21,016 জন দেখেছেন
"রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (6,525 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (6,525 পয়েন্ট)

#9 

রুপচর্চা শুধু মেয়েদেরই ‘অধিকার’ নয়, এই শতাব্দীতে এসে ছেলেদেরও চাই রুপচর্চা সম্পর্কে খুটিনাটি জানাটা। ছেলেদের ত্বকের এ খসখসে ভাব দূর করতে অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন। এখন মেয়েদের পার্লারের পাশাপাশি ছেলেদের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য শহরের বিভিন্ন স্থানে গড়ে উঠেছে ‘জেন্টস পার্লার’। কিন্তু কাড়ি কাড়ি টাকা খরচ  করে সেসব পারলারে না গিয়ে একটু কষ্ট করে সপ্তাহে একদিন বাড়িতে বসেই নিতে পারেন ত্বকের যত্ন।

আমরা জানি আবহাওয়ার তারতরম্যের কারণে ত্বকের উপর ও অনেক বেশি প্রভাব পড়ে। রোদে পুড়ে, বৃষ্টিতে ভিজে, ধুলাবালির প্রলেপে ত্বকের রং তামাটে, রুক্ষ ও ম্লান হয়ে যায়। ছেলেদের ত্বকের এ খসখসে ভাব দূর করতে  অতিরিক্ত যত্নের প্রয়োজন। ছেলেরা সপ্তাহে একদিন বাড়িতে বসেই নিতে পারেন ত্বকের যত্ন-

  
১. সপ্তাহে একদিন মুখে মধু ব্যবহার করা যেতে পারে। ৩/৪ চামচ মধু নিয়ে মুখে ভালোভাবে মেখে নিন। এবার ১০ থেকে ১৫ মিনিট রেখে দিয়ে কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। এতে ত্বকের খসখসে ভাব দূর হয় এবং ত্বক কোমল হয়।
২. ওটমিলকে সারারাত পানিতে ভিজিয়ে রেখে ব্লেন্ডার এ ব্লেন্ড করে নিন। এবার এর সাথে পানি মিশিয়ে ভালোভাবে পেস্ট তৈরি করুন। এটা সম্পূর্ণ মুখে মাস্কের মত লাগিয়ে নিন। ১৫/২০ মিনিট পর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।
৩. প্রতিদিন রোদ থেকে বাসায় আসার পরে অবশ্যই পানি দিয়ে ভালোভাবে মুখ ধুয়ে ফেলতে হবে। এতে করে বাইরের সব ধূলো ময়লা দূর হয়ে যায় এবং মুখে ময়লা জমে থাকতে পারে না। ফলে ব্রণ হওয়ার সম্ভাবনা থাকে না
৪. ত্বকের সৌন্দর্য ধরে রাখতে বেসনের পেস্ট, মধু ও দুধ মুখের ত্বকে লাগান। এতে ত্বকের বলিরেখা দূর হবে। এছাড়া মুখের ব্রন দূর করতে ব্রণ এর উপর নিয়মিত চন্দন বাটা লাগালে ব্রণ দূর হয়।
৫. কোমল এবং নরম ত্বকের জন্য দুইটি ডিমের সাদা অংশ একসাথে বিট করে এতে এক টেবিল চামচ লেবুর রস মিশিয়ে মাস্ক তৈরি করে নিন। এবার এটাকে সম্পূর্ণ মুখে মাস্কের মত করে লাগান। শুকিয়ে গেলে কুসুম গরম পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।
৬. মুখের  ধূলোবালি দূর করার জন্য সপ্তাহে দুইদিন ভালো ফেসিয়াল স্ক্রাব দিয়ে মুখ পরিষ্কার করতে হবে। অথবা পেপে,  শশা,  আপেল পেস্ট করে স্ক্রাব তৈরি করে ব্যবহার করতে পারেন।

