160 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (9 পয়েন্ট)
বিভাগ পূনঃনির্ধারিত করেছেন

5 উত্তর

2 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (8,247 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন
ডাক্তারের পরামর্শে আপনি "Fona plus" জেল ব্যবহার করেন|এটি ব্রণ দুর করতে ভালো কার্যকরী|প্রতিদিন রাত্রে শুবার আগে ব্যবহার করতে হবে|

ব্যবহারের নিয়মাবলী ডাক্তারের কাছে জেনে নিন|অথবা ভিতরের কাগজে দেওয়া নিয়ম পড়ে নিন|আশা করি ব্রণ দুর হবে ইনশাআল্লাহ
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,198 পয়েন্ট)
আপনি হামদর্দ কোম্পানির "ছাফী" সিরাপ খেতে পারেন। এটি ব্রণের জন্য ভাল কাজ করে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (8 পয়েন্ট)

সবচেয়ে ভালো সমাধান হলো তৈলাক্ত খাবার

পরিহার করা...

বেশি করে আঁশযুক্ত খাবার খাওয়া...

রাতে ভাজাপোড়া খাবার পুরোপুরি ত্যাগ

করুন,....সকালের নাস্তায় অন্তত একটা ফল যুক্ত

করুন...

ঘুম থেকে উঠেই বাসী মুখে ২ গ্লাস পানি খেয়ে

নিন... পেট পরিষ্কার থাকলে সেটা ত্বক এ

ইতিবাচক প্রভাব ফেলে.

