98 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (4,190 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,190 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
মানব সমাজে মদের প্রবেশ অনেক আগে হতেই। সামাজিক বিভিন্ন সমস্যার অন্যতম মূল কারন হলো মদ বা নেশা। মদের নেশায় রঙ্গিন হয়ে বর্তমান সমাজের বেশিরভাই অপরাধ সংগঠিত হচ্ছে। মানুষের কন্ট্রোলরুম হল তার মস্তিষ্ক যা তাকে হালাল বা হারামের পার্থক্যটা বেঝায়। যেমন আপনি রাস্তার মধ্যখানে কাপড় খুলে টয়লেট করতে পারবেননা আপনার মস্তিষ্ক বাধা দেবে। যখন একজন মানুষ মদ বা নেশা জাতিয় জিনিষ পান করে বা খায় তার কন্ট্রোলরুম (মস্তিষ্ক) প্রায় অচল হয়ে পড়ে। নেশার রাজ্যে রকমারি অপকর্ম করতে সে এতোই ব্যস্ত থাকে যে তান সাথে জাগ্রত মন- মেজাজের যোগাযোগ থাকেনা। ফলে ঠিক বা বেঠিকের পার্থক্য গোচরীভুত হয়না। এই সময়টার জন্য শয়তানের অপেক্ষা করে, তখন শয়তান তাকে দিয়ে যা ইচ্ছা করিয়ে নিতে পারে যেমন-

-সে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করে

-নিজের কাপড়ে প্রশ্রাব করে দেয়।

-নিজের মা-বাবাকেও গালিগালাজ করে।

-আমেরিকায় বিচার বিভাগ অপরাধীদের একটি জরিপে দেখেছে প্রতিদিন আমেরিকাতে ২৭১৩ টি ধর্ষন সংগঠিত হয় যার কূকর্মর বেশিরভাগ ব্যক্তিই মাতাল।

-অনেক ছোট মেয়ে তার পিতা দ্বারা ধষির্ত হয়েছে ,কারন মাতাল পিতার কাছে মেয়ে বা পতিতার পাথর্ক্য ছিলনা। -এইডস ছড়ানোর অন্যতম কারন হলো নেশা।

অনেকে বলেন তারা সামাজিকতা হিসেবে সামান্য মদ্যপান করেন। অনেকে নিজেকে ’সামাজিক মদ্যপায়ীর খোলসে’ মদপান করেন, আর প্রতিটি অপরাধের শুরু হয় এভাবেই, ক্ষুদ্র হতে সেটা বৃহত্তর পর্যায়ে ফ্রাঙ্কেনষ্টাইনের অবয়ব ধারন করে। পৃথিবীতে এমন কোন মদ্যপায়ী নেই যে জীবনে একবার হুশ হারিয়ে ফেলেননি। আর হুশ হারিয়ে ফেলার পর যে কর্মটি সে করবে তার প্রায়শ্চিত্ব হয়তো তাকে সারাজীবন দিতে হতে পারে সে হয়তো খুন করতে পারে, ধর্ষন করতে পারে। উদাহরন স্বরুপ যত বাবা তার আপন মেয়েকে ধর্ষন করেছে তাদের একটাই বক্তব্য ছিল- ”আমার হুশ ছিলনা”.. ইন্ডিয়াতে এইতো কিছুদিন আগে বাসে লোকজন লাইন দিয়ে ধর্ষন করেছে ২৩ বছরের মেডিকেল তরুনিকে, বেশ কয়েকদিন ধরে অসহ্য যন্ত্রনার পর তার মর্মান্তিক মৃত্যু হয়, তদন্তের ১০০০ পৃষ্ঠার রিপোর্টে বলা হয়েছে তারা (ধষর্করা) মাতাল ছিল।

আল্লাহ বলেন সুরা মায়েদা-৫, আয়াত-৯০-
005.090 يَا أَيُّهَا الَّذِينَ آمَنُوا إِنَّمَا الْخَمْرُ وَالْمَيْسِرُ وَالأنْصَابُ وَالأزْلامُ رِجْسٌ مِنْ عَمَلِ الشَّيْطَانِ فَاجْتَنِبُوهُ لَعَلَّكُمْ تُفْلِحُونَ
005.090 O ye who believe! Intoxicants and gambling, (dedication of) stones, and (divination by) arrows, are an abomination,- of Satan's handwork: eschew such (abomination), that ye may prosper.

