154 জন দেখেছেন
"নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে করেছেন (6,242 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (5,273 পয়েন্ট)
সকালে ঘুম থেকে উঠার সবথেকে ভালো উপায় বলা চলে মানসিকভাবে প্রস্তুতি। আপনি যদি মনটাকে স্থির করেন যে সকালে ঠিক সময়ের মাঝে আমাকে ঘুম থেকে উঠতেই হবে তাহলে আপনি খেয়াল করে দেখবেন যে ঠিক সময়েই আপনার ঘুম ভেঙ্গে গেছে। কেননা রাতের বেলাতেই আপনি আপনার ব্রেনটাকে স্থির করে নিয়েছেন বা ব্রেনকে নির্দেশনা দিয়েছেন। ফলে আপনার ব্রেন আপনাকে সকালে উঠতে সহায়তা করেছে।

এছাড়াও আরও কিছু উপায় রয়েছে। জেনে নিন সেগুলো সম্পর্কে।
ঘুম সঙ্গে সামঞ্জস্যপূর্ণ হতে হবে:

প্রতিদিন একই সময়ে ঘুমাতে যাওয়া আপনার পরের দিন সকালে উঠা নিশ্চিত করবে। আপনার শরীর নিয়ম পছন্দ করে। প্রতিদিন তাড়াতাড়ি ঘুমাতে যান। এতে করে সকালেও আপনি তাড়াতাড়ি উঠতে পারবেন। প্রতিদিন ৭ থেকে ৮ ঘন্টা ঘুমাতে চেষ্টা করুন।
কিছু বিষয় জানুন:

বিছানায় যাওয়ার আগেই কম্পিউটার, টেলিভিশন, লাইট ও ঘরের অন্যান্য সুইচ বন্ধ করুন। উজ্জ্বল আলো আপনার মস্তিষ্কে বিরক্তি তৈরি করতে পারে ফলে এটা আপনার ঘুমের জন্য বাঁধা হয়ে দাড়াতে পারে। বই পড়ুন ও এক গ্লাস গরম পানি অথবা দুধ খেয়ে ঘুমাতে যান।
ব্যায়াম করুন:

তিন মিনিটের ব্যায়াম শরীর থেকে ঘুম তাড়াতে ভীষণ সাহায্য করে। সারা রাত ঘুমানোর ফলে রক্ত সঞ্চালনের বেগ কিছুটা হলেও ধীর হয়ে যায়। তাই ঘুম ভাঙলেও চট করে শরীর চাঙা হয় না। তার জন্য ঘুম থেকে উঠে হালকা মিনিট তিনেক যোগা করে নিন। রক্ত সঞ্চালন স্বাভাবিক হলেই দেখবেন ঝরঝরে লাগছে।
অ্যালার্ম ডিভাইজ বিছানা থেকে দূরে রাখুন :

ভোরে ঘুম থেকে ওঠার জন্য ঘড়িতে কিংবা মোবাইলে ফোন অ্যালার্ম দিয়ে রাখুন। তবে তা বিছানা থেকে দূরে। তা না হলে অ্যালার্ম বাজার সাথে সাথে হাতের নাগালে পেয়ে অ্যালার্ম বন্ধ করে আবার ঘুমিয়ে পরতে পারেন। এতে করে আপনাকে সকালে অ্যালার্ম বন্ধ করার জন্য বিছানা থেকে উঠে যেতে হবে। আর বিছানা থেকে ওঠা আপনার ঘুম দূর করতে সাহায্য করবে।
প্রাথমিক গোসল করুণ:

সকালে ঠান্ডা পানির ছিটা আপনার শরীরের স্নায়ুতন্ত্রের নাচ শুরু করে দেবে। ঘুম ভাঙানোর জন্য একটি দুর্দান্ত উপায়। তাছাড়া সকালে গোসল করলে সারাদিন অনেক রিফ্রেশ লাগে।
অনিদ্রারোগ দূর করুন :

অনেকেই রাতে দেরি করে ঘুমানোর অভ্যাসটির কারনে অনিদ্রারোগে ভুগে থাকেন। এই রোগটি দূর করতে হবে। অনিদ্রারোগটি প্রাথমিক পর্যায়ের হলে হালকা আলোয় কিংবা অন্ধকার ঘরে ঘুমুতে চেষ্টা করুন অথবা বই পড়ার অভ্যাস করুন বিছানায় শুয়ে। আর অনিদ্রা বেশী হলে ডাক্তারের সাথে পরামর্শ করে এই রোগটি অতি সত্বর দূর করুন।
ঘরে ভোরের আলো ঢোকার ব্যবস্থা করুন :

ভোরের আলো কিংবা সকালের কুসুম আলো ঘরে না ঢোকার ব্যবস্থা না থাকলে রাতের আভা ঘর থেকে বের হয় না। ফলে ঘুমও কাটে না সহজে। বিছানা সরাসরি জানালার পাশে রাখার চেষ্টা করুন। যাতে সকালের আলো আপনার ঘুম ভাঙতে সাহায্য করে। ঘরে সকালের কোমল আলোয় ঘুম ভাঙ্গার সাথে সাথে মনও ভালো হয়ে যাবে। দিনের শুরু হবে আনন্দে।
করেছেন (5 পয়েন্ট)
[email protected]**************************
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (133 পয়েন্ট)
জনাব রাতে ঘুমানোর আগে এক গ্লাস গরম পানি খাবেন।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

2 টি উত্তর
3 টি উত্তর
22 এপ্রিল 2017 "নিত্য ঝুট ঝামেলা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন তানভীর রনি (6,025 পয়েন্ট)

287,997 টি প্রশ্ন

373,266 টি উত্তর

112,843 টি মন্তব্য

156,678 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...