2,556 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (6,460 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (6,460 পয়েন্ট)
ডাঃ জাকির নায়েকঃ এটি স্বামীর জন্য অত্যাবশ্যকীয় নয় যে, দ্বিতীয় বিয়ের সময় তার প্রথমা স্ত্রীর কাছ থেকে অনুমতি নিতে হবে- কেননা কুরআন বলছে- ‘তুমি একাধিক বিয়ে করতে পারবে একটা মাত্র শর্তে যে, যদি তুমি তোমার স্ত্রীদের মধ্যে (পূর্ণাঙ্গভাবে)ন্যায়বিচার করতে পার’।

 

কিন্তু এটি অবশ্যই উত্তম যে, দ্বিতীয় বিয়ের আগে স্ত্রীর অনুমতি নেয়া এবং এটি তার কর্তব্য যে, সে তার দ্বিতীয় বিয়ের আগে স্ত্রীকে জানানো- কেননা ইসলাম বলে- যদি একাধিক স্ত্রী থাকে, তাহলে তোমাকে অবশ্যই তাদের মধ্যে ন্যায় বিচার করতে হবে’।

কারণ যদি প্রথম স্ত্রী অনুমতি দেয়, তবে স্বামী ও তার স্ত্রীর মধ্য অন্তরঙ্গ সম্পর্ক বিরাজ করবে।

কিন্তু এটি অত্যাবশ্যকীয় নয়, তবে যদি চুক্তিতে এটি উল্লেখ থাকে তবে তাকে অনুমুতি নিয়েই বিয়ে করতে হবে।

 

চুক্তিটি এরকম যে “তুমি স্ত্রী থাকাকালীন আমি কাউকে বিয়ে করব না"।

 

কিন্তু অন্য ক্ষেত্রে এটি বাধ্যতামূলক বরং ভাল।

মোঃ আরিফুল ইসলাম বিস্ময় ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। খানিকটা অস্তিত্বের তাগিদে আর দেশের জন্য বাংলা ভাষায় কিছু করার উদ্যোগেই ২০১৩ সালে তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে বিস্ময় ডট কম। পেশাগত ভাবে প্রোগ্রামার।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (70 পয়েন্ট)
প্রথমা স্ত্রীর অনুমতি ছাড়াই বিবাহ বৈধ (ইসলামের দৃষ্টিতে)।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

269,600 টি প্রশ্ন

352,285 টি উত্তর

104,326 টি মন্তব্য

142,705 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...