বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
632 জন দেখেছেন
"ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে করেছেন (16 পয়েন্ট)
কেও যদি কোন মেয়ের সাথে শারিরীক সম্পর্ক না করে একান্তে হাত মারে তবে কি সেটা যেনা নাকি ব্যাভিচার।আর কোরআন এর একটি আয়াতে প্রায় এমনটা বলা হয়েছে যে যেনা/ব্যভিচার কারীনির সাথে যেনা/ব্যভিচারিণী/মুশরিকের বিয়ে হবে,এর মানে কি আমি হাত মেরে থাকি বলে আমার বউ কি অন্যের সাথে শারিরীক সম্পর্ক আছে এমন মেয়ে হতে পারে।ধরুন এইসব পাপ তা জানার আগে আমার ১১-১২বছরে এক মেয়ের সাথে শারিরীক সম্পর্ক করি মহান আল্লাহ কি সেটাও গুনার কাতারে ধরবে?

1 উত্তর

+2 টি পছন্দ
করেছেন (5,819 পয়েন্ট)

কেও যদি কোন মেয়ের সাথে শারিরীক সম্পর্ক না করে একান্তে হাত ব্যাবহার তবে সেটা যেনা বা ব্যাভিচার হবেনা আর কোরআন যে আয়াতে এমনটা বলা হয়েছে যে যেনা/ব্যভিচার কারীনির সাথে যেনা/ব্যভিচারিণী/মুশরিকের বিয়ে হবে,এর মানে হল এমনটি হওয়া উচিত, এর মানে এই নয় যে আপনি কোন খারাপ কাজ করে থাকলে আপনার স্ত্রীও করেছে । ১১-১২বছরে অবশ্যই আপনি বুজমান ছিলেন এবং আপনার ঐ কাজটি গুনাহ হয়েছে আপনাকে একাজ ভবিষ্যতে নাকরার শরতে এবং অতীতের জন্য লজ্জিত হয়ে তওবা করতে হবে ।

করেছেন (374 পয়েন্ট)

ছেলেদের যেন নারীর প্রতি মাত্রাতিরিক্ত যৌন আকর্ষণ এবং তারা সেই আকর্ষণের জন্য নারীবিহীন জীবনে ভীষণ অতিরিক্ত পরিমাণে অস্বস্তি অনুভব করে ও নারীর প্রতি ভীষণ অতিরিক্ত পরিমাণে আকর্ষণ অনুভব করে এবং তার উপর মেয়েরাও তাদের দিকে আকর্ষিত হওয়ার জন্য ভীষণ মেকআপ করে,সুগন্ধি মাখে এবং ছোটোখাটো পোশাক পড়ে পুরুষের সামনে দিয়ে যায় তখন যদি সেই ছেলেটি নিজেকে কন্ট্রোল করতে না পেরে যৌনমিলন করে ফেলে তখন ছেলেটি সমাজ,আইনের কাছে ভীষণ ঘৃণ্য হয় এবং প্রচুর শাস্তিপ্রাপ্ত হয় কিন্তু মেয়েটি যে ছোটো পোশাক পড়ে,সুগন্ধি মেখে তাকে আকর্ষিত করে উত্তেজিত করেছে তার জন্য তাকে কোনো শাস্তিপ্রদান করা হয় না কেন? যদি এরকম হয় এতে শুধু ছেলেটারই দোষ তাহলে কেন আল্লাহ মেয়েদের প্রতি এত টান সৃষ্টি করেছেন? অল্প টান সৃষ্টি করেননি কেন? অনুগ্রহ করে সঠিক উত্তরটি দেবেন

করেছেন (5,819 পয়েন্ট)

আল্লাহ যাকে যেভাবে সৃষ্টি করেছেন তা সেভাবেই 

ঠিক আছে। এটা চাই আমাদের বুঝে আসুক  আর

 না আসুক। তিনিই সবকিছু ভাল জানেন তা বিশ্বাস

করতে হবে। নারীদের সৃষ্টি করা হয়েছেই মূলত

আকর্ষণীয় ভাবে। এবং তাদের সে আকর্ষণীয় ভাব

প্রকাশ করতে নিষেধ করা হয়েছে। তাদের বলা হয়েছে

বলা হয়েছে নারীরা যেন স্বামী ছাড়া অন্য কারো কাছে

 সজ্জা প্রকাশ না করে। বলা হয়েছে 

আবৃত অবস্থায় থাকতে। নারী পুরুষ উভয়কেই বলা

 হয়েছে দৃষ্টি অবনত রাখতে।

এখন সমাজে যা হচ্ছে তার জন্য উভয়েই দায়ী।

কারন পর্দা প্রথা কেউ মানছেনা। 

কোরআন হাদীসের বিধান কেও গ্রহণ করছেনা।

এখন কথা হল পৃথিবী হল একটা পরিক্ষা কেন্দ্র,

যে যতটুকু মেনে চলবে সে ততটুকু রেজাল্ট পাবে। 

করেছেন (374 পয়েন্ট)

