বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
877 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (6,513 পয়েন্ট)
করেছেন (5,622 পয়েন্ট)
স্থানান্তরিত করেছেন
সর্দি অর্থাৎ সাইনুসাইটিস বা শ্বাসযন্ত্রেনের কোন প্রদাহ হলে সেখানে প্রচুর পরিমানে হিসটামিন নামক মেডিয়েটর ক্ষরিত হয় যা রক্তনালিকার ভেদ্যতা বাড়িয়ে দেই যার ফলে কিছু তরল সর্দি আকারে বের হয়ে আসে এবং জীবাণুকে পাতলা ও বের করে দেওয়ার চেষ্টা করে।
করেছেন (1,520 পয়েন্ট)
আপনি সমন্বয়ক হয়ে পুরাতন প্রশ্নে উত্তর করতেছেন কেন???আর যদি করাই যায় তাহলে আমাদের বাধা দেয়া হয় কেন??

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (6,513 পয়েন্ট)
সর্দি বা ঠাণ্ডা লাগলে সাধারণত নাক দিয়ে পানি পড়ে। রোগজীবাণু বা ভাইরাসে আক্রান্ত হলে আমাদের সর্দি লাগে। শরীরে ভাইরাস আক্রমণ করার পরও কিছু ভাইরাস শ্বাসনালীর ভেতরের দেয়ালে আক্রমণ করে দ্রুত বংশবিস্তার করে। ফলে মিউকাস মেম্ব্রেন এর কিছু কিছু কোষ নষ্ট হয়ে যায়। তখন মৃত কোষ এবং ভেতরের জলীয় অংশ মিশে পানির মতো হয়ে নাক দিয়ে বের হয়।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
1 উত্তর

330,431 টি প্রশ্ন

421,176 টি উত্তর

130,805 টি মন্তব্য

180,744 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...