88,562 জন দেখেছেন
"ইসলাম" বিভাগে করেছেন (6,242 পয়েন্ট)
বন্ধ

1 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (98 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর
☞ উত্তরটা দেয়ার আগে একটা মূলনীতি বলার দরকার ছিল। ভুলে তখন সেটা বাদ পরে গিয়েছিল,  এখন সম্পাদনার মাধ্যমে সেই মূলনীতিটা সম্পৃক্ত করে দিলাম। আশা করছি প্রশ্নকারী এ মূলনীতি পাঠের মাধ্যমে অন্যান্য উত্তর ও এ উত্তরটির মাঝে পার্থক্য নিরূপণ করতে পারবেন এবং যে সমাধানের খোঁজে তিনি প্রশ্ন রেখেছেন সে ব্যাপারে শরীয়ত কর্তৃক প্রদর্শিত সঠিক সিদ্ধান্তে উপনীত হতে পারবেন।

☆মূলনীতিটি এইঃ-
 *"কোন অলী, গাউস, কুতুব, পীর-দরবেশ শরীয়তের দলীল নন"।
* "তাঁদের ব্যক্তিগত কোন কথা, উক্তি, কাজ,  আমল, ( সেটা যদিও বা নিয়মিত আমল হোক না কেন) শরীয়তের দলীল নয়"।
* "অলীদের কাশফ শরীয়তের দলীল নয়"।
* "অলীদের স্বপ্ন শরীয়তের দলীল নয়"।
* "শরীয়তের দলীল হচ্ছে কুরআন,  হাদীস,  ইজমা ও কিয়াস"।

 # পৃথিবীর সমস্ত সমস্যাকে তার বাস্তবতাসহ সামনে রেখে কুরআন, হাদীস,  ইজমা ও কিয়াসের আলোকে সমাধান করা হয়। প্রত্যেক মানুষেরই একটা স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট থাকে। অতএব আল্লাহর কোন অলীর কোন আমল যদি শরীয়তের বিপরীত পাওয়া যায় তবে একান্তই সেটা তার ব্যক্তিগত আমল হিসেবে বিবেচ্য। কেন সেটা তিনি করেছেন তা তিনিই ভালো বলতে পারবেন। এ নিয়ে মাথা ঘামানো আমাদের কাজ নয়। এর উপর ভিত্তি করে সমাধান প্রদান ধর্তব্য নয়। আর এর উপর ভিত্তি করে ফতোয়া প্রদান তথা শরয়ী কোন মাসআলা প্রণয়ন তো প্রশ্নই আসে না।

☞ আপনি যে প্রশ্নটি করেছেন,  সেই একই প্রশ্নটি আবুল হোসেন নামে নারায়ণগঞ্জের এক কবিরাজ সাহেব ঢাকা মিরপুর ১৪ এর বিখ্যাত বিশাল বড় মাদরাসা জামেউল উলুমের ফতোয়া বিভাগে জানতে চান। সে মাদরাসার ফতোয়া বিভাগের স্বনামধন্য ছাত্র আমার সিনিয়র ভাই মুফতী মুনির বিন সিরাজ এ ফতোয়টি প্রদান করেন। যা সেই মাদরাসার প্রধান মুফতী সাহেব সহ আরো কয়েকজন বিজ্ঞ মুফতী সাহেব কর্তৃক সত্যায়িত। সেই ফতোয়াটাই এর উত্তর স্বরুপ আমি এখানে দিয়ে দিলাম।
উল্লেখ্যঃ সাভার উপজেলার ধামরাই পৌরসভার একমাত্র ফতোয়া বিভাগ "দারুল ইফতা ওয়াল বুহুসিল ইসলামিয়া"তে স্টাডি করার সময় এ বিষয়ে আমিও তাহকীক করেছি আলহামদুলিল্লাহ। উত্তর সেটাই পেয়েছি,  যা তিনি লিখেছেন।

★ফতোয়াটি এই...

