735 জন দেখেছেন
"হাদিস" বিভাগে করেছেন (2,818 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (43 পয়েন্ট)

আমাদের দেশে অধিকাংশ গ্রাম ও শহর অঞ্চলের কিছু মানুষ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় তাবিজ, কবজ ব্যবহার করে থাকেন। অনেক ক্ষেত্রে এর মধ্যে কুরআনের আয়াত লিখে দেয়া হয় অথবা বিভিন্ন মন্ত্র লিখে দেয়া হয়। যা ইসলামে হারাম এবং এটিকে রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) শিরক্‌ বলে আখ্যায়িত করেছেন।

সাহাবা (রাঃ)'রা যখনই এরকম তাবিজ কাউকে ঝুলাতে দেখতেন তখনই তা টেনে ছিড়ে ফেলতেন। এবং এর ফলে ঐ ব্যক্তি শিরক্‌ থেকে মুক্ত হলো বলে সবাইকে জানাতেন।
[ইবন্‌ মাজাহ, ৩৫৩০ হাদিস দ্রষ্টব্য]

রাসূল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, মন্ত্র, তাবিজ ও কারো মধ্যে ভালোবাসা সৃষ্টির জন্য উপায় অবলম্বন করা শিরকের অন্তর্ভুক্ত।
[ইবন্‌ মাজাহ, ৩৫৩০]

তাই এই হারাম কাজ থেকে সবাইকে সচেতন হতে হবে। অসুখ হলে চিকিৎসা করাতে হবে কিন্তু মন্ত্র বা তাবিজ, কবজ ব্যবহার করা থেকে আমাদের দূরে থাকতে হবে।

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (73 পয়েন্ট)
উত্তরঃ তাবিজের ভিতর আল্লাহ তায়ালার কালাম আছে । আর এই তাবিজের কথা যারা বিশ্বাহ না করে তারা মুনাফিকের লখন ।
করেছেন (-73 পয়েন্ট)
তাবিজ ব্যবহার ইসলামে হারাম.আপনি না জেনে কথা বলবেন না.মহানবি (সাঃ) তাবিজ ব্যবহারে নিষেধ করেছেন.
আর মহানবীর নিষেধকে পরোয়া না করা কাফেরী.
আর মহান আল্লাহ্ তাঁর কালাম পাঠ করার জন্য ও পথ দেখানোর জন্য দিয়েছেন,গলায় ঝুলিয়ে রাখার জন্য নয়
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
2 টি উত্তর
1 উত্তর
26 জুন 2018 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন sabbir ahammad (6 পয়েন্ট)

288,551 টি প্রশ্ন

373,911 টি উত্তর

113,103 টি মন্তব্য

157,098 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...