হ্যাঁ কিন্তু কোনো ছেলে মেয়েদের এই আকর্যণে অতিরিক্ত আকৃষ্ট হয়ে তাকে ধর্ষণ করে ফেলে তখন সমাজ কেন সমস্ত দোষ সেই ছেলেটাকেই দেয় এবং শাস্তিও দেয় , মেয়েটাকে কিছু বলে না কেন? তাহলে যদি তাই হয় তাহলে সেই ছেলেটির করণীয় কী হস্তমৈথুন করে উত্তেজনা শেষ করে দেওয়া? আর এরকম কিছু ঘটলে সমাজ কেন পুরো দোষটাই ছেলেটাকে দেয় মেয়েটি যে তাকে আকৃষ্ট করে উত্তেজিত করেছে তার জন্য তাকে কেন কিছু বলা হয় না এবং শাস্তিপ্রদান করা হয় না? সমাজ কেন এটা বোঝেনা যে ছেলেটি তার নারীর প্রতি স্বাভাবিক টানের জন্য এবং মেয়েটির ছোটোখাটো পোশাকের সাজের জন্যে সে অতিরিক্ত উত্তেজিত হয়ে এ কাজ করে ফেলেছে?

করেছেন (17,789 পয়েন্ট)

ধর্ষণের পুরো দোষ অবশ্যই ছেলেটির। এমনতো না যে সকল পুরুষের মনেই সে ধর্ষণের ইচ্ছা জাগ্রত করে!

যে ধর্ষণ করে সে এমনিতেই বিকৃত মস্তিষ্কের অধিকারী।



ইসলাম আপনাকে বলেছে মেয়ে মানুষের দিকে চোখ তুলে না তাকাতে, আপনি তাকান কেনো? আর তাকালেও কুনজর কেনো দিবেন??? এখানে সমস্যাতো আপনার স্বভাব-চরিত্রে।

মেয়ে অশালীন পোষাক পরলে তার শাস্তি সে পাবে, কিন্তু এখানে আপনি জড়াতে যাবেন কোন দুঃখে?


আপনি মেয়ে নন, সম্ভবত কস্মিনকালে আপনার নিকটাত্মীয় কোনো মেয়ে ধর্ষিত হয়নি, তাই আপনি বুঝবেননা ধর্ষিত হওয়ার যন্ত্রণা কতটুকু। 


ইসলাম ধর্ষণকারীকে (যদি বিবাহিত হয়) পাথর নিক্ষেপ করে হত্যার আদেশ দিয়েছে। আপনি এর সাথে ধর্ষিতার বিরুদ্ধে কিছু করার চেষ্টা করলে সেটা হবে আল্লাহর আইনের সাথে বাড়াবাড়ি। 

নিজেকে পরিশুদ্ধ করুন, ইসলামের ২% মানবেন ৯৮% মানবেননা এরকম হলে মুসলিম হিসেবে পরিচয় দেয়া বন্ধ করে দেন।

করেছেন (374 পয়েন্ট)

আর যদি ধর্ষক অবিবাহিত হয় তাহলে তার শাস্তি কী ?

ভাই আমি তখন এক মনোভাব নিয়ে মন্তব্যটি করছিলাম এবং মন্তব্য হয়তো একটু খারাপ মনোভাবের হয়েছে তাই বলে আপনার রাগ দেখিয়ে মন্তব্যের উত্তর দেওয়া উচিত নয় |

করেছেন (17,789 পয়েন্ট)

এসব বিষয় যারা হালকা ভাবে নেয় তাদের ভালো মানুষ হিসেবে স্বীকার করতে অন্তত আমি রাজি নই, আমার ব্যক্তিগত বিচারে ধর্ষণ হত্যার চাইতেও জঘন্য অপরাধ।


অবিবাহিত ব্যক্তির শাস্তি ১০০ টি বেত্রাঘাত এবং ১ বছরের নির্বাসন।

করেছেন (374 পয়েন্ট)

ভাই ধন্যবাদ | তবে এই শাস্তটা কী ইসলামিক শাস্তি?

করেছেন (17,789 পয়েন্ট)

হ্যা।                    

টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
01 ডিসেম্বর 2015 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Talgas (16 পয়েন্ট)
1 উত্তর
20 এপ্রিল "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Saiyan khan (3 পয়েন্ট)
4 টি উত্তর
31 ডিসেম্বর 2017 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন দেলোয়ার হোসাইন। (9 পয়েন্ট)

300,479 টি প্রশ্ন

388,357 টি উত্তর

117,371 টি মন্তব্য

165,883 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...