বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
814 জন দেখেছেন
"রান্না" বিভাগে করেছেন (20 পয়েন্ট)

2 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (124 পয়েন্ট)
উপকরণ :
দুধ ২ লিটার (আমরা দুই লিটারকে ষ্ট্যান্ডার্ড ধরে নিলাম), পানি ২ কাপ,
দইয়ের বীজ (আগের দই) ১.৫ টেবিল চামচ, মাটির বড় হাঁড়ি ১টি।

প্রণালী:
১। ২ লিটার দুধে ২ কাপ পানি মিশিয়ে প্রায় সাত/আট মিনিট চুলায় গরম করতে হবে।
২। যখন একটু বলক উঠবে তখন চুলার জ্বাল কমিয়ে দিতে হবে।
৩। এরপর এই অল্প জ্বালে প্রায় ২০ মিনিট রাখতে হবে। (পাতিলের নিচে দুধ যাতে না ধরে যায় এজন্য মাঝে মাঝে চামচ দিয়ে নাড়তে হবে)
৪। মিশ্রণটি যখন একটু ঘন হয়ে আসবে তখন মাটির ঐ হাঁড়িতে ঢালতে হবে।
৫। এরপর দইএর বীজ আধাকাপ পানিতে গুলিয়ে মাটির হাঁড়িতে রাখা দুধের মধ্যে ঢেলে দিতে হবে।
৬। এরপর হাঁড়িটি ঢেকে রাখতে হবে। ঠান্ডা হলে ফ্রিজিং করা যেতে পারে।
দই এর বীজ কিভাবে বানাবেন--
এককাপ দুধের মাঝে ৩/৪ চামচ ভিনেগার দিলে সেটা জমে দই এর বীজ হবে।
এককাপ দুধের মাঝে দশ বারো ফোঁটা লেবুর রস দিলেও সেটা দই এর বীজ হিসেবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (70 পয়েন্ট)
দুধকে দইয়ে রুপান্তর করার জন্য দায়ী হলো একপ্রকার বেক্ট্রেরিয়া। আর এই ব্যাক্টেরিয়া থাকে দই বা ছানার পানিতে। দুধ নষ্ট হয় কিন্তু এই ব্যাক্টেরিয়ার কারনে। দুধকে দই বানানোর জন্য পুরানা দই লাগে। এই দইকে দেশীভাষায় বিছন বলে। দই বানানোর জন্য দই বা বিছন না পাওয়া গেলে বিকল্প উপায়ে দইয়ের বিছন বানানো যায়। সেটা হলো সামান্য গরম অল্প দুধে একটু তেতুল গোলা পানি বা লেবুর রস দিয়ে একরাত্র পাত্রটি ঢেকে রাখতে হবে। পরেরদিন সেই বিছন দিয়ে দই তৈরী করা যাবে। দই তৈরী করতে দই বা বিছন লাগবে।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
25 জানুয়ারি 2014 "পশুপাখি" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন বিপুল রায় (12,869 পয়েন্ট)
1 উত্তর
31 মে 2014 "রান্না" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মোহাম্মাদ শুভ (8,465 পয়েন্ট)
1 উত্তর
1 উত্তর
31 মে 2014 "রান্না" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মোহাম্মাদ শুভ (8,465 পয়েন্ট)

300,583 টি প্রশ্ন

388,485 টি উত্তর

117,418 টি মন্তব্য

165,951 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...