45 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (6,525 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (6,525 পয়েন্ট)
প্রশ্ন: সূরা বাক্বারা:৫৩ নং আয়াতে আল্লাহ বলেন, আর যখন আমি মূসাকে কিতাব ও ‘ফুরকান’ দান করেছিলাম যাতে তোমরা সরল পথ প্রাপ্ত হও !

এখানে কিতাব ও ফুরকান বলতে কি আলাদা দুটো কিছু বোঝানো হয়েছে নাকি কিতাবের গুনবাচক শব্দ ব্যবহার করা হয়েছে!

উত্তর: কিতাব বলতে তাওরাত বুঝানো হয়েছে। এ ব্যাপারে সকল মুফাসসীর একমত। আর ফুরকানের ব্যাপারে একাধিক মত রয়েছে:

১. তাওরাত। কিতাবের বিশেষণ হিসেবে এসেছে। আরবীতে এমন ব্যবহার অনেক। তাওরাতকে ফুরকান বলা হলো কারণ এটি সত্য ও মিথ্যা এবং হালাল ও হারামের মাঝে পার্থক্য করে দেয়।

২. মূসা আ. এর প্রতি প্রেরিত শরীয়ত, যা হালাল-হারামের মাঝে পার্থক্যকারী।

৩. মূসা আ. কে দেওয়া মুজেযা তথা অলৌকিক ক্ষমতাসমূহ, যেগুলো সত্য-মিথ্যার মাঝে পার্থক্য সৃষ্টিকারী। যথা- লাঠি, শুভ্র হাত ইত্যাদি।

৪. আল্লাহর পক্ষ থেকে প্রেরিত সাহায্য, যা বন্ধু এ শত্রুর মাঝে পার্থক্য করে দিয়েছে।

৫. কুরআন। মুসা আ. কে ভবিষ্যতে কুরআন নাজিলের সংবাদ দেওয়া হয়েছিল আর তিনি তার উপর ঈমান তথা বিশ্বাস স্থাপন করেছিলেন। আর কুরআন হলো সত্য-মিথ্যা, হালাল-হারামের মাঝে পার্থক্যাকারী। এজন্যই ফুরকান বলা হয়েছে।

৬. অথবা ফুরকান দ্বারা কুরআন-ই উদ্দেশ্য। তবে এর পূর্বে একটি কর্মকারক বা মাফ’উল উহ্য আছে, তা হলো ‘মুহাম্মদ’। তাহলে পুরো বাক্যটার অর্থ দাঁড়ায়, “আমি মূসাকে আ. দিয়েছি তাওরাত, আর মুহাম্মদকে স. দিয়েছি কুরআন।” আরবীতে অতি পরিচিত ক্ষেত্রে কর্তৃকারক ও কর্মকারক উহ্য থাকার উদাহরণ অনেক।

সুত্র: পুরো ব্যাখ্যাটাই তাফসীরে রূহুল মা’আনী থেকে নেওয়া। অন্য কোন তাফসীরে এত বিস্তারিত আলোচনা পেলাম না।

মোঃ আরিফুল ইসলাম বিস্ময় ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। খানিকটা অস্তিত্বের তাগিদে আর দেশের জন্য বাংলা ভাষায় কিছু করার উদ্যোগেই ২০১৩ সালে তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে বিস্ময় ডট কম। পেশাগত ভাবে প্রোগ্রামার।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 টি উত্তর
27 সেপ্টেম্বর 2017 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন ভালোবাসার ধানক্ষেত (38 পয়েন্ট)

229,176 টি প্রশ্ন

293,758 টি উত্তর

81,154 টি মন্তব্য

114,834 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
  1. মোঃ খোকন মিয়া

    684 পয়েন্টস

  2. আল আমিন ভাই

    651 পয়েন্টস

  3. Samiul islam Sagor

    649 পয়েন্টস

  4. Sabirul Islam

    649 পয়েন্টস

  5. মো: বোরহান হোসেন

    603 পয়েন্টস

* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...