বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
299 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (309 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (309 পয়েন্ট)
আমাদের শরীরের এবং যে খাবার খাই তার মধ্যেকার বেশীরভাগ স্নেহ পদার্থের রাসায়নিক রূপ হল ট্রাইগ্লিসারাইড। আমরা যখন খাই, আমাদের শরীর স্নেহ পদার্থগুলিকে ট্রাইগ্লিসারাইডে রূপান্তরিত করে দেয়, যার মাধ্যমে শরীর প্রয়োজনানুযায়ী ব্যবহারের জন্য শক্তি জমিয়ে রাখে। যখন আমাদের শরীরে শক্তির দরকার হয়, ট্রাইগ্লিসারাইডগুলি বেরিয়ে আসে এবং জ়্বালানীর মত পুড়ে আমাদের শক্তির চাহিদা মেটায়।

আপনার নিয়মিত স্বাস্থ্য পরীক্ষার অঙ্গ হিসাবে ডাক্তারবাবু প্রায়শই একটি রক্ত পরীক্ষা করতে দেন, যার মাধ্যমে আপনার রক্তে কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসারাইডের পরিমান জানা যায়। কারো কারো ক্ষেত্রে এগুলির মাত্রা একেবারে ঠিক থাকে। কিন্তু অনেকের ক্ষেত্রেই, খাদ্যাভ্যাস, যে সব ওষুধ তাঁরা খান, অথবা জিনগত গঠনের জন্য শরীরের যতটা প্রয়োজন, তার চেয়ে বেশী মাত্রায় কোলেস্টেরল ও ট্রাইগ্লিসারাইড থেকে যায়। দুর্ভাগ্যবশত, এই আধিক্য ভালো নয়। প্রকৃতপক্ষে, আপনার রক্তে খুব বেশী পরিমানে কোলেস্টেরল বা ট্রাইগ্লিসারাইড থাকলে তা স্বাস্থ্যের পক্ষে ভয়ানক হতে পারে। স্বাভাবিক মাত্রার চেয়ে বেশী ট্রাইগ্লিসারাইড ও কোলেস্টেরলের সঙ্গে নিম্নলিখিতগুলির যোগসূত্র পাওয়া গেছেঃ

    হার্টের অসুখ, যার লক্ষণ হল বুকে ব্যথা ও হার্ট অ্যাটাক
    সংবহন নালিকার প্রান্তিক অংশের অসুখ (পায়ের ধমনী আটকে যাওয়া)
    ঘাড়ে ও মাথায় ধমনী আটকে গিয়ে স্ট্রোক হওয়া
    প্যানক্রিয়াটাইটিস ও লাইপোডিসট্রফি

এ সম্পর্কিত কোন প্রশ্ন খুঁজে পাওয়া গেল না

321,771 টি প্রশ্ন

412,059 টি উত্তর

127,600 টি মন্তব্য

177,329 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...