বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
385 জন দেখেছেন
"রান্না" বিভাগে করেছেন (16,995 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (16,995 পয়েন্ট)
উপকরণ : কাঁচা আম ৮টি, রসুন কুচি ১ কাপ, পাঁচফোড়ন গুঁড়া ১ টেবিল চামচ, আদা বাটা ১ টেবিল চামচ, রসুন বাটা ১ টেবিল চামচ, চিনি ১ টেবিল চামচ, ভিনেগার ১ কাপ, সরিষার তেল হাফ কাপ, লবণ পরিমাণমতো, জিরা গুঁড়া ১ টেবিল চামচ।

প্রণালি : আমের খোসা ছাড়িয়ে সবজি কুরুনি দিয়ে ঝুরি করে কুড়িয়ে নিন। ডুবো পানিতে পাঁচ-ছয় ঘণ্টা ভিজিয়ে রাখুন। এবার একটি পাত্রে উপরের সব উপকরণ দিয়ে মেখে জীবাণুমুক্ত বোতলে ভরে সাত-আট দিন মুখ বন্ধ করে রোদে দিন।
করেছেন (22 পয়েন্ট)

উপকরণ

কাঁচা আম ৫ থেকে ৬ টি, কাঁচা লঙ্কা ৪ থেকে ৫ টি, পাঁচ ফোঁড়ন ৫ বড় চামচ, শুকনো লঙ্কা ৭-৮ টি, আদা কুঁচি(জুলিয়ান কাট)২ চা চামচ, হিং ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো ১.১/২ চামচ, লবন স্বাদ অনুযায়ী, চিনি ১ চামচ, সর্ষের তেল|

প্রণালী

প্রথমে আম গুলি খোসা না ছাড়িয়ে টুকরো করে কেটে নিন| আঁটি অংশটি বাদ দিয়ে দিতে হবে| আমের টুকরো গুলি হলুদ, লবন মাখিয়ে আদার টুকরোর সাথে মিশিয়ে রোদে রেখে দিতে হবে টানা ৫ থেকে ৬ ঘন্টা| ইতিমধ্যে শুকনো লঙ্কা ও পাঁচ ফোঁড়ন শুকনো করে ভেজে ঠান্ডা করে পাউডার বানিয়ে নিতে হবে| একটি পাত্রে ৫ বড় চামচ তেল গরম করে তাতে আম এবং আদার মিশ্রন দিয়ে ৫ থেকে ৬ মিনিট নাড়াচাড়া করে নিতে হবে|৫-৬ মিনিট পর হিং ও কাঁচা লঙ্কা আমের সাথে ভালো করে মিশিয়ে তাতে চিনি ও ভাজা মশলা দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে নিতে হবে|মিস্তির পরিমান আপনার স্বাদের ওপর নির্ভর করে| একটু ঠান্ডা হলে এই মিশ্রন কাঁচের বোতলে ঢেলে সর্ষের তেল বোতলে ভরে একটি চামচ দিয়ে ভালো করে মিশিয়ে দিতে হবে| এবার এই বোতল ৫ থেকে ৭ দিন রোদে রেখে দিতে হবে| ব্যাস আপনার আঁচার তৈরী|

ঠাকুমা দিদিমারা আরো অনেক ধরনের আঁচার বানাতেন| আপনি আপাতত এই তিন ধরনের আঁচার বানিয়ে সেই পুরনো স্বাদ ও স্মৃতি রোমন্থন করুন আর বাড়ির সকলের মন জয় করে নিন| আরো কয়েক ধরনের আঁচারের রেসিপি নিয়ে আমি না হয় আরেক দিন হাজির হব|

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

359,032 টি প্রশ্ন

454,150 টি উত্তর

142,236 টি মন্তব্য

190,040 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...