692 জন দেখেছেন
"রূপচর্চা" বিভাগে করেছেন (4,488 পয়েন্ট)
আমার বয়স ২৩ বছর।  আমার মুখে কিছু দাগ পড়েছে।  জানতে পারি এগুলো মেছতা। বেশ কিছুদিন আগে এই দাগ পড়েছে, প্রায় ১-১.৫ বছর হবে। তবে খুব বেশি নয়। এর জন্য তেমন করে চিকিৎসা করা হয়নি। শুধু মাত্র "বেটনোভিট-এন" ক্রিমটা ব্যবহার করেছি,  কিন্তু continue নয়।  তেমন কোনো ফলাফল পাইনি। এখন আমি চাই এই মেছতাকে মুখ থেকে চিরতরে দুর করতে।  কি করলে এটা সম্ভব দয়া করে জানাবেন।
কিছু কথা:-
আমি রাত জেগে পড়াশুনা করি।
সকাল ১০টা পর্যন্ত ঘুমাই।
খাবার রুচি কম।
মেসে থাকি।
অন্য কোন ব্যাধি নেই।
প্রতিদিন এক কাপ চা খাই।
রাতে একটি সিগারেট খাই।

NBঃ দয়া করে সঠিক পরামর্শ দিবেন।  
আপনার একটি সঠিক পরামর্শ হতে পারে অন্যের জন্য অমুল্য সম্পদ।

5 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (7,342 পয়েন্ট)
আপনি মুখে  ১
চা চামচ সাদা জিরে গুঁড়া, ১চা-চামচ
হলুদ গুঁড়া ১চা চামচ সরষে গুড়া ও
১ চা-চামচ আটা মিশিয়ে পেস্ট
বানিয়ে মেচতার উপর লাগান। বিশ
মিনিট রেখে ঠান্ডা পানি দিয়ে মুখ
ধুয়ে ফেলুন। এভাবে কিছু দিন উইজ করুন, এবং মেছটা গার্ড ক্রিমটা কিছু দিন  রাতে  ব্যববহার করলে মেছতা ও দাগ দূর হয়ে যায় ।

মানিক রাজ জ্ঞানের জন্যই জ্ঞানকে ভালোবাসেন, জ্ঞানের প্রতি রয়েছে অতৃপ্ত তৃষ্ণা আর তাই দীর্ঘদিন যাবত ইন্টারনেটের এর সাহায্য অজানাকে জানার চেষ্টা করেন। নিজে জ্ঞান অর্জনের পাশাপাশি অন্যকে জানানো ও নিঃস্বার্থভাবে অপরকে সাহায্য করার জন্য বিস্ময় অ্যানসারসকে বেছে নিয়েছেন। বিস্ময় অ্যানসারস এর সাথে আছেন সমন্বয়ক হিসেবে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (5,757 পয়েন্ট)
মেছটা গার্ড ক্রিম রাতে রাতে
ব্যববহার করুন।
আশা করি ভালো ফল পাবেন।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (6,940 পয়েন্ট)
রেমি স্পট ক্রীম ব্যবহার করুন,  নিশ্চিত মেছতা,  দাগ কমে যাবে।  এছাড়া অব্যশই চেহারার পরিস্কারের ওপর গুরুত্ব দিতে হবে । চেহারা ছোঁয়ার আগে অব্যশই হাত ধুয়ে নিন , সবসময় নিজের তোয়ালে , লেপ পরিষ্কার রাখুন । প্রতিদিন সকাল ও রাতে চেহারা পরিস্কার করুন এবংমেক-আপ করার পর অব্যশই ভালভাবে নিজেদের চেহারা পরিস্কার করুন ,যাতে চেহারার রোগজীবাণু প্রতিরোধ করা যায় ।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (10,785 পয়েন্ট)
মেছতা দূর করার মাক্স---

 

 

মেছতা প্রতিরোধক মাস্ক : ১. ডিম ও লেবু রস-

 

কিছু লেবু রস এবং একটি ডিমের সঙ্গে মিশিয়ে করুন তার পর চেহারায় রেখে দেন । অর্ধেক ঘন্টা পর পানি দিয়ে তা ধুয়ে ফেলুন । অব্যাহতভাবে দু’সপ্তাহ ব্যবহার করলে আপনার ত্বকের সূক্ষ্মরন্ধ্র ছোট হয়ে যাবে , ফুস্কুড়িও কমে যাবে এবং চামরা আরো নরম ও ফর্সা হবে ।

 

২.ঘৃতকুমারী পাতার রস , শসা ও মধু-

 

ঘৃতকুমারী পাতার রস বিষাক্ত উপাদানের প্রতি বিশেষ ভুমিকা পালন করতে পারে । এ জন্য চেহারা মেছতার ওপর কিছু ঘৃতকুমারী পাতার রস রেখে দেয়, চেহারার ত্বকের নরম হবে এবং কিছু ক্ষতচিহ্ন দেখা যায় না । যদি আপনার মুখের মেছতা খুব গুরুতর , তাহলে ঘৃতকুমারী পাতার রস পানির সঙ্গে মিশিয়ে খান, প্রতিদিন দু’বার ,প্রত্যেকবার ১০ মিলিলিটার ,কার্যকরভাবে মেছতা প্রতিরোধ করা যায় ।

 

ঘৃতকুমারীর একটি পাতা, মধু এ একটি ছোট শসা ছোট করে মিশিয়ে মাস্ক করে এবং মেছতার ওপর রেখে দিন, চামড়ার ফুস্কুড়িও প্রতিরোধ করতে পারে । উল্লেখ্য যে, মুখে যদি মেছতা থাকে, তাহলে মেক-আপ না করা ভালো । কারণ মেক-আপ ক্রিম ত্বকের সূক্ষ্মরন্ধ্রের স্বাভাবিক রূপান্তর বাধা দেবে এবং মুখের মেছতা গুরুতর হবে ।

জ্ঞানার্জনের তীব্র আকাঙ্ক্ষার পাশাপাশি নিজের অর্জিত জ্ঞানকে ছড়িয়ে দিতে ও অপরের সমস্যার সমাধান করে দিতে ভারতবর্ষ থেকে নিয়মিত সময় দেন বিস্ময়ে। পড়াশোনার পাশাপাশি ফিটনেস সম্বন্ধে খুবই সচেতন, ডিফেন্স লাইনে যাওয়ার প্রচন্ড ইচ্ছা। বিস্ময় ডট কমের সাথে আছেন সমন্বয়ক হিসাবে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (3,120 পয়েন্ট)
আপনি Lalita Herbal Mesta Gold ক্রীমটা ব্যবহার করুন।

৭৫ গ্রাম ৯০Tk/-
আশা করি ,নিয়মিত ব্যবহারের ২১ দিনেই ফলাফল দেখতে পাবেন।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
09 নভেম্বর 2018 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন junayet ahmed polok (7 পয়েন্ট)
1 উত্তর
02 ফেব্রুয়ারি 2017 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Msd rana masud (9 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
04 ফেব্রুয়ারি 2015 "স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Tarek Momin (9 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
30 মে 2015 "রূপচর্চা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Rongdyi Ambros (7 পয়েন্ট)

283,383 টি প্রশ্ন

367,860 টি উত্তর

110,874 টি মন্তব্য

152,902 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...