74 জন দেখেছেন
"যুদ্ধাস্ত্র" বিভাগে করেছেন (587 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (587 পয়েন্ট)

প্রযুক্তি আর জার্মানি- এ শব্দ দুটি যেন মুদ্রার এপিঠ-ওপিঠ।
নিত্যনতুন প্রযুক্তির উৎকর্ষতার ছোঁয়ায় পরিবর্তিত হয়ে আসছে দেশটির প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা। জার্মানির যে কয়েকটি ট্যাংক আলোচনায় রয়েছে সেগুলোর মধ্যে লিউপ্যার্ড টু-এ-সেভেন অন্যতম। এটি সর্ব প্রথম প্রকাশ্যে আসে ২০১০ সালে। এই ট্যাংকটি লিউপ্যার্ড-টু এসিঙ্-এর উন্নত সংস্করণ। এটাকে প্রধানত তৈরি করা হয়েছিলurban warefare I conventional military operation এর জন্য। ১২০ smoothbore Main gun সংযুক্ত এই ট্যাংকের ওজন ৬৭.৫ টন ton যেখানে চারজন ক্রু অনায়াসে বসতে পারে। সঙ্গে রয়েছে আরও দুটি Machine gun যেগুলো হলো ১২.৭ টন ও ৭.৬২ টন। এর ইঞ্জিন পাওয়ার ১৫০০ hp, এর oil ট্যাংকি ভরে দিলে একটানা ৪৫০ km পর্যন্ত যেতে পারে ৭২ শস/য স্পিডে। এই ট্যাংকের সামনে একটা WGhi ব্লেড আছে যেটা দিয়ে সামনে পথের সব বাধা সরিয়ে এগোতে পারে। ২০১১ সালে সৌদি আরব জার্মানির কাছ থেকে ২০০ Leopard2A7 কিনে নেয়। এই ট্যাংকটির যে দিকটি সবার কাছে আকর্ষণীয় তা হলো অন্যান্য ট্যাংকের তুলনায় এটি অনায়াসে ছোটখাটো গলিতে প্রবেশ করতে পারে। ক্ষমতা দেখাতে পারে যে কোনো আঁকাবাঁকা পথে।

টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

288,087 টি প্রশ্ন

373,368 টি উত্তর

112,898 টি মন্তব্য

156,740 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...