বিস্ময় অ্যানসারস এ আপনাকে সুস্বাগতম। এখানে আপনি প্রশ্ন করতে পারবেন এবং বিস্ময় পরিবারের অন্যান্য সদস্যদের নিকট থেকে উত্তর পেতে পারবেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুন...
35 জন দেখেছেন
"ইবাদত" বিভাগে করেছেন (0 পয়েন্ট)

3 উত্তর

0 টি পছন্দ
করেছেন (12 পয়েন্ট)
হ্যা, মুসল্লীদেরও আল্লাহু আকবার মুখে নীরবে বলতে হবে। এটা সুন্নতে মুয়াক্কাদাহ।   
0 টি পছন্দ
করেছেন (94 পয়েন্ট)
যদি কোন ব্যক্তি ইমামের সাথে জামাতে নামাজ আদায় করে আর ইমাম রুকু সেজদায় যাওয়ার সময় যে আল্লাহু আকবার বলে। মুসল্লী ব্যক্তির ইমামের সাথে আস্তে তাকবীর বলা সুন্নত। অর্থাৎ মুস্তাহাব। না বললে কোন সমস্যা নেই। আর বলাটাই যেহেতু উত্তম তাই ইচ্ছাকৃত সুন্নত কে ছেড়ে দেওয়া ঘৃনার কাজ মনে করি। তবে যদি একা একা নামাজ আদায় করে তাহলে অবশ্যই তার তাকবীর বলতে হবে।
0 টি পছন্দ
করেছেন (6,748 পয়েন্ট)
জামাআতে নামায আদায়ের সময় ইমাম রুকু ও সিজদায় যাওয়ার আগে যে আল্লাহু আকবার বলে পেছনে মুসল্লীদের ও তা মুখে নিরবে বলতে হবে।

বিধান হচ্ছেঃ সুরুতে তাকবিরে তাহরীমা ''আল্লাহু আকবার'' বলা ফরজ। এরপর রুকু সিজদায় যেতে উঠতে ''আল্লাহু আকবার'' বলা সুন্নাত।

মুসুল্লিদের ও আল্লাহু আকবার বলতে হবে এর রেফারেন্স হলোঃ

আনাস ইবনু মালিক (রাঃ) হতে বর্ণিত আছে, তিনি বলেন, ইমাম এজন্যই নিযুক্ত করা হয় যাতে তার অনুসরণ করা হয়। যখন সে আল্লাহু আকবার বলবে তখন তোমরাও তাকবীর বলবে, যখন সে রুকূতে যাবে তোমরাও রুকূতে যাবে; যখন সে মাথা তুলবে তোমরাও মাথা তুলবে; যখন সে সামিআল্লাহু লিমান হামিদাহ' বলে তোমরা তখন রব্বানা ওয়া লাকাল হামদ বল; যখন তিনি সাজদাহতে যান তোমরাও সিজদায় যাও; যখন তিনি বসে নামায আদায় করেন তোমরাও সবাই বসে নামায আদায় কর।

(সূনান আত তিরমিজী হাদিস নম্বরঃ ৩৬১ হাদিসের মানঃ সহিহ)।
টি উত্তর

সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

1 উত্তর
06 মে "ইবাদত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Mr. Maruf (245 পয়েন্ট)
1 উত্তর
05 এপ্রিল 2014 "ইবাদত" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন মুশারফ হোসেন (152 পয়েন্ট)

299,667 টি প্রশ্ন

387,401 টি উত্তর

117,077 টি মন্তব্য

165,305 জন নিবন্ধিত সদস্য

বিস্ময় বাংলা ভাষায় সমস্যা সমাধানের একটি নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। এখানে আপনি আপনার প্রশ্ন করার পাশাপাশি অন্যদের প্রশ্নে উত্তর প্রদান করে অবদান রাখতে পারেন অনলাইনে বিভিন্ন সমস্যার সমাধানের জন্য সবথেকে বড় এবং উন্মুক্ত তথ্যভাণ্ডার গড়ে তোলার কাজে।
...