12,076 জন দেখেছেন
"যৌন" বিভাগে করেছেন (2,489 পয়েন্ট)
বন্ধ করেছেন
সঠিক উত্তর জানাবেন। অবশ্যই দলিল সহ।
না জানলে বা রেফারেন্স ছারা উত্তর দিবেন না।
বন্ধ

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (3,312 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

জনাব! স্ত্রীর স্তনের দুধ স্বামীর জন্য জায়েজ নেই। কুরআন ও হাদীস দ্বারা বোঝা যায়, কেবল মা কিংবা দুধমা’র দুধ পান করা যায়। তাও দুধ পান করার বয়সের মধ্যে তথা ২ বছরের মধ্যে, এর বেশি নয়। তাই, বিয়ে করার পর স্ত্রীর দুধ পান করা স্বামীর জন্য জায়েজ নেই। স্ত্রীর স্তন চোষার সময় যদি স্বামীর মুখে দুধ চলে আসে, তাহলে তা ফেলে দিতে হবে, আর যদি স্ত্রীর দুধ পেটে চলে যায়, তাহলে কবিরা গুনাহ হবে। এর কারণে তাকে খাঁটি দ্বিলে তওবা করতে হবে। কেননা, সে দুধের হকদার তাঁর ছেলে-মেয়েরা। আল্লাহ তায়ালা পবিত্র কুরআনে এরশাদ করেছেনঃ

"আর মায়েরা তাদের সন্তানদেরকে পূর্ণ দু’বছর দুধ পান করাবে, (এটা) তার জন্য যে দুধ পান করাবার সময় পূর্ণ করতে চায়। আর পিতার উপর কর্তব্য, বিধি মোতাবেক মাদেরকে খাবার ও পোশাক প্রদান করা। সাধ্যের অতিরিক্ত কোন ব্যক্তিকে দায়িত্ব প্রদান করা হয় না। কষ্ট দেয়া যাবে না কোন মাকে তার সন্তানের জন্য, কিংবা কোন বাবাকে তার সন্তানের জন্য। আর ওয়ারিশের উপর রয়েছে অনুরূপ দায়িত্ব।......." (সুরা বাকারা ২৩৩)।

তবে, স্ত্রীর স্তন মর্দন করা, (দুধ না আসে পরিমাণ) চোষা ইত্যাদি জায়েজ আছে। আল্লাহ তা'য়ালা পবিত্র কুরআনে এরশাদ করেছেন, "অর্থঃ তোমাদের স্ত্রী তোমাদের ফসলক্ষেত্র। সুতরাং তোমরা তোমাদের ফসলক্ষেত্রে গমন কর, যেভাবে চাও। আর তোমরা নিজদের কল্যাণে উত্তম কাজ সামনে পাঠাও। আর আল্লাহর তাকওয়া অবলম্বন কর এবং জেনে রাখ, নিশ্চয় তোমরা তাঁর সাথে সাক্ষাৎ করবে । আর মুমিনদেরকে সুসংবাদ দাও।" (সূরা বাকারা, আয়াত নং ২২৩)।

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1,135 পয়েন্ট)
স্বামীর জন্য বৈধ তার স্ত্রীর স্তনবৃন্ত চোষণ করে উভয়ের যৌন উত্তেজনা বৃদ্ধি করা। সে ক্ষেত্রে যদি স্ত্রীর দুধ তার পেটে চলে যায়, তাহলে তাতে কোন প্রকার ক্ষতি হয় না এবং স্ত্রী তার মা হয়ে যায় না। কারণ দুধ পানের মাধ্যমে হারাম হওয়ার যে সব শর্ত আছে, তা হলঃ

১। দুই বছর বয়সের মধ্যে দুধ পান করতে হবে। সুতরাং তার পরে বড় অবস্থায় দুধ পান করলে হারাম হবে না।

২। পাঁচবার পান করতে হবে।

সুতরাং ২/৪ বার পান করলে কোন প্রভাব পড়ে না। আর বড় অবস্থায় ৫ বারের বেশী পান করলেও কোন ক্ষতি হয় না। (ইবনে বায, ইবনে উষাইমীন)
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর
29 ডিসেম্বর 2014 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মফিজ (10 পয়েন্ট)
1 উত্তর
1 উত্তর
12 ফেব্রুয়ারি 2015 "যৌন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আতিক ইয়াসির (2,327 পয়েন্ট)
1 উত্তর
08 জুলাই 2015 "ধর্ম ও আধ্যাত্মিক বিশ্বাস" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Question (33 পয়েন্ট)

283,487 টি প্রশ্ন

367,942 টি উত্তর

110,927 টি মন্তব্য

152,971 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...