197 জন দেখেছেন
"নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে করেছেন (6,242 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (4,190 পয়েন্ট)

এখন সবার মাঝে একটি দুশ্চিন্তা টিকিট পেলেও ট্রেন ঠিকমতো ছাড়বেতো! প্ল্যাটফর্মে কতোক্ষণ অপেক্ষা করতে হবে ট্রেনের জন্য? যে ট্রেনে যাবেন সেই ট্রেনইবা কোথায় আছে? সব তথ্যের উত্তর দিতে এবার বাংলাদেশ রেলওয়ে তিনটি মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংকে সাথে নিয়ে ট্রেনের অবস্থান জানাতে বিশেষ জিপিএস ব্যবস্থা গ্রহন করেছেন। জিপিআরএসের মাধ্যমে ট্রেন ট্র্যাকিং করতে এ পর্যন্ত অর্ধশতাধিক ইঞ্জিনে বসানো হয়েছে বিশেষ ডিভাইস। এটি দিয়েই স্যাটেলাইটের মাধ্যমে নজরদারিতে রাখা হচ্ছে ট্রেন।


জিপিএস এর মাধ্যমে স্বয়ংক্রিয় ভাবেই জানা যাবে এই মুহূর্তে ট্রেনটি কোথায় আছে, সেই মত আপনাকে ফিরতি মেসেজে জানিয়ে দেয়া হবে আপনার ট্রেনের অবস্থান। ফলে আপনাকে ষ্টেশনে গিয়ে ঘন্টার পর ঘন্টা অপেক্ষা করতে হবেনা।



 

গ্রামীণফোন, রবি ও বাংলালিংকের গ্রাহকরা এখন এক এসএমএসেই পেয়ে যাবেন ট্রেন কোথায় আছে, কখন ছাড়বে, পরবর্তী স্টপেজ এবং বিলম্ব সময়সহ প্রয়োজনীয় সকল তথ্য। মোবাইল ফোনে TR লিখে স্পেস দিয়ে ট্রেনের নাম বা কোড লিখে 16318 নম্বরে ম্যাসেজ পাঠালেই ফিরতি ম্যাসেজে পাওয়া যাবে কাঙ্খিত ট্রেনের অবস্থান, বিলম্ব সময়সহ প্রয়োজনীয় তথ্য। প্রতি এসএমএসে ভ্যাটসহ খরচ হবে ৪ টাকা ৬০ পয়সা।


এছারা এই বছরেই অনলাইনেই এই সেবা দেয়ার পরিকল্পনা আছে বাংলাদেশ রেলওয়ের। অনলাইনে এ সুবিধা চালু হলে রেলওয়ের ওয়েবসাইট থেকেই যাত্রীরা জানতে পারবেন ট্রেনের হালনাগাদ তথ্য।

টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 ফেব্রুয়ারি 2015 "ক্যারিয়ার" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Feroza (11 পয়েন্ট)

288,751 টি প্রশ্ন

374,153 টি উত্তর

113,169 টি মন্তব্য

157,315 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...