ছেন আমাদের সবচেয়ে আপনজন মা। প্রত্যেকটি মানুষ পৃথিবীতে আসা এবং বেড়ে ওঠার প্রধান ভূমিকা মায়ের। মায়ের তুলনা অন্যকারো সঙ্গে চলে না। মা হচ্ছেন জগতের শ্রেষ্ঠ সম্পদ। মা মানে একরাশ অন্ধকারে এক বুক ভালবাসা, মা মানে সুন্দর জীবন, মা মানে সুন্দর জাতির উপহার। মা এমনই এক মমতাময়ী, চিরসুন্দর, চির শাশ্বত, যার নেই কোন সংজ্ঞা। মধু মিশ্রিত এক মহৌষধের নাম মা। ছোট্ট শিশুর প্রথম ভালবাসা, নিরাপত্তা আর মমতায় গড়া মায়ের কোল, সেই উষ্ণতার পরশে সারাটা জীবন কাটিয়ে দিতে চায় মন। বড় হয়ে ওঠার সাথে সাথে মা’কে ঘিরে জমা হয় ভালবাসা, অভিমান আর দুষ্টুমির শত শত গল্প। সঙ্কটকালে কেবলই মনে হয় যদি সব কিছু ছেড়ে মায়ের স্নেহমাখা কোলে মুখ লুকাতে পারতাম, তবে পৃথিবীর কোন কষ্টই আমাকে স্পর্শ করতে পারতোনা। পৃৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ নিয়ামত মা। মায়ের পায়ের নিচে জান্নাত। মায়ের সেবা শুশ্রুষার দ্বারা জান্নাতের হকদার হওয়া যায়। বাবার তুলনায় ইসলাম মায়ের অধিকার অধিক ঘোষণা করেছে। প্রিয় নবী (সা.) পরিণত বয়সে মায়ের সান্নিধ্য পাননি। এ জন্য তিনি আফসোস করতেন। মায়ের সেবা করতে না পারার কষ্ট তার অন্তরে সর্বদা উপলব্দি করতেন। এ জন্য তিনি দুধমাতা হালিমা সাদিয়াকে (রা.) নিজের গায়ের চাদর বিছিয়ে দিয়ে সম্মান প্রদর্শন করেছেন। সন্তানের জন্য মায়ের এক রাতের কষ্টের বিনিময় আদায় করা যাবে না কোনোভাবেই। মায়ের সঙ্গে নম্র আচরণ, যথাসাধ্য সেবা শুশ্রুষা এবং কায়মনোবাক্যে তার প্রতিদানের জন্য প্রভুর দরবারে দোয়া করলে মায়ের হক যৎকিঞ্চিত আদায় হতে পারে। মা সন্তানের জন্য জান্নাতের পথ করে দেন। যে সন্তান মায়ের সান্নিধ্য গ্রহণ করার পাশাপাশি মাকে সন্তুষ্ট করতে পেরেছে তারাই সাফল্যের সন্ধান পেয়েছে। আল্লাহ তায়ালা ইরশাদ করেছেন, ‘আর তোমার পালনকর্তা সিদ্ধান্ত দিয়েছেন যে, তোমরা কেবলমাত্র তাঁরই ইবাদত করবে এবং পিতা- মাতার সঙ্গে সুব্যবহার করবে। যদি তাদের মধ্যে একজন কিংবা দু’জনই তোমার কাছে বৃদ্ধ বয়সে অবশ্যই পৌঁছে যায়, তাহলে (তাদের খিটখিটে ব্যবহারে বিরক্ত হয়ে) তাদের তুমি উহ্ শব্দও বলবে না এবং তাদের ধমকও দেবে না। আর তাদের সঙ্গে তুমি সম্মানজনক কথা বলবে এবং তাদের জন্য দোয়ার মধ্য থেকে নম্রতার বাহু ঝুঁকিয়ে দাও। সাহাবি আবু উমামাহ (রা.) বলেন, একজন লোক বলল, হে আল্লাহর রাসুল (সা.) সন্তানের ওপর পিতা-মাতার অধিকার কী? তিনি (সা.) বললেন, তারা দু’জন তোমার জান্নাত ও জাহান্নাম। আল্লাহ আমাদের সবাইকে ইসলামের আদর্শ মোতাবেক মায়ের মর্যাদা প্রদান করে জান্নাত অর্জনের তাওফিক দান করুন। আমিন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2,304 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
বোন, আপনার প্রশ্ন অনুযায়ী উত্তর হলো কি না বলবেন।

আমার দেখা শ্রেষ্ঠ মানুষ হলো: আমার মা।

যিনি কোন মহামানব নন এবং মনীষী নন।

বি.দ্রঃ উত্তর টা ডুপ্লিকেট হলেও কেউ লুকাবেন না ।

কারণ, আমার কাছে শ্রেষ্ট আমার মা
করেছেন (30 পয়েন্ট)
কথাটা শুনে খুব ভালো লাগল
করেছেন (4,717 পয়েন্ট)
এই প্রশ্নের কোনো ডুপ্লিকেট উত্তর হবে না ভাইয়া। আপনার উত্তরটা ভালো লাগল
করেছেন (2,304 পয়েন্ট)
আমি যখন উত্তর দিতে চাইলাম, তখন দেখি কেউ উত্তর দেই নাই। তার পর উত্তর লিখতে এবং উত্তর টি সংরক্ষণ করতে দেখি সাবিরুল ইসলাম উত্তর দিয়ে ফেলেছে। তাই ঐ কথা লিখতে বাধ্য।

আপনাকে ধন্যবাদ......
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (810 পয়েন্ট)
আমার দেখা পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ মানুষ আমার বাবা ❤। তিনি কোনো মহামানব  বা মহা কোনো মনীষী না, সাধারন 10 জনার মতো তিনিও সাধারন একজন।
করেছেন (4,717 পয়েন্ট)
বাবাকে মহান লাগে এরকম মানুষের সংখ্যা অনেক কম। ব্যক্তিগত ভাবে না নিলে কারণটা বলবেন?
করেছেন (810 পয়েন্ট)
এতো দুর আসা একমাত্র বাবার জন্য।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2,900 পয়েন্ট)
I love my mother. I love my mother. এই পৃথীবিতে আমার দেখা প্রিয় মানুষটি হলো "মা"। যিনি আমার পাশে থেকে সবসময় সার্পোট দিয়েছেন। জীবনের সুখ-দুঃখের সবসময়ই দিনে থেকেছেন আমার পাশে। "হে আল্লাহ তুমি এই মা জাতির উপর রহমত বর্ষন করো" আমিন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,865 পয়েন্ট)

আমার দেখা পৃথিবীর 

শ্রেষ্ঠ মানুষ হলো আমার মা

যিনি কোন মনীষী নন

সাধারন একজন মানুষ যে আমি কস্ট পেলে সে ও কস্ট পায়

আমি না খেলে সে না খেয়ে থাকে 

তাই আমার দেখা পৃথিবীর  শ্রেষ্ঠ মানুষ হলো আমার ❤❤মা❤❤



টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

282,826 টি প্রশ্ন

367,103 টি উত্তর

110,524 টি মন্তব্য

152,512 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...