147 জন দেখেছেন
"শিক্ষা+শিক্ষা প্রতিষ্ঠান" বিভাগে করেছেন (7,746 পয়েন্ট)

আমি h.s.c পরিক্ষার্থী আগামী এপ্রিল এর ১ তারিখ থেকে

আমার পরিক্ষা শুরু।

কিন্ত লেখা পড়াই কোন প্রকার মনোযোগ নাই আমার।

কী করবো কিছু বুঝতে পারছি না।

এক বার মনে হচ্ছে আমার দ্বারা হবে না লেখা

পড়া খামোখা মা বাবার টাকা পয়সা নষ্ট না করে নিজের জীবন

পরিত্যাগ কর।

কিন্ত আমি সেটা করতে চাই না।

কেউ কী বলতে পারবেন এই ১ মাস

রাত দিনে মিলে কত ঘন্টা পড়লে আমি

পরিক্ষাতে পাশ+রেজাল্ট করতে পারবো!???? 

5 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,089 পয়েন্ট)

আপনি বিস্ময় অ‍্যানসারের একজন নিয়মিত সদস্য আপনি মানুষের সমস্যার সমাধান দেন। আপনার কাছে এটার উত্তর অবশ্যই আছে। আসলে আমরা অনেক সময় কিছু কিছু বিষয়ের উত্তর জানি তবুও আমরা যেন তার উত্তর জানি না। আসলে এটি হয়ে থাকে আমাদের আলসেমির জন্য। আমরা অভ‍্যাসের দাস আমরা যে কোন জিনিস যত দূরে সরিয়ে দিব সেই জিনিস তত দূরে সরে যাবে।  আপনি অন্য বিষয়ে সময় কম দিয়ে পড়াশোনায় বেশি মনোযোগ দিন আশাকরি কয়েক দিন পর পড়াশোনা ভালো লাগবে। আমরা দোয়া করি আপনি ভালো পরীক্ষা দিন।

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2,790 পয়েন্ট)
"প্রতিদিনের পড়া , প্রতিদিন পড়লে। পরিক্ষার আগে রাত জেগে পড়তে হয় না।" আপনার এখন প্রতিদিন সর্বনিম্ন ৮ থেকে ১০ ঘন্টা লেখা পড়া উচিৎ। জানা জিনিস গুলোই ভালো করে পড়ুন। বেশী বেশী করে বই পড়ুন। আজে বাজে চিন্তা করবেন না। আর নিজের উপর থেকে আত্মবিশ্বাস হারাবেন। আত্মবিশ্বাস মানুষকে সাফল্য এনে না দিলেও, লড়াই করার মতো শক্তি জোগায়। ভালো করে লেখা পড়া করুন। আশা করি ভালো রেজাল্ট করবেন।
করেছেন (31 পয়েন্ট)
আপনার উত্তরটি ভালভাবে খেয়াল করুন।

আর নিজের উপর থেকে আত্মবিশ্বাস হারাবেন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2,897 পয়েন্ট)
আপনি সন্ধ্যায় পড়তে বসবেন আর রাতি যতটুকু জেগে থাকতে পারেন ততটুকু ই পড়ার চেষ্টা করুন।যখন ই ঘুম আসবে ঠিক তখন ই ঘুমাতে যাবেন।তাই বলে ১ঘণ্টার মত পড়ে আবার ঘুমাতে যাবেন না।কম পক্ষে ছয় বা সাত ঘণ্টার মত পড়ে তারপর ঘুমাতে যাবেন।ঘুমানোর সময় ঠিক পাচ বা ছয় ঘণ্টা ঘুমাবেন।সময়মত জাগতে না পারলে এলার্ম ঠিক করে রাখতে পারেন।জেগে ঊঠে তখন আবার পড়া শুরু করতে হবে।আপনার উচিত হবে কোনো ভাবেই পড়ালেখায় ফাকি না দেওয়া।অনেক সময় আছে বলে পড়া ফেলে রাখবেন না।আরেকটা কথা সময়ের কাজ সময়েই করার চেষ্টা করবেন।আশা করি আপনি ভাল রেজাল্ট করতে পারি সেই সাথে আমার দোয়া রইল আপনার জন্য।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (559 পয়েন্ট)
মনযোগ দিয়ে বুঝে বুঝে সব পড়তে হবে রুটিন তৈরি করে পড়তে হবে আপনার যত ঘন্টা পড়লে মনে থাকে আপনি তত ঘন্টাই পড়ুন মনে আত্মবিশ্বাস বজায় রেখে পরিশ্রম করুন সব বিষয়ে প্রস্তুতি থাকলে আপনি ভালো ফলাফল করতে পারবেন ৷
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,736 পয়েন্ট)

আপনার সমস্যা হচ্ছে আত্মবিশ্বাসের কমতি। কোনো কারণে আপনার আত্মবিশ্বাস চলে গিয়েছে।

তাই এখন আপনার করণীয় হলো আত্মবিশ্বাস ফিরিয়ে আনা। যদি আপনি মনেই করে নিলেন যে আপনাকে দিয়ে কিছু হবে না তাহলে আর কি বলার।

পড়ালেখায় মনোযোগ আনতে অন্য টুকিটাকি বিষয়ে ভাবা বন্ধ করুন। পারলে আপনার মোবাইলটিকে আপাতত আলমারিতে বন্ধ করে চাবি মায়ের কাছে দিয়ে দিন। আর ফোনে কথা বলার জন্য বাটন ফোন নিয়ে নিন।

আর এই এক মাস আপনাকে প্রচুর পড়াশুনা করতে হবে। রাতে পারলে ৪-৬ ঘণ্টার বেশি ঘুমাবেন না। দিনে খাওয়া, গোসলের জন্য ৩ ঘণ্টা রাখুন। বিকালে আধা ঘণ্টা খোলা বাতাসে হেঁটে আসবেন। বাকি সময়টা পড়াশুনা করে কাটান। যে বিষয়গুলো সমস্যা কম, অর্থাৎ আপনার পড়া আগে ভাল হয়েছে সেগুলো প্রথম পাঁচদিনে বা সাত দিনে রিভিশন দিয়ে ফেলুন। এরপর মার্চের বিশ তারিখের মধ্যে সমস্যা আছে যেসব বিষয়ে তার সমস্যা দূর করে ফেলুন। এরপর বাকি দশদিনে সব বিষয়গুলো রিভিশন দিন।

আশা করা যায় আপনার ফলাফল ভালো হবে।

টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
03 ডিসেম্বর 2018 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sukdev m (9 পয়েন্ট)

283,269 টি প্রশ্ন

367,719 টি উত্তর

110,791 টি মন্তব্য

152,832 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...