Al-Qur'an, 005.090 (Al-Maeda [The Table, The Table Spread])

“নিঃসন্দেহে মাদকদ্রব্য ও জুয়া আর প্রস্তরবেদী বসানো ও তীরের লটারী খেলা-নিশ্চই হচ্ছে অপবিত্র শয়তানের কাজের অন্তর্ভূক্ত..”

হাদীস সুন্নাহ ইবনে মাজা-৩৩৭১/৩৩৮০/৩৩৯২-তে  রাসুল(সাঃ) নেশাকে সম্পূর্ন হারাম ঘোষনা করেছেন। বিভিন্ন বৈজ্ঞানিক ব্যখ্যা রয়েছে মদের নিষিদ্ধকরনের ব্যাপারে তার কয়েকটি বর্ননা করছি-

১) লিভার নষ্ট হতে পারে

২) দেহের বিভিন্ন স্থানে ক্যান্সার হতে পারে

৩) ওয়েসোপাগিটিস, গস্খাসটরাইটিস, হেপাটাইটিস ইত্যাদি ক্যন্সার হতে পারে

৪) বেরিবেরি ,বুকের প্রদাহ অ্যাজমা ইত্যাদি হাজারো রোগ।

মেডিকেলের ডাক্তাররা এই সিন্ধান্তে উপনিত হয়েছেন যে এটি নেশা নয় এটি রোগ যা-

১) বোতলে বিক্রি হয়

২) পান করার জন্য রেডিও পত্রিকা টেলিভিশনে বিজ্ঞাপন দেয়া হয়।

৩) এর লাইসেন্স আছে

৪) সরকারি অনুমোদন আছে

৫) রাস্তায় ভয়ঙ্কর র্দূঘটনার জন্য এই নেশা দায়ী

৬) পরিবার ধ্বংস করে ও অপরাধের সংখ্যা বাড়িয়ে দেয়।

আমাদের দেশে ঘটছে বহু মর্মান্তিক ঘটনা মাকে ছেলে মাদকের অর্থের জন্য ছুরি মারছে। কিছু দিন আগে খবরে শুনলাম স্ত্রী নেশার টাকা না দেয়ায় মাদকসেবী বাবা নিজের সন্তানকে চারতলা হতে ছুড়ে ফেলেছে। যারা ইন্ডিয়াতে যাননি শুনলে আশ্চর্য হবেন সেখানে মদের দোকান আর আমাদের দেশের মুদি দোকানের মতো, অলিগলিতে ২০ হাত পরপর সেখানে রেজিষ্টারড অ্যালকোহল শপ রয়েছে। ব্যাংলোরে পড়াশুনা অবস্থায় আমি নিজেই বহু লোককে মদের করাল গ্রাসে মরতে দেখেছি। আমার ক্লাসমেট মদ্যপ অবস্থায় মোটর সাইকেল নিয়ে বাসের পেছনের চাকার নিচে পড়েছে, চাকাটি তার মাথার উপর দিয়ে চলে যায় এবং সমস্ত মগজ রাস্তায় ছিটকে পড়ে। সকালবেলা বহু লোককে আপনি রাস্তায় ও অলি গলিতে মদ্যপও অজ্ঞান অবস্থায় দেখতে পাবেন। আসুন মদ, শুয়োরকে আমরা না বলি সৃষ্টিকর্তার নিয়ম অনুযায়ী নিজের জীবরকে সাজিয়ে তুলি তবেই আসবে শান্তি বাব মেয়েকে ধর্ষন করবেনা, জন্ম দেয়া পুত্র  ‍খুনি হয়ে মা-বাবার সামনে এসে দাড়াবেনা, মানুষ নামক হায়েনার কাছে মাদকের জন্য আপন সন্তানকে বিকিয়ে দেবেনা, স্বামী/বাবা/ভাই মদ্যপ নেশাগ্রস্থ হয়ে অশান্তির অনল সুষ্টি করবেনা। সমাজ হবে মাদকমুক্ত ,সুস্থ এক অনাবিল জীবন। আল্লাহ আমাদের এই ক্ষতিকারক বস্তু হতে রক্ষা করুন।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
10 মে 2013 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন shohan (4,190 পয়েন্ট)
1 উত্তর
21 জানুয়ারি 2018 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Arfan Robin (9 পয়েন্ট)
1 উত্তর
31 মার্চ 2014 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন salehahmed (labib) (10,662 পয়েন্ট)

288,636 টি প্রশ্ন

374,014 টি উত্তর

113,126 টি মন্তব্য

157,191 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...