415 জন দেখেছেন
"স্বাস্থ্য ও চিকিৎসা" বিভাগে করেছেন (81 পয়েন্ট)

1 উত্তর

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (587 পয়েন্ট)
মুখে দুর্গন্ধ (bad breath) এর মেডিকেল নাম হ্যালিটোসিস (Halitosis)। জেনে নিন হ্যালিটোসিস হওয়ার কারণ গুলোঃ
 ১। ব্যাকটেরিয়াঃ মুখের ব্যাকটেরিয়া প্রধান কারণ। আমাদের মুখে প্রায় ৬০০র অধিক ব্যাকটেরিয়া রয়েছে। নিয়মিত দাত ব্রাশ না করলে এরা মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি করে।
২। খাদ্যঃ কিছু কিছু খাবার আসে যেগুলো মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি করে। যাদের মধ্যে পিয়াজ আর রশুন মনে হয় সবাই খুব সহজেই সনাক্ত করতে পেরেছেন।
৩। ওষুধঃ প্রায় সব ওষুধেরই কিছু না কিছু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া আসে। তার মধ্যে শুষ্ক মুখ খুবই কমন একটা। যার ফলে মুখে দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়।
৪। দাতের রোগঃ দাঁতের রোগের কারনে অনেক সময় মুখে দুর্গন্ধ হয়। মাড়ির রোগ এ বেশি দুর্গন্ধ সৃষ্টি হয়।
৫। সাইনুসাইটিস (Sinusitis) আপনার যদি Sinusitis এর সমস্যা থাকে তাহলেও মুখে দুর্গন্ধ হতে পারে।
৬। অন্যান্য দৈহিক রোগঃ বিভিন্ন ধরনের দৈহিক রোগ আপনার মুখে দুর্গন্ধের সৃষ্টি করতে পারে। তারমধ্যে liver disease, kidney disease, respiratory disease উল্লেখযোগ্য।
৭। বয়সঃ আপনার বয়স ও আপনার মুখে দুর্গন্ধের কারণ! আপনি লক্ষ্য করলে দেখবেন, বাচ্চাদের মুখে মিষ্টি একটা গন্ধ পাওয়া যায়, যেটা আপনার নেই। আপনার বয়স যতই বাড়তে থাকবে, মুখের গন্ধটাও কটু হতে শুরু করবে। এর কারণ অবশ্য এখনও ভাল ভাবে জানা যায়নি।

মুখে দুর্গন্ধ হওয়া কি ভাবে প্রতিরোধ করবেন
১. প্রতিদিন নূন্যতম দুইবার দাঁত ব্রাশ করুন এবং ফ্লস দিয়ে দাঁতের ফাঁক থেকে খাদ্যকণা পরিস্কার করুন।
২. আপনার জিহ্বাতেও দিনে অন্তত একবার ব্রাশ করুন।
৩. আপনার দাঁত বছরে অন্তত একবার একজন প্রফেশনালকে দিয়ে পরিস্কার করিয়ে নিন এবং একজন ডেন্টিস্টকে দিয়ে পরীক্ষা করে নিন।
৪. ধুমপানের অভ্যাস থাকলে, ছেড়ে দিন।
৫. চিনি কম খাবেন, কফি, এবং এ্যালকোহল বা মদ ত্যাগ করুন মশলা জাতীয় খাবার যেমন রশুন, ঝাল মরিচ ইত্যাদি, এবং কড়া গন্ধযুক্ত খাবার যেমন শুঁটকি মাছ ইত্যাদি খাওয়া কমিয়ে দিন।
৬. প্রচুর পরিমাণে পানি পান করুন।
টি উত্তর
২১ জানুয়ারি ২০১৯ "ক্যারিয়ার" বিভাগে উত্তর দিয়েছেন Ariful (৬৩৭৩ পয়েন্ট )
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

288,093 টি প্রশ্ন

373,381 টি উত্তর

112,901 টি মন্তব্য

156,764 জন নিবন্ধিত সদস্য



বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
* বিস্ময়ে প্রকাশিত সকল প্রশ্ন বা উত্তরের দায়ভার একান্তই ব্যবহারকারীর নিজের, এক্ষেত্রে কোন প্রশ্নোত্তর কোনভাবেই বিস্ময় এর মতামত নয়।
...