363 জন দেখেছেন
"প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (2,492 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (2,492 পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

অধ্যাপক দেবেন্দ্র সিংহ তার গবেষণায় দেখিয়েছেন,  কোমর এবং নিতম্বের অনুপাত মটামুটি   ০.৭ এর মধ্যে থাকলে তা তৈরি করে মেয়েদের  ‘classic hourglass figure’, এবং এটি পুরুষদের মনে তৈরী করে আদি অকৃত্রিম যৌনবাসনা।
 
পুরুষের চোখে নারীর দেহগত সৌন্দর্যের ব্যাপারটাকে এতদিন পুরোপুরি ‘সাংস্কৃতিক’ ব্যাপার বলে মনে করা হলেও আমেরিকার টেক্সাস বিশ্ববিদ্যালয়(অস্টিন শহরে) এর মনোবিজ্ঞানের অধ্যাপক দেবেন্দ্র সিংহ তার গবেষণা থেকে দেখিয়েছেন যে, সংস্কৃতি নির্বিশেষে নারীর কোমর এবং নিতম্বের অনুপাত ০.৬ থেকে ০.৮ মধ্যে থাকলে  সার্বজনীনভাবে আকর্ষণীয় বলে মনে করে পুরুষেরা।  অধ্যাপক সিংহের মতে মোটামুটি কোমর : নিতম্ব  = ০.৭ -- এই অনুপাতই তৈরী করে মেয়েদের  ‘classic hourglass figure’, যা পুরুষদের মনে তৈরী করেছে আদি অকৃত্রিম যৌনবাসনা ।  সংস্কৃতি নির্বিশেষে এই উপাত্তের পেছনে সত্যতা পাওয়া গেছে বলে দাবী করা হয়[5]।   সম্প্রতি পোলিশ একটি গবেষণা থেকে জানা গিয়েছে যে, সুডোল স্তন, সরু কোমড় এবং হৃষ্ট নিতম্ব মেয়েদের সর্বচ্চ উর্বরতা প্রকাশ করে, যার পরিমাপ পাওয়া গেছে দুটো প্রধান যৌনোদ্দীপক হরমোনের (17-β-estradiol & progesterone) আধিক্য বিশ্লেষণ করে[6]। পুরুষের মনে প্রথিত হওয়া কোমর/নিতম্বের এই যৌনোদ্দীপক অনুপাত আসলে তারুন্য, গর্ভধারণক্ষমতা(Fertility) এবং সাধারণভাবে সুসাস্থ্যের প্রতীক। কাজেই এটিও পুরুষের কাছে প্রতিভাত হয় এক ধরণের ‘ফিটনেস মার্কার’ হিসেবে।  বিবর্তন মনোবিজ্ঞানী ভিক্টর জন্সটন তাঁর ‘Why We Feel? The Science of Emotions’ বইয়ে বলেন যে মেয়েদের কোমর ও নিতম্বের অনুপাত ০.৭ হলে এন্ড্রোজেন ও এস্ট্রোজেন হর্মোনের যে অনুপাত গর্ভধারণের জন্য সবচেয়ে অনুকুল সেই অনুপাতকে প্রকাশ করে।  এরকম আরেকটি নিদর্শক হল সুডৌল ওষ্ঠ। সেজন্যই গড়পরতা পুরুষেরা এঞ্জেলিনা জোলি কিংবা ঐশ্বরিয়া রাইয়ের পুরুষ্ট ওষ্ঠ ছবিতে দেখে লালায়িত হয়ে ওঠে। কাজেই দেখা যাচ্ছে সৌন্দর্য্যের উপলব্ধি কোন বিমূর্ত ব্যাপার নয়।  এর সাথে যৌন আকর্ষণ এবং সর্বোপরি গর্ভধারণক্ষমতার একটা গভীর সম্পর্ক আছে, আর আছে আমাদের দীর্ঘদিনের বিবর্তনীয় পথপরিক্রমার সুস্পষ্ট ছাপ।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
10 সেপ্টেম্বর 2014 "প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন shohan (4,265 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
আমি একটা মেয়েকে খুব পছন্দ করতাম, মেয়েটা ছিল হিন্দু। আমরা একই ক্লাশে পড়ি। আমাদের রোল ও পাশাপাশি। আমাদের ক্লাশে আরেকটা ছেলে ছিল যাকে আমি একদম ই পছন্দ করতাম না, একদিন দেখি মেয়েটা ওই ছেলের সাথে রিকশায় ঘুরছে, এতে আমার খুব খারাপ লাগল। তারপর থেকেই মেয়েটার ওপর আমার একটা চাপা ক্ষোভ তৈরি হয়। মেয়েটাকে যখন ই দেখি তখন ই আমার নারভাস লাগে। এজন্য পড়াশুনায় ও মনোযোগ দিতে পারছি না। সব কাজের প্রতি আগ্রহ হারিয়ে ফেলেছি, আগের মতো উদ্যম আমার আর নেই। সব কাজেই শুধু তার কথা মনে হয়। সামনে আমার অনেক বড় পরীক্ষা, কি করবো বুঝতে পারছি ন।আমি বুঝতে পারছি আমাকে পড়াশুনা করতে হবে, ভালো থাকতে হবে, কিন্তু ভালো থাকার চেষ্টা করলেই ক্লাশে তাকে আবার দেখব, তার পাশে বশে পরীক্ষা দেব এসব ভেবেই আবার খারাপ লাগছে, এজন্য পড়াশুনায় পিছিয়ে পরছি,দুশ্চিন্তা হচ্ছে।কিছুই ভালো লাগছে না?
27 ডিসেম্বর 2016 "প্রেম-ভালোবাসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন kobir khan (1 পয়েন্ট )

204,008 টি প্রশ্ন

260,300 টি উত্তর

64,795 টি মন্তব্য

96,697 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...