"এই পৃথিবীর বুকে সামাজিক শান্তি-শৃংখলা বজায় রাখার প্রথম ও প্রধান শর্ত বংশ পরম্পরা রক্ষা করা। এ লক্ষেই ইসলাম প্রবর্তন করেছে বিবাহপ্রথা। বিবাহ বৈধতার মুখ্য উদ্দেশ্য বংশ পরম্পরা টিকিয়ে রাখা।যা কেবল একই জাতির নর-নারীর পারস্পারিক বিবাহ দ্বারা সম্ভব। ভিন্ন দুই জাতির নারী-পুরুষের বিবাহ দ্বারা নয়।
          তাই মুসলমান হওয়া সত্ত্বেও মানুষ ও জ্বীন জাতির পারস্পারিক বিবাহ শরীয়ত গর্হিত,  ইসলাম  বিবর্জিত ও সম্পূর্ণ নাজায়েজ"।

                           ♦♦♦ দলীল - প্রমাণ ♦♦♦
১/  لا يجوز المناكحة بين ابني آدمي والجن والانسان المائ لاختلاف الجنس
ফতোয়ায়ে সিরাজিয়া, অধ্যায়ঃ-নিকাহুল মাহারিমি। পৃঃ- ৩৭।
২/  لكنه نقل بعده عن شرح المنتقي عن زواهر الجواهر  الاصح انه لا يصح نكاح آدم جنية كعكسه لا ختلاف الجنس فكانوا كبقية الحيوانات  
রদ্দুল মুহতার, খন্ড ৪, পৃঃ- ৬২, অধ্যায়ঃ- কিতাবুন নিকাহ।
৩/ ফাতাওয়ায়ে হাক্কানিয়া, খন্ড ৪,  পৃঃ-৩৪৪।

♣ এ ফতোয়াটির সত্যায়িতকারী মুফতী সাহেবগণঃ-
★ শায়খুল হাদীস হজরত মাওলানা মুফতী সুলাইমান ইবনে আলী ( রঃ)।
সাবেক প্রধান মুফতী, জামেউল উলুম মাদরাসা, মিরপুর ১৪।
★ হজরত মাওলানা মুফতী নজরুল ইসলাম সাহেব ( দাঃ বাঃ)।
সাবেক সহকারী প্রধান মুফতী,  জামেউল উলুম মাদরাসা, মিরপুর ১৪।
উক্ত ফতোয়া লেখার তারিখঃ ১২/ ২/ ২০১২ ইং।

♠ বিঃ দ্রঃ- উক্ত ফতোয়াসহ জামেউল উলুম মিরপুর ১৪ এর মাদরাসার ফতোয়া বিভাগ থেকে ২০১২ সালে প্রদানকৃত এক বছরের সমস্ত ফতোয়াগুলো একত্রিত করে "জামেউল উলুম মাদরাসা,  মিরপুর ১৪। ফতোয়া বিভাগ,  শিক্ষাবর্ষঃ- ১৪৩২/৩৩ হিজরী, ২০১১/১২ ইং" নামে একটি ফতোয়া সংকলন বের হয় যা সাভার উপজেলার ধামরাই পৌরসভার একমাত্র ফতোয়া প্রতিষ্ঠান "দারুল ইফতা ওয়াল বুহুসিল ইসলামিয়া" তে সংরক্ষিত আছে। আমার কাছেও এ সংকলনটির একটি ফটোকপি আছে।
উক্ত সংকলনটির "বিবাহ অধ্যায়ে" "১৪৯" পৃষ্ঠায় এই ফতোয়াটি সন্নিবেশিত হয়েছে।
♥ফতোয়া নংঃ- ৫৪।

+ পুনশ্চঃ- অনেক লোক আল্লাহর অলীদের দেখতে পারেন না, তাঁদের কারামত বিশ্বাস করেন না। তাঁদেরকে গালি-গালাজ করেন। আমি আলহামদুলিল্লাহ তাঁদের মত নই। আমার সম্পাদনা দেখে তা মনে করার কোনই কারণ নেই। আমি একটা মূলনীতি বলেছি মাত্র। জাযাকাল্লাহ।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
11 সেপ্টেম্বর 2014 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন আরিফুল (6,242 পয়েন্ট)
1 উত্তর
22 ফেব্রুয়ারি 2017 "ইসলাম" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন shohan (4,190 পয়েন্ট)

288,296 টি প্রশ্ন

373,615 টি উত্তর

113,001 টি মন্তব্য

156,876 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...