আমার বয়স ২৬ আমার ওজন ৪৮ কেজি ওজন বাড়াবো কিভাবে?

90 জন দেখেছেন
13 সেপ্টেম্বর "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন SM Sumon (11 পয়েন্ট)
প্রশ্নটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন...

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
13 সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদান করেছেন Manik 415 (6,275 পয়েন্ট)

মোটা হওয়ার জন্য যা করণীয় তা হলোঃ প্রতি বেলায় প্রোটিন, কার্বোহাইড্রেট এবং ফ্যাটের সমন্বয় থাকতে হবে। মোটামুটি ৪০ শতাংশ প্রোটিন, ৩০ শতাংশ কার্বোহাইড্রেট, ৩০ শতাংশ ফ্যাট হতে হবে। মাছ, মাংস, ডিম, দুধ, টক দই, লাল চালের ভাত, আটার রুটি, শাকসবজি, ফলমূল, প্রচুর পানি পান করুন। প্রথম দুই সপ্তাহে কমপক্ষে ২৫০০ ক্যালরি খাবেন। মেপে খেতে হবে না। প্রোটিন যেন যথেষ্ট হয়। প্রতি দুই ঘণ্টা পর পর কিছু না কিছু খাবেন। সেই সঙ্গে প্রচুর পানি।


মানিক রাজ দীর্ঘদিন যাবত ইন্টারনেটের এর সাহায্যে অজানাকে জানার চেষ্টা করেন। নিজে জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি অন্যকে জানানো ও নিঃস্বার্থভাবে অপরকে সাহায্য করার জন্য বিস্ময় অ্যানসারস কে বেছে নিয়েছেন। বিস্ময় অ্যানসারস এর সাথে আছেন সমন্বয়ক হিসেবে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
14 সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদান করেছেন আ ক ম আজাদ (1,879 পয়েন্ট)
ওজন বাড়ানোর জন্য দুনিয়াভর একটাই ঔষুধ-- সেটা হলো বেশি করে খাওয়া। আপনি ডাক্তারের কাছে যান কিংবা বিজ্ঞাপন দেখে হারবাল ঔষুধের দোকানেই যাননা কেন-- তারা আপনাকে খাবারের রুচি বাড়ানোর ঔষুধ দিবে। সাথে দিবে ভিটামিন। সুতরাং আপনি কোথাও গিয়ে লাভ নেই। এর সমাধান আপনার হাতেই। খাওয়ায় রুচি না থাকলে রুচি আনতে হবে। আমি নিজের কথা বলতে পারি। আমার ওজন ছিলো ৫২/৫৩ কেজি, উচ্চতা ৫/৬... আমিও একটু মোটা হতে চেয়েছিলাম। পরে বুঝে দেখলাম না খেয়ে উপায় নেই। তবে হ্যা কিছু অভ্যাস আছে যেটা শরীরে কু-প্রভাব ফেলে আর খাওয়াও মারাত্মক প্রভাব ফেলে। এর মধ্যে প্রথম হলো রাতজাগা বা রাতে কম ঘুমানো। এতে রুচি কমে যায়। আর সকালের নাস্তা মিস হয়। সকালের নাস্তাই হলো সারাদিনের শক্তির মূল উৎস।এটা বেশি করে আর ভালো করে খেতেই হবে, অন্যথায় শরীরে প্রভাব পড়বেই। আপনি শুধু সময়মত খেয়ে যান। সাথে প্রচুর ফল খাবেন (কলা একটা কমন খাবার করে ফেলুন, দিনে দুটা খাবেনই) রাতে ভালো ঘুমানোর চেষ্টা করুন। আর চিকন হওয়া নিয়ে মন খারাপ করবেন না, কারন মোটা হবার অনেক সময় আছে। পুরুষ/মহিলা উভয়েই বিয়ের পরে যথাক্রমে ৭% ও ৪০% মোটা হয়। আপনিও হবেন... অতএব টেনশন কমিয়ে ফেলুন :D। এতে ঘুম ভালো হবে, খাবারে রুচি বাড়বে আর দেখবেন শরীর তাজা হয়ে উঠবে। সবসময়ে উৎফুল্ল থাকবেন। খাবারের মধ্যে বাইরে থাকলে ফলটল খাবেন, প্রচুর পানি খাবেন, আর জাংকফুড থেকে অবশ্যি দূরে থাকবেন। এই বিষয়টার সমাধান ৫০ ভাগ মানসিক আর ৫০ ভাগ খাওয়া দাওয়া। আপনার দুটাই ডেভেলপ করতে হবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

187,064 টি প্রশ্ন

240,721 টি উত্তর

54,963 টি মন্তব্য

83,541 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...