বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
187 জন দেখেছেন
"অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে করেছেন (6,513 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (6,513 পয়েন্ট)

কিউআর কোড বা কুইক রেসপন্স কোড হচ্ছে এক ধরনের মেট্রিক্স বারকোড যা দ্বিমাত্রিক চিত্রের মতো হয়ে থাকে। এই কোডটির ব্যবহার বর্তমানে স্মার্টফোনে সবচেয়ে বেশি দেখা যায়। সাধারণত কোনো কোড, লেখা বা ওয়েব ঠিকানা দ্রুত মোবাইল ফোনে পাঠানোর জন্য কিউআর কোড ব্যবহার করা হয়। আজ দেখাবো কীভাবে আপনার অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসের ক্যামেরা ব্যবহার করে কিউআর কোড ব্যবহার করতে পারবেন।

 

কেন কিউআর কোড

কিউআর কোড ব্যবহার করে আপনি ওয়েব থেকে নিমিষেই ব্যবহারকারীর স্মার্টফোনে ওয়েব ঠিকানা বা বিভিন্ন তথ্য পাঠিয়ে দিতে পারবেন। ধরুন আপনি আপনার ওয়েবপেজটি ভিজিটরদের মোবাইলের মাধ্যমেও দেখার সুযোগ করে দিতে চান। সাধারণত আপনার ওয়েবসাইটের ঠিকানা মোবাইলের ব্রাউজারে টাইপ করেই প্রবেশ করতে হবে ব্যবহারকারীদের। কিন্তু কিউআর কোড প্রদর্শন করলে অ্যান্ড্রয়েড ও অন্যান্য স্মার্টফোন ও ট্যাবলেট ডিভাইস (যেগুলো কিউআর কোড স্ক্যান সাপোর্ট করে) ব্যবহারকারীরা তাদের ডিভাইসের স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশনটি চালু করে ক্যামেরা কম্পিউটার স্ক্রিনের দিকে তাক করলেই হবে। মূহুর্তেই কিউআর কোডে এনকোড করা ঠিকানাটি তাদের ডিভাইসে ফুটে উঠবে এবং সেখান থেকে এক ক্লিকেই ব্যবহারকারীরা ব্রাউজারে সেই ঠিকানাটি ভিজিট করতে পারবেন।

এবারে আসুন জেনে নিই আমাদের সবচেয়ে পছন্দের কিউআর কোড স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশনের কথা।

 

নিওরেডার

নিওরেডার আমাদের দেখা সবচেয়ে দ্রুত কিউআর কোড স্ক্যানার। অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশনের তুলনায় এটি তুলনামূলক দ্রুত কাজ করে। আর এর আরেকটি ভালো দিক হলো এটি দিয়ে বারকোড বা কিউআর কোড স্ক্যান করার জন্য ইন্টারনেট সংযোগের প্রয়োজন হয় না। বেশিরভাগ (যদি সবগুলো না হয়ে থাকে) স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশনগুলোই ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়া কাজ করতে পারে না। তাই আপনি যদি কোনো একটি কিউআর কোডের আড়ালে কী ঠিকানা বা বার্তা লুকায়িত আছে তা দেখতে চান, তাহলে তার জন্য আপনার ইন্টারনেট সংযোগ চালু করতে হবে। কিন্তু সারাক্ষণ ইন্টারনেট সংযোগ চালু রাখলে ডেটা খরচ ও ব্যাটারি খরচ দুই-ই বেড়ে যায়। তাই নিওরেডার আমাদের বিচারে সবচেয়ে সেরা কোড স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশন।

নিওরেডার প্রায় সব ধরনের কোডই স্ক্যান করতে পারে। কিউআর, ডেটাম্যাট্রিক্স, এজটেক, ইএএন, ইউপিসি ইত্যাদি। আর এটি ব্যবহারও পানির মতো সোজা। অ্যাপ্লিকেশনটি চালু করুন, ক্যামেরাটি কোডের দিকে তাক করুন, ব্যস! এক সেকেন্ডেই কোডে থাকা মেসেজটি চলে আসবে আপনার মোবাইলের স্ক্রিনে। যদি এটি কোনো ওয়েব ঠিকানা হয়, তাহলে আপনি সেখান থেকেই সরাসরি ব্রাউজ করতে পারবেন।

neoreader app

গুগল প্লে স্টোর লিংকঃ নিওরেডার

যাদের ডিভাইসে ইতোমধ্যেই অন্যান্য স্ক্যানার রয়েছে, তারাও যেন চেখে দেখতে পারেন অত্যন্ত দ্রুতগতির এই স্ক্যানার অ্যাপ্লিকেশনটি, এই জন্যই উপরে কিউআর কোডটি দেয়া হয়েছে। আর যাদের নিওরেডার আছে এবং আরও কিছু স্ক্যানার পরীক্ষা করে দেখতে চান, তারা দেখতে পারেন এই লিংকের গুগল গগলস এবং স্ক্যান

0 টি পছন্দ
করেছেন (10,951 পয়েন্ট)
QR Barcode Scanner এই অ্যাপটা নামিয়ে দেখতে পারেন।
জ্ঞানার্জনের তীব্র আকাঙ্ক্ষার পাশাপাশি নিজের অর্জিত জ্ঞানকে ছড়িয়ে দিতে ও অপরের সমস্যার সমাধান করে দিতে ভারতবর্ষ থেকে নিয়মিত সময় দেন বিস্ময়ে। পড়াশোনার পাশাপাশি ফিটনেস সম্বন্ধে খুবই সচেতন, ডিফেন্স লাইনে যাওয়ার প্রচন্ড ইচ্ছা। বিস্ময় ডট কমের সাথে আছেন সমন্বয়ক হিসাবে।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
19 অগাস্ট 2015 "অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন manik (2,833 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
03 মার্চ 2016 "অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মো:আবু সিয়াম (154 পয়েন্ট)
1 উত্তর
14 নভেম্বর 2018 "অ্যান্ড্রয়েড" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Luv (20 পয়েন্ট)

311,562 টি প্রশ্ন

401,177 টি উত্তর

123,155 টি মন্তব্য

172,727 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...