বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
153 জন দেখেছেন
08 এপ্রিল 2018 "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (25 পয়েন্ট)
হিটলারের রাগ কেন ইহুদের উপরে ছিল?কেন এত ইহুদি হত্যা করল?

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
10 অগাস্ট 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (805 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর

২০০৯ সালে জামার্নিতে প্রকাশিত জার্মান ইতিহাসবিদ ও প্রবীন সাংবাদিক ড: জে. রিকার-এর লেখা বই “নভেম্বর নাইন: হাউ ওয়ার্ল্ড ওয়ার ওয়ান লেড টু দ্য হলোকাস্ট” থেকে জানা যায় হিটলার প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানদের পরাজিত হওয়ার কারণ হিসেবে একমাত্র ইহুদিদের দায়ী করতো। ইহুদিরাই জার্মানদের বিজয় ছিনিয়ে নিয়েছে এই বিশ্বাস ছিল হিটলারের। এবং তার আরো দৃঢ় বিশ্বাস ছিল, নভেম্বর ৯, ১৯১৮ সালে জামার্নির রাজতন্ত্রের বিলোপ ইহুদিদের দ্বারা সংগঠিত হয়েছিল। তখন হিটলার বসবাস করতো মিউনিখে এবং সেখান থেকেই ইহুদিরা বিপ্লব করে রাজতন্ত্র ধ্বংস করেছিল। হিটলার সবসময় মনে করতো দেশ ইহুদিদের দ্বারা বিষাক্ত হয়ে উঠেছে এবং দেশের অভ্যন্তরে তারা ষড়যন্ত্রে লিপ্ত। তবে ড: রিকার দ্বিমত পোষণ করেন হিটলারের এন্টিসেমিটিজম বা ইহুদি-বিদ্বেষের পূর্ববর্তী ধারণার সাথে যাতে বলা হয়েছে হিটলারের মনে ইহুদিদের বিরুদ্ধে ঘৃণার বীজ বপন হয়েছিল যখন ১৯০৭ সালে হিটলারের মা ক্লারা মারা যান একজন ইহুদি ডাক্তার এডওয়ার্ড ব্লোচ-এর অধীনে চিকিৎসারত অবস্থায়। তিনি লিখেছেন, হিটলার একমাত্র ভালোবাসতো তার মা ও জার্মান জনগণকে। তার মনের মধ্যে বিভ্রম সৃষ্টি হয়েছিল যে ইহুদিদের নির্মূল করতে পারলেই বিশ্ব জয় করতে পারবে। 

তাই তিনি এতো ইহুদি হত্যা করেছিলেন । 

0 টি পছন্দ
21 মে 2018 উত্তর প্রদান করেছেন (3,476 পয়েন্ট)
প্রথম বিশ্বযুদ্ধে জার্মানীর হারার কারণ হিসেবে তিনি ইহুদিদের চিহ্নিত করেন।এবং তিনি মনে করেন জার্মানীদের রক্ত পবিত্র।ইহুদীদের সাথে মিশে তা অপবিত্র হচ্ছে।তাই তিনি ইহুদি নিধনযোগ্য চালান।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

3 টি উত্তর
02 অক্টোবর 2016 "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ইমতিযাজ আহমেদ (293 পয়েন্ট)
0 টি উত্তর
21 মার্চ "আইন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন বিশ্বের (20 পয়েন্ট)

305,290 টি প্রশ্ন

394,059 টি উত্তর

120,027 টি মন্তব্য

169,227 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...