154 জন দেখেছেন
"প্রাণীবিজ্ঞান" বিভাগে করেছেন (9 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (220 পয়েন্ট)
আমাদের ত্বকে অসংখ্য 'ফ্রি নার্ভ ইণ্ডিং' আছে। যেগুলোর কাজ হল 'স্পর্শ'-এর অনুভূতিকে ব্রেইনের নিয়ে যাওয়া। এই নার্ভ ইন্ডিংগুলোতে স্পর্শ লাগলে এক ধরনের ইলেকট্রোকেমিক্যাল পরিবর্তন হয় এবং ইলেকট্রোকেমিকাল সিগনাল তৈরী হয়। এই সিগনাল আমাদের ব্রেইনের অনুভূতি বুঝার প্রাথমিক স্থান 'সোমাটোসেনসরি কর্টেক্স'-এ নার্ভের মধ্য দিয়ে পৌছায়। একই সাথে কিছু নার্ভের মাধ্যমে সিগনাল পৌছায় সিঙ্গুলেট জাইরাস নামক ব্রেইনের অংশের সামনের দিকে। এখানে সিগনালগুলো আমাদের মধ্যে আরামদায়ক অনুভূতি (প্লিজেন্ট সেনসেশন) জাগায়। ব্রেইনের এই অংশগুলো আবার ব্রেইনের সেই অংশগুলোর সাথে সংযুক্ত যেটি হাসির জন্য প্রয়োজনীয় সিগন্যাল তৈরী ও বহন করে। এ কারনে বগলে স্পর্শ করলে আমাদের কাতুকুতু লাগে এবং আমরা হাসি।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
27 জানুয়ারি 2018 "প্রাণীবিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন rahatamaruf (6 পয়েন্ট)
1 উত্তর
30 এপ্রিল 2013 "প্রাণীবিজ্ঞান" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন shohan (4,261 পয়েন্ট)
2 টি উত্তর
0 টি উত্তর

289,343 টি প্রশ্ন

374,926 টি উত্তর

113,387 টি মন্তব্য

157,916 জন নিবন্ধিত সদস্য

Bissoy Answers এ সুস্বাগতম, যেখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং গোষ্ঠীর অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন।
...