135 জন দেখেছেন
"নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
পড়তে বসলে বলছি আজ না আগামী কাল ভোরে পড়বো ভোরে বলছি এখন না রাতে পড়বো এই ভাবে আমার সময় চলেই যাচ্ছে কিন্ত কিছু পড়া হচ্ছে না। আমি কোন ভাবে নিজের ইচ্ছা শক্তিকে ধরে রাখতে পারছি না
করেছেন (1,313 পয়েন্ট)

আপনার পড়া লিখায় বড়ই অনিহা আছে। আগ্রহ তৈরি করে পড়ুন। আর পড়ালিখায় আগ্রহ না থাকলে ছেড়ে দিয়ে কোন কাজ শিখুন। আপনার মেধা যেদিকে প্রবাহিত হয় সেদিকে যেতে দিন। তবে মনে রাখবেন পড়ালিখা দাম সব সময়ই আছে। অহেতুক সময় নষ্ট করবেন না আড্ডা বাজিতে। হয় কোন কাজ শিখুন, না হয় পড়ালিখার মত পড়ালিখা। পড়ালিখার পাশাপাশিও কোন হাতের কাজ শিখতে পারেন। যেমন, গ্যারেজের, বা ডিজাইন বা ওয়েব ডিজাইন, ইত্যাদি।

আমরা মায়ের পেটে থেকে বাহিরের জগত যেমন আন্দাজ করতে পারিনি যে দুনিয়া কেমন হবে, ঠিক তেমনি এখানে বসে পরকালে কি হতে তা আন্দাজ করতে পারি না।

3 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,508 পয়েন্ট)
এটার সমাধান কখনোও মৃত্যু হতে পারে না। আপনি আজ এখন থেকেই পড়ালেখা শুরু করুন।পড়ালেখায় বাধা সৃষ্টি করে যেমন মোবাইল ব্যবহার বন্ধ করে দিন।কারণ পড়তে বসলে এসবের কথা মনে পড়ে।প্রয়োজনে মোবাইল চালানোর সময়টা বন্ধুদের সাথে,গল্প বা কাজের মধ্যে কাটান। একাধারে না পড়ে ২৫ মিনিট পড়ে ৫ মিনিট বিরতি,১ ঘন্টায় ১০ মিনিট এভাবে পড়ুন।পড়ালেখায় যেভাবে মজা লাগে সেভাবে পড়ুন। কাল,পরশু না করে আজ থেকেই রুটিন করে পড়ালেখায় মনোযোগ দিন। আশাকরি বুঝতে পেরেছেন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (203 পয়েন্ট)

মড়ে গেলে তো কখনোই এই সমস্যার সমাধনান হবেনা। অনেকেরই এরকম ইচ্ছা শক্তি সাইলেন্ট হয়ে থাকে শুধু মাত্র ধৈর্যের অভাবে। আপনাকে আমি আমার নিজের অভিজ্ঞতা থেকে বলছি, আপনি একটু ধৈর্য ধরুন। রাতে পড়ার ইচ্ছা পোষন করুন। দুপুরে নামাজ পড়ে খাওয়া দাওয়া করে হালকা ঘুমান। বিকেলে একটু খোলামেলা বাতাসে হাটুন/খেলাধুলা করুন। এবার একটু সিরিয়াস হয়ে সন্ধ্যায় নামাজ পড়ে বই নিয়ে বসুন। আশা করি মনোযোগ কাজ করবে। আর বেশি মনোযোগেরর জন্য আপাতত সারাদিন গানশুনা বন্ধ রাখুন। আমার বিশ্বাস ইনশাল্লাহ ফল পাবেন।

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (2 পয়েন্ট)
সর্বপ্রথম দেখবেন কোন জিনিসটি আপনাকে পিছু টানছে।কি কারনে আপনি পড়তে গেলে পড়ার টেবিল থেকে উঠে যান।এগুলোর সমস্যা সমাধান করে ফেলুন।এরপর আপনার জীবনের একটি লক্ষ্য স্থীর করে ফেলুন যে আপনি কি পড়ালেখা করে বড় কোনো চাকরি করতে চান।তাহলে সেই উদ্দেশ্য নিয়ে পড়ালেখা চালিয়ে যান।সবশেষে ইচ্ছা থাকলে সবকিছুই করা সম্ভব।আশা করি এরকম সমস্যায় আর পরবেননা।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
26 মার্চ 2018 "হাদিস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Skylark (9 পয়েন্ট)

276,240 টি প্রশ্ন

360,109 টি উত্তর

107,576 টি মন্তব্য

147,778 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...