একজন মানুষের কখন, কোথায়, কার সাথে বিয়ে হবে, এটা কি আল্লাহ্‌ পূর্বেই নির্ধারিত করে রেখেছেন?

6,465 জন দেখেছেন
15 জানুয়ারি 2016 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আরিফুল (6,497 পয়েন্ট)
19 সেপ্টেম্বর পূনঃরায় খোলা করেছেন Ahmedkae
প্রশ্নটি আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন...

3 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
15 জানুয়ারি 2016 উত্তর প্রদান করেছেন আরাফাত হোসেন (221 পয়েন্ট)
16 জানুয়ারি 2016 সম্পাদিত করেছেন মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ
আল্লাহ তাআলা কুরআনে ইরশাদ করেছেন,
ﻭَﺧَﻠَﻘْﻨَﺎﻛُﻢْ ﺃَﺯْﻭَﺍﺟًﺎ ‏[ ٧٨ : ٨
আমি তোমাদেরকে জোড়া জোড়া সৃষ্টি করেছি, {সূরা নাবা-৮}
সুতরাং বুঝা গেল জীবনসঙ্গী কে হবে? তা আল্লাহ তাআলা জানেন। কিন্তু বান্দা জানে না। তাই বান্দা সর্বোচ্চ চেষ্টা করবে ভাল পাত্রি/পাত্র দেখে বিবাহ করতে। এটি তাকদীরের বিষয়। এ বিষয়ে আলোচনা করতে রাসূল সাঃ নিষেধ করেছেন।
16 জানুয়ারি 2016 মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন মুহাম্মাদ আব্দুল্লাহ (1,769 পয়েন্ট)
উত্তরগুলো এভাবে সরাসরি কপি পেস্ট না করে, একটু সৃজনশীলতার পরিচয় দিলে ভাল হয়।
12 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন এজাজ আহম্মেদ মুন্না (6 পয়েন্ট)
একটু ভালো করে সাজিয়ে লিখা যেত।
14 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন রিয়াজ আহমেদ (12 পয়েন্ট)

কিন্তুু পরে যদি Divorce হয়ে যায় তাহলে এটা  ও কি আল্লাহ লিখে রাখে? আবার পরে যদি আবারো কাউ বিয়ে করে ওটা ও কি আল্লাহ জোরা লিখে রাখে?

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
11 সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদান করেছেন Oreoo (125 পয়েন্ট)

সব কিছুর মালিক আল্লাহ্‌ ..... রিজিক এর মালিক যেমন আল্লাহ্‌ , কিন্তু রিজিক এর জন্য কষ্ট আপনার করে নিতে হবে ....... 

আল্লাহ্‌ নিশ্চয়ই বান্দার ভালো দিক টাকেই প্রছন্দ করেন, আর আগে থেকে তার অবগতি আল্লাহ্‌ পাক এর কাছেই থাকে ...... 

আপনার বিবাহ হবে, কার সাথে হবে ... সব কিছুই আল্লাহ্‌ পাক জানেন ... কিন্তু পরিক্ষ্যা হলো > আপনি কি নেক মহিলা টাকেই কি জীবন সঙ্গি করছেন কিনা .. যার দ্বীন আর ইমান এর উপর পুর্ন বিশ্বাস আছে 

13 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন ডিকে দিলীপ (8 পয়েন্ট)
অবশ্যই বিস্বাস করি এ এস কিছু বিধাতারই হাতে ।
17 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন উজ্জল আহম্মেদ (2,436 পয়েন্ট)

তাহলে প্রেম অতঃপর বিয়ে এটাও কি আল্লাহ লিখে 

রাখছেন??

যদি তাই হয় তবে একজন প্রেমিক বা প্রেমিকা

কেন তার প্রেমিক বা প্রেমিকা কে বিয়ে করার 

জন্য উঠে পরে লাগে? 

তাদের তো এটাই ভরসা করা উচিৎ যে প্রেম করেছি,

যদি বিয়ে আল্লাহ লিখে রাখেন তবে হবেই । 

যদি দুজন প্রেমিক প্রেমিকার বিয়ে হয়ই তবে কেন

আল্লাহ তায়ালা অবৈধ সম্পর্কের মাধ্যমে তাদের

বিয়ে করালো?

ইসলামে তো প্রেম অবৈধ ।।।

আর একটা কথা যদি এমনটাই হয় তবে মানুষ

কেন ভালো পাত্রী সন্ধান করে??

আর একজন অস্বাভাবিক মানুষ কেন ভালো বা সুন্দরী

স্ত্রী পায়না ??

17 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন Oreoo (125 পয়েন্ট)

আপনি তো বল্লেন > প্রেম করা হারাম ........ তো এমন কেন আশা রাখবেন প্রেম এর পর বিয়া করতে হবে ? ? 

হারাম করে সওয়াব আদায় করতে চান ? 

আর আল্লাহ্‌ যা করেন তার ভিতর নিশ্চয় ভালো কিছুই লুকাতিত থাকে, এখন আপনি যদি খুন করে ভাবেন মাফ তো আল্লাহ্‌ করবেই, তাহলে তো আর হবে না ..... আমি কিন্তু বলেছি রিজিক এর মালিক আল্লাহ্‌ কিন্তু আয় আপনার নিজের হাত দিয়েছে তা দিয়ে করে নিতে হবে, ঠিক তেমনি আল্লাহ্‌ আপনাকে বিবেক/বুদ্ধি দিয়েছে, আপনি জানেন প্রেম হারাম, তাহলে কেন করবেন, আবার তাকেই বিয়ে করে বলছেন আল্লাহ্‌ যখন লিখে রাখছে, তাকেই হয়তো বিয়ে করছেন ...... 