ত্বকে ব্রণ উঠলে কালো ছোপ ছোপ দাগ পড়ে। যা

দেখতে একেবারে বেমানান লাগে। ব্রণের দাগ

শুধু ত্বকের সৌন্দর্যকে ম্লানই করে না সেইসঙ্গে

আত্মবিশ্বাসকেও কমিয়ে দেয়। ব্রণের দাগ দূর

করার জন্য বাজারের নানা রকম কসমেটিকস

পাওয়া যায়। কিন্তু তা কোনো কাজে আসে না।

অথচ হাতের কাছে থাকা প্রাকৃতিক লবঙ্গ ব্রণ দূর

করার পাশাপাশি দূর করবে ব্রণের দাগ।

ব্রণের উপর লবঙ্গ বাটা ২০ থেকে ২৫ মিনিট

লাগিয়ে পরিষ্কার পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে

ব্রণের ক্ষত স্থানে দাগ হবে না। সপ্তাহে একবার

লবঙ্গ বাটা ত্বকে লাগালে ত্বকে ব্রণ উঠবে না।

এছাড়া চন্দনের গুড়ার সঙ্গে লবঙ্গ বাটা লাগালে

উপকার পাওয়া যায়।

(●) প্রচুর পরিমাণে শাক-সবজি আর মওসুমী ফল

খেতে হবে রোজ পর্যাপ্ত পরিমানে।

(●) ২ চামচ বেসন, ১ চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা, ১

চা চামচ কমলার খোসা বাটা একসাথে মিশিয়ে

পেষ্ট তৈরি করুন। এবার এটা মুখে ঘাড়ে মাখিয়ে

রেখে ১৫-২০ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন।

(●) আপেল এবং কমলার খোসা একসাথে বেটে এর

সাথে ১ চামচ দুধ, ডিমের সাদা অংশ এবং কমলার

রস মেশান। এবার মিশ্রনটা ত্বকে ২০ মিনিট

লাগিয়ে রেখে ধুয়ে ফেলুন।

(●) পাকা পেঁপের শাঁস মুখে মেখে নিন। ১ চামচ

পাকা পেঁপের শাঁস ও ১ চামচ শশার রস মুখে মেখে

নিন। ত্বক উজ্জ্বল হবে।

(●) ব্রণ থাকাকালীন মুখমন্ডলের ত্বকে কোন

তৈলাক্ত পদার্থ ও ক্রিম লাগাবেন না।

(●) একটি ডিম, ২ টেবিল চামচ অলিভ অয়েল,

একটি গোটা লেবুর রস ভালো করে মিশিয়ে নিন,

এটি নখ, গলা, হাত ও ঘাড়ের কালো ছোপে ১৫-২০

মিনিট লাগিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এতে ব্রণের দাগ,

হাত, ঘাড়ের কালো ছোপ ইত্যাদি সেরে যাবে।

(●) আধাপাকা চিনির সাথে অলিভ অয়েল

মিশিয়ে সারাগায়ে মেখে শুকাতে দিন। শুকিয়ে

গেলে এটিকে ঘষে তুলে ফেলুন। এবার সামান্য

গরম পানিতে ভালো করে গোসল করে নিন।

সপ্তাহে একবার করবেন। এতে শরীরের ত্বক মসৃণ

থাকবে।

(●) নিত্যদিনের খাবারের তালিকায় এ ভিটামিন

যুক্ত খাবার অবশ্যই রাখবেন। ভিটামিন এ এর

প্রধান উৎস প্রাণীজ প্রোটিন যেমন যকৃত, ডিমের

কুসুম, দুধ, মলা-ঢেলা, পুঁটি মাছ, কচুশাক, লাউশাক,

পেঁপে, মিষ্টি কুমড়া, কাঁঠাল ইত্যাদি।

(●) ২ চা চামচ চিনা বাদাম বাটা, ২ চা চামচ

দুধের সর মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে ১০-২০ মিনিট পর

ঠান্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। ব্রণের দাগ

মিলিয়ে যাবে।

(●) ১ চা চামচ লেবুর রস ও ১ চামচ মধু মিশিয়ে মুখে

লাগিয়ে ১০-২০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলবন। মুখে

লাবন্য আসবে।

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (859 পয়েন্ট)
প্রাকৃতিক উপায়ে ব্রণ দূর করতে নিচের লেখা গুলো অনুসরন করবেন : ➣ উপটান ১চা চামচ, কাঁচা হলুদ বাটা ১ চা চামচ ,তাজা নিম পাতা বাটা, লেবুর রস বা কমলা লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগান। আপনি চাইলে একটু বেশি পরিমাণে নিয়ে করতে পারেন এবং ৩/৪ দিন পর্যন্ত রেফ্রিজারেটরে রেখে ব্যবহার করা যাবে। প্রতিবার মুখ ধোয়ার সময় অল্প পরিমাণে নিয়ে মুখে ম্যাসাজ করে শুকিয়ে যাওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই মিশ্রণটি মাত্র ৭ দিন ব্যবহার করলে আপনার মুখের ব্রণ থেকে মুক্তি পাবেন। ➣ কাঁচা দুধ, হলুদ গুঁড়া, অ্যালোভেরা জেল মিশিয়ে হালকা হাতে ম্যাসাজ করে ৫ মিনিট পর ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলতে হবে। এতে ত্বকের কোমলতা বাড়বে এবং সেই সাথে ত্বকের ময়লা পরিষ্কার করবে। ➣ ১ চা চামচ উপটান, ১ চা চামচ মধু, ১ চা চামচ লেবুর রস, এবং ১ চা চামচ গোলাপ জল এই মিশ্রণ মুখে লাগিয়ে ২/৩ মিনিট ম্যাসাজ করে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলতে হবে। দিনে ৩ বার ব্যবহার করতে হবে। আপনি চাইলে এই মিশ্রণটি ৩/৪ দিন পর্যন্ত রেফ্রিজারেটরে রেখে সংরক্ষণ করতে পারেন। এই প্যাকটা প্রাকৃতিক প্যাকের মধ্যে অন্যতম। ➣ ১/২ চা চামচ আলু কুচি, ১/২ চা চামচ শশা কুচি, ১ চা চামচ কাঁচা হলুদ বাটা, ১ চা চামচ টক দই ও ১ চা চামচ পুদিনা পাতা দিয়ে মিশ্রণ তৈরি করে মুখে লাগিয়ে ২/৩ মিনিট ম্যাসাজ করে ঠান্ডা পানিতে ধুয়ে ফেলতে হবে। এই মিশ্রণটি ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের কালচে ভাব দূর করার সাথে সাথে মুখে আনবে লাবণ্যতা । ➣ পুদিনা পাতা ১ চা চামচ, দারুচিনি ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়া ১ চা চামচ, মধু ১ চা চামচ দিয়ে পেস্ট তৈরি করে মুখে লাগান। ৩/৪ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। এই মিশ্রণটি ৪/৫ ব্যবহারের করলেই ব্রণ থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে। উপরোক্ত প্যাকগুলো অবশ্যই প্রতিদিন কয়েকবার ব্যবহার করতে হবে। সকালে ঘুম থেকে উঠে আপনার মুখের ত্বক পরিষ্কার করতে হবে কারণ আপনার মুখে সারা রাত ধরে অনেক তেল জমা হয়ে থাকে আর এ থেকেও ব্রণের সৃষ্টি হয়। অবশ্যই ঘুমাতে যাওয়ার আগে আপনার মুখের ত্বক পরিষ্কার করতে হবে, কারণ এই সময়ে ত্বক পরিষ্কার না করলে সারা রাত ধরে আপনার মুখে রোগ জীবাণু বহন করে ব্রণের উপদ্রব বাড়িয়ে দেবে। এভাবে ত্বক পরিষ্কার পরিছন্ন রাখলে কিছু দিনের মধ্যে আপনি পাবেন ব্রণ মুক্ত লাবণ্যময় চেহারা।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (289 পয়েন্ট)

সকাল সকাল ঘুম থেকে উঠার পর ফ্রেশ হওয়ার আগে আঙ্গুলে থু থু নিয়ে ব্রণে দিন।ইনশাআল্লাহ ভাল হয়ে যাবে।তাছাড়া ছাফি সিরাফ খান,বা ক্লীনড়াসিন প্লাস জেল ব্যবহার করুন।ভাল হয়ে যাবে ইনশাআল্লাহ।

টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

282,826 টি প্রশ্ন

367,103 টি উত্তর

110,524 টি মন্তব্য

152,511 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...