বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
3,807 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (18 পয়েন্ট)
Help me

2 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (4,853 পয়েন্ট)

ভাই ! এসব ঈমান আকীদা বিনষ্টকারী গ্রন্থ। এগুলোর ভিতরে এমন এমন কথা লেখা আছে যাতে বিশ্বাস করলে ঈমান চলে যাওয়ার সমূহ আশঙ্কা রয়েছে। সুতরাং এ ধরনের ঈমান বিধ্বংসী তাবিজ-কবচ ও যাদু গ্রন্থ থেকে দূরত্ব বজায় রাখা আবশ্যক। প্রয়োজন পূরণ, বিপদ আপদ দূর করণ ও সমস্যা সমাধান সংক্রান্ত কুরআন সুন্নাহতে বহ বিশুদ্ধ উপায় উপকরণ রয়েছে। সেগুলো গ্রহণ করা চাই। আল্লাহ আমাদের তাওফীক দান করুন।

0 টি পছন্দ
করেছেন (62 পয়েন্ট)
আপনাকে লিংটি দেয়া হল, পছন্দমতো দেখুন । http://www.hadithbd.com/resultqa.p q=%E0%A6%B8%E0%A7%8B %E0%A6%B2%E0%A7%87%E0%A6%AE %E0%A6%BE%E0%A6%A8%E0%A6%B %E0%A6%A4%E0%A6%BE%E0%A6%A %E0%A6%BF%E0%A6%9C&ss=qa যাদু এবং যাদুর শ্রেণীভূক্ত ব ১। কুতুন বিন কুবাইসা তাঁর পিতা থেকে বর্ণন করেছেন, তিনি নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহ ওয়া সাল্লাম কে এ কথা বলতে শুনেছেন, ﺃﻥ ﺍﻟﻌﻴﺎﻓﺔ ﻭﺍﻟﻄﺮﻕ ﻭﺍﻟﻄﻴﺮﺓ ﻣﻦ ﺍﻟﺠﺒﺖ ‘‘নিশ্চয়ই ‘ইয়াফা’, ‘তারক’ এবং ‘তিয়ারাহ’ হচ্ছে ‘জিবত’ এর অন্তর্ভূক্ত। আউফ বলেছেন, ‘ইয়াফা’ হচ্ছে পাখি উড়িয় ভাগ্য গণনা করা। ‘তারক’ হচ্ছে মাটিতে রে টেনে ভাগ্য গণনা করা। হাসান বলেছেন, ‘জিবত’ হচ্ছে শয়তানের মন্ত্র। এ বর্ণনার সনদ সহ (আবু দাউদ, নাসায়ী, ইবনু হিববান) ২। ইবনে আববাস রা. থেকে বর্ণিত আছে, তি বলেছেন, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করেছেন, ﻣﻦ ﺍﻗﺘﺒﺲ ﺷﻌﺒﺔ ﻣﻦ ﺍﻟﻨﺠﻮﻡ ﻓﻘﺪ ﺍﻗﺘﺒﺲ ﺷﻌﺒﺔ ﻣﻦ ﺍﻟﺴﺤﺮ ‏( ﺭﻭﺍﻩ ﺃﺑﻮﺩﺍﻭﺩ‏) ‘‘যে ব্যক্তি জ্যোতির্বিদ্যার কিছু অংশ শিখলো সে মূলতঃ যাদুবিদ্যারই কিছু অংশ শিখলো। এ [জ্যোতির্বিদ্যা] যত বাড়বে যা বিদ্যাও তত বাড়বে।’’ (আবু দাউদ) ৩। হযরত আবু হুরায়রা (রাঃ) থেকে একটি হাদীসে বর্ণিত আছে ﻣﻦ ﻋﻘﺪ ﻋﻘﺪﺓ ﺛﻢ ﻧﻔﺚ ﻓﻴﻬﺎ ﻓﻘﺪ ﺳﺤﺮ، ﻭﻣﻦ ﺳﺤﺮ ﻓﻘﺪ ﺃﺷﺮﻙ : ﻭﻣﻦ ﺗﻌﻠﻖ ﺷﻴﺌﺎ ﻭﻛﻞ ﺇﻟﻴﻪ ‘‘যে ব্যক্তি গিরা লাগায় অতঃপর তাতে ফুঁ দেয় সে মূলতঃ যাদু করে। আর যে ব্যক্তি যাদু করে সে মূলতঃ শিরক করে আর যে ব্যক্তি ক জিনিস [ তাবিজ-কবজ] লটকায় তাকে ঐ জিনিসসের দিকেই সোপর্দ করা হয়। (নাসায় ৪। আব্দুল্লাহ ইবনে মাসউদ (রাঃ) থেকে বর্ণ আছে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করেছেন, ﻫﻞ ﺃﻧﺒﺌﻜﻢ ﻣﺎ ﺍﻟﻌﻀﺔ؟ ﻫﻰ ﺍﻟﻨﻤﻴﻤﺔ ﺃﻟﻘﺎﻟﺔ ﺑﻴﻦ ﺍﻟﻨﺎﺱ ‏( ﺭﻭﺍﻩ ﻣﺴﻠﻢ‏) ‘‘আমি কি তোমাদেরকে যাদু কি-এ সম্পর্কে সংবাদ দেব না? তা হচ্ছে চোগোলখুরী বা কুৎসা রটনা করা অর্থাৎ মানুষের মধ্যে কথা- লাগানো বা বদনাম ছড়ানো।’’ (মুসলিম) যাদুর শ্রেণীভূক্ত আরেকটি বিষয় অনেক মানুষ মধ্যেই পাওয়া যায়, তা হচ্ছে চোগলখুরী বা কুৎসা রটনা করা। মানুষের মধ্যে বিভেদ সৃষ্ট প্রিয়জনদের অন্তরে শক্রতা সৃষ্টি। ৫। আব্দুল্লাহ ইবনে ওমর (রাঃ) থেকে বর্ণিত আছে, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম এরশাদ করেছেন, ﺇﻥ ﻣﻦ ﺍﻟﺒﻴﺎﻥ ﻟﺴﺤﺮﺍ নিশ্চয় কোন কোন কথার মধ্যে যাদু আছে। (বুখারি ও মুসলিম) এ অধ্যায় থেকে নিম্নোক্ত বিষয়গুলো জান যায়ঃ ১। ‘ইয়াফা’, ‘তারক’ এবং ‘তিয়ারাহ’ জিবত অন্তর্ভূক্ত। ২। ‘ইয়াফা’, ‘তারক’, এবং ‘তিয়ারাহ’ এর তাফসীর। ৩। জ্যোতির্বিদ্যা যাদুর অন্তর্ভুক্ত। ৪। ফুঁক সহ গিরা লাগানো যাদুর অন্তর্ভুক্ত। ৫। কুৎসা রটনা করা যাদুর শামিল। ৬। কিছু কিছু বাগ্মীতাও যাদুর অন্তর্ভূক্ত ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
08 অগাস্ট 2016 "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Nin (12 পয়েন্ট)
1 উত্তর
01 ডিসেম্বর 2017 "কবিতা সমগ্র" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ibrahim muhammed (11 পয়েন্ট)
0 টি উত্তর
15 সেপ্টেম্বর "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল
1 উত্তর
04 অগাস্ট "ইন্টারনেট" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন অজ্ঞাতকুলশীল

331,592 টি প্রশ্ন

422,407 টি উত্তর

131,166 টি মন্তব্য

181,124 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...