16,343 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন (6,440 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
উত্তর প্রদান করেছেন (6,440 পয়েন্ট)
নির্বাচিত করেছেন
 
সর্বোত্তম উত্তর

#9 কেউ ভালবাসেন সিদ্ধ ডিম, কেউ পোচ, কেউ বা আবার ওমলেট। অতিরিক্ত ডিমপ্রেমীরা আবার অতকিছু ভাবেনই না। যে কোনও প্রকারে ডিম তাদের চাই-ই-চাই। স্বাস্থ্য সচেতনরা আবার ডিম ভাজার বদলে সেদ্ধতেই মন দেন বেশি। তবে জানেন কি পুষ্টিগুণে সেদ্ধ ও ওমলেট টেক্কা দেয় একে অপরকে? যে ভাবেই খান ডিম সব সময়ই দারুণ।

 পুষ্টিগুণ একটা গোটা সেদ্ধ ডিমে রয়েছে ৭৮ ক্যালরি, ৬.৩ গ্রাম প্রোটিন, ০.৬ গ্রাম কার্বহাইড্রেট ও ৫.৩ গ্রাম ফ্যাট। যার মধ্যে ১.৬ গ্রাম স্যাচুরেটেড ফ্যাট। ওমলেটে রয়েছে ৯০ ক্যালরি, ৬.৮ গ্রাম ফ্যাট। স্যাচুরে়টেড ফ্যাটের পরিমাণ ২ গ্রাম। 

ভিটামিন একটা গোটা সেদ্ধ ডিমের ১৫ শতাংশ রাইবোফ্লোভিন, ১০ শতাংশ ভিটামিন বি১২ ও ১১ শতাংশ ভিটামিন। ভাজ ডিমেও ভিটামিনের পরিমাণ প্রায় একই। রাইবোফ্লোভিন রক্তকণিকা তৈরি করতে সাহায্য করে, বি১২ স্নায়ুতন্ত্র ও মস্তিষ্কের কর্মক্ষমতা নিয়নন্ত্রণ করে, ভিটামিন ডি রোগ সংক্রমণ প্রতিরোধ করে। 

খনিজ এ বার কিন্তু সেদ্ধ ডিমকে টেক্কা দিয়ে দিয়েছে ওমলেট। সেদ্ধ ডিমের থেকে ওমলেটে মিনারেলের পরিমাণ বেশি। সেদ্ধ ডিমে যেখানে ৯ শতাংশ ফসফরাস রয়েছে, ওমলেটে সেখানে ফসফরাসের পরিমাণ ১০ শতাংশ। হাড় শক্ত করতে ফসফরাস অত্যন্ত জরুরি। - সূত্র : আনন্দবাজার - 


মোঃ আরিফুল ইসলাম বিস্ময় ডট কম এর প্রতিষ্ঠাতা। খানিকটা অস্তিত্বের তাগিদে আর দেশের জন্য বাংলা ভাষায় কিছু করার উদ্যোগেই ২০১৩ সালে তার হাত ধরেই যাত্রা শুরু করে বিস্ময় ডট কম। পেশাগত ভাবে প্রোগ্রামার।

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
10 মার্চ 2017 "সাধারণ" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Sahasat Hossain (7 পয়েন্ট)
1 উত্তর

270,291 টি প্রশ্ন

353,238 টি উত্তর

104,707 টি মন্তব্য

143,261 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...