বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
180 জন দেখেছেন
"সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়" বিভাগে করেছেন (2 পয়েন্ট)
HSC পরিক্ষা তো প্রায় শেষ।যেকোনো পাবলিক ভার্সিটি তে চান্স পাওয়ার জন্য কিভাবে প্রস্তুতি নেওয়া যেতে পারে?মেইন বই কতটুকু পরব?ইংরেজির জন্য কিভাবে প্রস্তুতি নেব?কত ঘন্টা পড়তে হবে?কোচিং করা কতটুকু জরুরি?বিস্তারিত জানতে চাই। যারা এই লেভেল টা পার করে এসেছেন তাদের কাছ থেকে পরামর্শ চাই। ব্যবসায় শিক্ষা শাখা থেকে

3 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (7 পয়েন্ট)
বাংলা প্রথমের টেক্সট বুক ও ইংরেজির জন্য প্রচণ্ড ভোকাবুলারি টেস্ট করুন। ইংরেজি গ্রামারের জন্য টোফেল আছে এবং বাংলা গ্রামারের ক্ষেত্রে দশম শ্রেণীর পাঠ্য বইটি সহায়ক। আর অন্যান্য বিষয় গুলোর MCQ এর পদ্ধতি টা জেনে নিলে নিজেই ভালো ভাবে বুজতে পারবেন। এর জন্য দরকার প্রচুর অনুশীলন আর সময়। আপনি এখন থেকে শুরু করলে দৈনিক ৫-৬ ঘন্টা করে সময় দিন। পরীক্ষার উপর ধারণা ও কম্পেটেটিভ থাকার জন্য কোচিং এ ভর্তি হতে পারেন কিন্তু সকল প্রচেষ্টা আপনার হাতে। পড়ার কোনো বিকল্প নাই। আর অবশ্যই প্রিভিয়াস ইয়ার গুলোর প্রশ্নাবলী সলভ করবেন। ---- কোন ভার্সিটির জন্য বললে ভালো হতো। ঢাবির জন্য হলে অবশ্যই পাঠ্য বইয়ের প্রতি গুরুত্ব দিবেন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (20 পয়েন্ট)
মেইন বই পড়তে গেলে মাথা গোলায় যাবে।আপনি ভালো একটা কোচিং এ ভর্তি হন।যেখানের ছাএরা মেধাবী এবং নামকরা কোচিং এ যান।সেখানে আপনাকে সিট দিবে।যেগুলি ভাল করে পড়বেন।কোচিং মিস দিবেন না এবং পরিক্ষা গুলিও। প্রতিদিন ৫-৬ ঘন্টা পড়ুন।সকালে ৩ ঘন্টা এবং রাতে ৩ ঘন্টা। সময়টা আপনার ব্যাপার। কোচিং থেকে দেওয়া সিট গুলি থেকে কমন চলে আসে।কোচিং এ ভালো ছাএদের সাথে যোগাযোগ রাখুন তারা কিভাবে তারা পড়ছে। আর মুসলমান হলে নামাজ পড়বেন এবং দোয়া চাইবেন।
0 টি পছন্দ
করেছেন (62 পয়েন্ট)

এই সময় টা আপনার জীবনের সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ সময়ের মধ্যে একটি।একটা পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি আপনার জীবনের মোড় ঘুরিয়ে দিতে পারে যেটি আপনাকে ভাল গন্তব্যে নিয়ে যাবে।আপনি এখন যেই সময় টা পার করছেন তার প্রত্যেক তা মিনিট গুরুত্বপূর্ণ।  সর্বচ্চ সময় পড়াশুনার কাজে লাগাতে হবে।পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে যে ইউনিট এই পরীক্ষা দেন না কেন গাইড লাইন টা সব থেকে জরুরী।আপনি যখন ভাল একটা কোচিং এ ভর্তি হবেন সেখানে আপনি প্রয়োজনীয় গাইডলাইন আর অনুপ্রেরণা দু'ই পাবেন যেটা আপনার ভাল প্রিপারেশনের জন্য অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। আর কয় ঘন্টা পড়বেন সেটা সম্পূ্র্ণ আপনার উপর।কোচিং বা গাইড লাইন এর পড়া কমপ্লিট করতে যত সময় লাগবে তত সময় ই পরতে হবে।তবে আপনি যদি অবশ্যই ভাল বিশ্ববিদ্যালয়ে চাঞ্জ  পেতে চান তাহলে ৮/৯ ঘন্টা  পড়ার চেষ্টা করুন(অনেককে এর থেকে ও বেশি সময় পড়তে  হয়েছে) তবে ৬ ঘন্টার নিচে নয়।

নিজে নিজে পড়ে বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির ঘটনা বিরল তাই যত তারাতারি পারেন একটা ভাল কোচিং এ ভর্তি হন। আর কোন বই এর কতটা পড়তে হবে সেটা কোচিং এ ভাল করে বুঝানো হয় এবং সেই অনুযায়ী পড়ানো হয়।

টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
1 উত্তর

294,068 টি প্রশ্ন

380,680 টি উত্তর

115,095 টি মন্তব্য

161,492 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...