ছেলেদের ত্বকের যত্নে আরও কিছু টিপস !
গরমে ত্বকের তৈলাক্ততা বেড়ে যায়। তৈলাক্ততা কমাতে ডিপ ক্লিনজিং করতে পারেন।
যেভাবে করবেন
* প্রতিদিন দুইবার মুখ পরিস্কার করুন।
* সকালে ঘুম থেকে উঠে ফেসওয়াশ বা ভালো মানের সাবান দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন।
* বেসন বা মসুর ডাল বাটাও হতে পারে মুখ ধোয়ার উপকরণ।
* আবার বেবিসোপ, ডাভ, নিভিয়া, নিউট্রোজেনো সোপ দিয়েও মুখ ধুতে পারেন।
পারফেক্ট শেভিং
* যাদের মুখে ব্রণ রয়েছে তাদের শেভ করে ফেলা উচিত।
* শেভ করলে আবার ত্বক শুষ্ক হয়। তাই শেভের আগে গরম পানির ভাপ নিতে হবে। অথবা
একটি তোয়ালে গরম পানিতে
ভিজিয়ে মুখের ওপর ধরে রাখুন।
* ব্লেড সব সময় একদিকে চালাবেন।
* শেভের পর অবশ্যই আফটার শেভ লোশন লাগাতে হবে। তা যেন নন-অ্যালকোহলিক হয়।
ময়েশ্চারাইজিং
* শেভের ফলে মুখের আর্দ্রতা চলে যায়। যাদের ত্বক তৈলাক্ত তাদের ক্ষেত্রে ওয়াটার
বেইজড ময়েশ্চারাইজার ব্যবহার করবেন।
* ল্যাভেন্ডার অয়েল, স্যাগি, মিন্ট, টি ট্রি তেল স্কিন টোনার হিসেবে লাগাবেন।
* বাইরে রোদে যাওয়ার আগে নূ্যনতম পিএইচপি ১৫ আছে এমন সানক্রিম লাগিয়ে বেরুবেন।
লক্ষ্য রাখুন
* সম্ভব হলে ঘণ্টায় একবার মুখে পানির ঝাপটা দিন।
* বাসায় শেভ করার চেষ্টা করুন।
* ব্লক হেডস উঠাতে স্ক্র্যাব ব্যবহার করুন।
* ব্রণ হলে খোঁটাখুঁটি করবেন না।
* ভাজাপোড়া বেশি খাবেন না। অ্যালকোহল ও সিগারেটের অভ্যাস থাকলে পরিত্যাগ করা উচিত।
* বাসায় সপ্তাহে দুই দিন মাস্ক বা উপটান লাগাতে পারেন।
* মুখে কোনো প্রসাধন ব্যবহারের ফলে যদি ব্রণ দেখা দেয় তবে তা ব্যবহার করবেন না।


মোঃ আরিফুল ইসলাম বিস্ময় ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। খানিকটা অস্তিত্বের তাগিদে আর দেশের জন্য বাংলা ভাষায় কিছু করার উদ্যোগেই ২০১৩ সালে তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে বিস্ময় ডট কম। পেশাগত ভাবে প্রোগ্রামার।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
03 ফেব্রুয়ারি "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Md:Mustafezur Rahman (14 পয়েন্ট)
1 উত্তর
02 ডিসেম্বর 2017 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন পুষ্পজিত (10 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
25 নভেম্বর 2017 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন SM Shamim Ahmed (5,051 পয়েন্ট)
3 টি উত্তর
28 নভেম্বর 2016 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন শ্রীকৃষ্ণ (159 পয়েন্ট)

229,517 টি প্রশ্ন

294,328 টি উত্তর

81,359 টি মন্তব্য

115,116 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
  1. মোঃ খোকন মিয়া

    747 পয়েন্টস

  2. আল আমিন ভাই

    720 পয়েন্টস

  3. Samiul islam Sagor

    709 পয়েন্টস

  4. Sabirul Islam

    709 পয়েন্টস

  5. Porimol ray

    703 পয়েন্টস

* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...