এটা পাগল এর প্রলাপ ছাড়া আর কিছুই না 

18 সেপ্টেম্বর মন্তব্য করা হয়েছে করেছেন উজ্জল আহম্মেদ (2,436 পয়েন্ট)
18 সেপ্টেম্বর সম্পাদিত করেছেন উজ্জল আহম্মেদ

প্রশ্নের উত্তর বা মন্তব্যে কাউকে হেয় করা হয় এমন 

উত্তর বা মন্তব্য করবেন না । কোন কিছু জানতে চাওয়া 

কখনো পাগলের প্রলাপ হয় না । 

আর আপনি যদি আমার মন্তব্য টা ভালো করে 

পড়েই রিপ্লাই দিয়ে থাকেন তবে পাগলের প্রলাপ

বলতেন তো দূরে থাক । ভালো ভাবে ব্যাখ্যা সহ রিপ্লাই 

দিতেন । 

আমি জানতে চেয়েছিলাম যে বিয়ে যদি আল্লাহ নিজেই 

জোড়ায় জোড়ায় লিখে রাখেন তবে ইসলামে নিষেধ

অবৈধ প্রেম করেও কেন তারা একে অপরকে পাওয়ার

জন্য উঠে পরে লাগে , পালিয়ে গিয়েও বিয়ে করে অনেকে । 

অনেক সময় দেখা যায় যে তাদের বিয়ে টা হয়েই যায় ,

আবার হয়না অনেক সময় । 

যারা এভাবে পালিয়ে গিয়ে বিয়ে করলো । তারা কেন 

পালালো । যদি আল্লাহ নিজেই লিখে রাখেন তবে 

তাদের বিয়ে হবেই । এত কষ্ট বা মানসম্মান নষ্ট করলো

কেন??

তারা তো এটাই ভাবতে পারে যে প্রেম করেছে ভালো কথা

এখন বসে থাকো আল্লাহ জোড়া লিখে রাখছেন বিয়ে হলে

এমনিতেই হবে ।

কিন্তু তারা সেটা না করে পালিয়ে গিয়ে বা পরিবারের 

অবাধ্য হয়ে বিয়ে করলো । 

একাজটাও কিন্তু আল্লাহ নিজেই করালেন । 

এখন আমার প্রশ্ন যদি এমনটাই হয় তাহলে কেন আল্লাহ

 তাদের বিয়ে টা প্রেম পরবর্তী বিয়ে করালেন ??

তার সঙ্গিনীকে তো এমনিতেই পেতো প্রেম করতে

গেল কেন? 

আর বিয়েটা যদি প্রেমের পর হারাম ভাবেই হয় তবে

কি আল্লাহ তাদের হারাম বিয়ে লিখে রাখছেন?

হারাম কাজ করে কি মানুষ আল্লাহর সাহায্য চায়না?

তামাক জাত দ্রব্য খাওয়াও তো হারাম । তবে মানুষ কেন

খায়??

এমনকি অনেক হুজুর ও খায় । 

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
14 সেপ্টেম্বর উত্তর প্রদান করেছেন Sultan Mahmud Joy (12 পয়েন্ট)
জেনে রাখবেন জন্ম,মিত্যু,বিবাহ,ভাগ্য,ইত্যাদি আল্লাহই নীর্ধারন করে রাখেন।
এতে মানুষ কখন কিছু করতে পারবে না বা পারছে না। আল্লাহ ই সব কিছুর মালিক

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
প্রশ্ন ছিল ঃ "ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন"- কোরআনের এই বানী ঐরকম করে লেখা করআন অবমাননার শামীল -এই কথাটা কি শরিয়ত সম্মত? উত্তর দিয়েছনঃ এ ব্যাপারে কোনো ফতোয়া পাইনি, আল্লাহ্‌ ভালো জানেন, আমার মনে হয়না এতে কোনো সমস্যা আছে, কেননা সংক্ষিপ্ত রুপটি মূল আয়াতের অর্থ বিকৃত করেনা। আর খুব কমন হওয়ায় যে কেউ এটা দেখেই বুঝতে পারে। এটা যদি অবমাননাকর হতো তাহলে (স.), (র.), (রা.), MD ইত্যাদি সবই বর্জন করা হতো। কিন্তু স্বয়ং ইসলামি বইয়েও এরকম সংক্ষিপ্ত রুপের ব্যবহার দেখা যায়। এখন আমি প্রশ্নকারী প্রশ্ন হল কোরআনের বাণীর সাথে মানুষের নামের উদাহরণের দেয়ার কি যুক্তিকতা থাকতে পারে। তাই আমি এ ব্যাপারে একজন অভিজ্ঞ মুফতি মোহাদ্দেসের মাধ্যমে উত্ত্র জানতে চাই?
13 মার্চ 2016 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Syed Mostaq Uddin (1,672 পয়েন্ট)

187,064 টি প্রশ্ন

240,721 টি উত্তর

54,963 টি মন্তব্য

83,541 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...