বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
152 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (7,706 পয়েন্ট)

1 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (7,706 পয়েন্ট)
 
সর্বোত্তম উত্তর
উল্লেখিত স্পর্শকাতর আয়াতটির অর্থ বা ব্যাখ্যার ব্যাপারে উলামায়ে কিরাম থেকে বিভিন্ন ধরনের মতামত রয়েছে । তবে অধিকাংশ মতই কোরআন ও হাদিসের কাঠগড়ায় ভ্রান্ত ও পরিত্যাজ্য ।
সত্য অন্বেষনকারী আহলে সুন্নত ওয়াল জামাত থেকে এক্ষেত্রে দুটি মত প্রসিদ্ধ :

১। আল্লাহ তায়ালা আরশের উপর ইসতাওয়া হলেন , এর অর্থ হচ্ছে স্বীয় শান অনুসারে আল্লাহ তায়ালা আরশের উপর অধিষ্ঠিত হয়েছেন ।
কথাটির উপর বিশ্বাস রাখা ঈমানী কর্তব্য , সালফে সালেহীনগন বিষয়টিকে কোনো ব্যাখ্যা বিশ্লেষন ব্যতীতই মেনে নিতেন , এবং কিভাবে অধিষ্ঠিত হয়েছেন সে পদ্ধতি নিয়ে অনুসন্ধানকে অবৈধ মনে করতেন ।
এ ব্যাপারে জাফর ইবনে আব্দুল্লাহ থেকে বর্নিত আছে যে , এক ব্যক্তি ইমাম মালেক (রহ:) কে জিজ্ঞেস করেছিলেন - "আল্লাহপাক আরশের উপর অধিষ্ঠিত হয়েছেন" এ কথাটির স্বরূপ বা তাৎপর্য কি ? ঐ ব্যক্তির এই প্রশ্ন শ্রবন মাত্র ইমাম মালেক (রহ:) ঘর্মাক্ত হলেন , ভীত সন্ত্রস্হ হলেন , এবং প্রায় সংজ্ঞাহারা হওয়ার অবস্হা হোলো , যখন হুশ ফিরে আসলো তখন তিনি বললেন "আল্লাহপাকের আরশের উপর অধিষ্ঠিত হওয়ার স্বরূপ মানুষের বোধ শক্তির উর্ধে । আরশের উপর অধিষ্ঠিত হওয়ার তাৎপর্য মানুষের অজানা , তবে তার উপর ঈমান আনা ওয়াজিব । আর এ সম্পর্কে প্রশ্ন করা বেদআত । "

২। পরবর্তীতে অনেক উলামায়ে কিরাম সাধারন মানুষকে বুঝানোর জন্য আল্লাহপাকের এসব গুনাবলীর বিভিন্ন ব্যাখ্যা পেশ করেছেন । যথা : আরশের উপর ইসতাওয়া হওয়ার অর্থ হচ্ছে (রূপক অর্থে ) আল্লাহ তায়ালা সাত তবক আসমান জমীনের কর্তৃত্ব হাতে নিলেন ( আল্লাহ পাকের হাত বলতে শক্তি ইত্যাদি উদ্দেশ্য )
এমতটি অনেক আহলে হক উলামায়ে কিরামের , তবে প্রথম মতটিই অধিক গ্রহনযোগ্য এবং জমহুর উলামায়ে কিরামের মত ।

মুলত বিষয়টি অনেক ব্যাখ্যা সাপেক্ষ , তাই এ বিষয়ে বই পুস্তকের স্নরনাপন্ন হওয়ার প্রয়োজন ।

তথ্যসূত্র :

১। তফসীরে রুহুল মাআনী - খন্ড ৫ , পৃষ্ঠা : ৬২
২। তফসীরে আবি সাউদ - খন্ড ৩ , পৃষ্ঠা : ২১০
৩। তফসীরে আত তাবারী - খন্ড ১ , পৃষ্ঠা : ২২৯
৪। তফসীরে নুরুল কোরআন - খন্ড ১১ , পৃষ্ঠা : ১৩৮

উত্তর দিয়েছেন :

মাওলানা ফরীদুল ইসলাম
উলুমুল হাদীস - ২য় বর্ষ ।

পরীক্ষিত এবং অনুমোদিত
মুফতী রফিকুল ইসলাম
হাদিস এবং তফসীর বিভাগের প্রধান
ইসলামিক রিসার্চ সেন্টার
বসুন্ধরা , ঢাকা - ১২১২
বাংলাদেশ ।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
21 জানুয়ারি 2014 "ঈমান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rafia Begum (2,125 পয়েন্ট)
1 উত্তর
14 ফেব্রুয়ারি "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md Mohiuddin (Rafi) (208 পয়েন্ট)
1 উত্তর
21 জানুয়ারি 2014 "ঈমান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rafia Begum (2,125 পয়েন্ট)

304,711 টি প্রশ্ন

393,476 টি উত্তর

119,730 টি মন্তব্য

168,932 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...