বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
1,789 জন দেখেছেন
"অন্যান্য ধর্ম" বিভাগে করেছেন (11 পয়েন্ট)

1 উত্তর

+1 টি পছন্দ
করেছেন (1,773 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
হযরত মূসা (আঃ) এর সম্প্রদায়ের মাতৃভাষা ছিল ইবরাণী বা হিব্র“। তাই এ ভাষায় ‘তাওরাত’ নাজিল হয়। হযরত ঈসা (আঃ) এর জাতির মাতৃভাষা ‘সুবিয়ানি’ তাই এ ভাষায় তাঁর প্রতি ‘ইঞ্জিল’ অবতীর্ণ হয়। হযরত দাউদ (আঃ) এর গোত্রের মাতৃভাষা ছিল ইউনানী, তাই ‘যাবুর’ ইউনানী বা আরামাইক ভাষায় অবতীর্ণ হয়। বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মদ (দঃ) এর উম্মতের মাতৃভাষা ছিল আরবি, তাই মহাগ্রন্থ আল-কুরআন তাঁর মাতৃভাষা আরবিতে নাজিল হয়।
করেছেন (98 পয়েন্ট)
সঠিক উত্তর দিন

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
13 সেপ্টেম্বর 2017 "ইতিহাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন anas khan (12 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
24 জুন 2016 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন tanvirmilon (19 পয়েন্ট)
3 টি উত্তর
23 জানুয়ারি 2018 "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Jante Chai 415 (14 পয়েন্ট)

330,134 টি প্রশ্ন

420,932 টি উত্তর

130,699 টি মন্তব্য

180,606 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...