404 জন দেখেছেন
"পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে করেছেন (5,273 পয়েন্ট)

3 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (75 পয়েন্ট)
বেতের নামাজ ওয়াজিব আর ওয়াজিব আদায় না করলে পাপ হবে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (185 পয়েন্ট)
বিতন নামাজ ওয়াজিব আর ওয়াজিব ফরজের কাছাকাছি/নৈকট্য। তাই উক্ত নামাজ ইচ্ছা করে ছেরে দিলে গুনাহগার হবে।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (22 পয়েন্ট)
সালাম নিবেন।  এশার সালাতের  পরেই বিতিরের ওয়াক্ত শুরু হয়। যদিও আমরা বিতির এশার সাথে পড়ি, কিন্তু এটা হচ্ছে  'শেষ রাতের'/কিয়ামুল লাইলের সালাত।এটা রাসুল(সঃ) ও উনার সাহাবীরা  শেষ রাতে  পড়তেন। কিন্তু  যেহেতু পড়ার সময় শুরু হয়ে যায়, হযরত আবু বকর(রাঃ)  এটা ও প্রথম রাতে ও হযরত উমর(রাঃ)  এটা শেষ রাতে 'তাহাজ্জুদ'  সালাতের পর পড়তেন। মহানবী(সঃ)  আবু বকরকে(রাঃ)কে ঠিক ও  হযরত উমর(রাঃ)-কে অধিকতর ঠিক বলেছেন। শেষ রাতের কোন সালাত ' ওয়াজিব' নয়। বিতির হচ্ছে 'সুন্নাতে মুয়াক্কাদা'। বিতির হচ্ছে  দিনের শেষ সালাত। হাদীস আছে, তোমরা বিতিরকে  শেষ সালাত কর। এটা অনেকটা 'রচনার' উপসংহার লিখার মত। বিতির না পড়লে গুনাহ নাই। এ ব্যপারে হযরত আলী(রাঃ)  এর একটা হাদীস আছে।  ধন্যবাদ।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
2 টি উত্তর
22 এপ্রিল 2014 "পবিত্রতা ও সালাত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Abdur Rob (185 পয়েন্ট)

288,811 টি প্রশ্ন

374,212 টি উত্তর

113,196 টি মন্তব্য

157,357 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...